এসএসসি বাংলা ১ম পত্র ফাইনাল সাজেশন (গদ্য) ২০২২ | SSC Bangla Suggestion 2022 | এস এস সি বাংলা সৃজনশীল ও বহুনির্বাচনি সাজেশন ২০২২

 

এসএসসি বাংলা ১ম পত্র ফাইনাল সাজেশন (গদ্য) ২০২২

আরো দেখুন

   
       

    এসএসসি বাংলা ১ম পত্র ফাইনাল সাজেশন (গদ্য) ২০২২

    যে সকল অধ্যায় থেকে বহুনির্বাচনি সাজেশন এখানে পাবেন একনজরে দেখে নিন।

    • সুভা
    • বই পড়া
    • মানুষ মুহাম্মদ (স.)
    • শিক্ষা ও মনুষ্যত্ব 
    • মমতাদি
    • একাত্তরের দিনগুলি 

    সুভা

    জ্ঞানমূলক প্রশ্ন

     
    প্রশ্ন : প্রতাপ সুভার মর্যাদা বুঝত কেন ?
    উত্তর : ছিপ ফেলে মাছ ধরার সময় বাক্যহীন সঙ্গীই সর্বাপেক্ষা শ্রেষ্ঠ বলে প্রতাপ সুভার মর্যাদা বুঝত ।
    প্রশ্ন : সুভা কার কাছে মুক্তির আনন্দ পায় ?
    উত্তর : সুভা বিপুল নির্বাক প্রকৃতির কাছে মুক্তির আনন্দ পায় ।
    প্রশ্ন : সুভা গল্পে কাকে অকর্মণ্য বলা হয়েছে ?
    উত্তর : সুভা গল্পে প্রতাপকে অকর্মণ্য বলা হয়েছে । প্রশ্ন : প্রতাপের প্রধান শখ কী ?
    উত্তর : প্রতাপের প্রধান শখ ছিপ ফেলে মাছ ধরা ।
    প্রশ্ন : সুভার বাবার নাম কী ?
    উত্তর : সুভার বাবার নাম বাণীকণ্ঠ ।
    প্রশ্ন : সুভার ভাষাবিশিষ্ট জীব সঙ্গী কে ?
    উত্তর : সুভার ভাষাবিশিষ্ট জীব সঙ্গী প্রতাপ ।
    প্রশ্ন : সুভা জলকুমারী হলে কী করত ?
    উত্তর  : সুভা জলকুমারী হলে আস্তে আস্তে জল থেকে উঠে সাপের মাথায় মণি ঘাটে রেখে যেত ।
    প্রশ্ন : গোঁসাইদের ছোট ছেলেটির নাম কী ?
    উত্তর : গোঁসাইদের ছোট ছেলেটির নাম প্রতাপ ।

    অনুধাবনমূলক প্রশ্নঃ

     
    ১। সুভাকে সুভার মা বিধাতার অভিশাপ বলে মনে করে কেন ?
    ২। ' তুমি আমাকে যাইতে দিয়ো না , মা'- উক্তিটি ব্যাখা করো ।
    ৩। সুভা পিতামাতার মনে সর্বদাই জাগরূক ছিলো কেন ? ব্যাখা করো ।
    ৪। সুভার সমস্ত হৃদয় অশ্রুবাষ্পে ভরে গেলো কেন ? ব্যাখা করো ।
    ৫। প্রতাপকে নিতান্ত অকর্মণ্য লোক কেন বলা হয়েছে ?
    ৬। প্রকৃতি কীভাবে সুভার ভাষার অভাব পূরণ করেছিলো ?

    প্রয়োগমূলক ও উচ্চতর দক্ষতামূলক প্রশ্নের জন্য কবিতার মূলভাব টি ভালো করে জানতে হবে ।

    মূলভাব


    সুভা গল্পটি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বিখ্যাত ' গল্পগুচ্ছ থেকে সংকলিত হয়েছে । বাকপ্রতিবন্ধী কিশোরী সুভার প্রতি লেখকের হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসা ও মমত্ববোধে গল্পটি অমর হয়ে আছে । সুভা কথা বলতে পারে না । মা মনে করেন , এ - তার নিয়তির দোষ , কিন্তু বাবা তাকে ভালোবাসেন । আর কেউ তার সঙ্গে মেশে না - খেলে না । কিন্তু তার বিশাল একটি আশ্রয়ের জগৎ আছে । যারা কথা বলতে পারে না সেই পোষা প্রাণীদের কাছে সে মুখর । তাদের সে খুবই কাছের জন । আর বিপুল নির্বাক প্রকৃতির কাছে সে পায় মুক্তির আনন্দ । রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর মূলত প্রতিবন্ধী মানুষের আশ্রয়ের জন্য একটি জগৎ তৈরি করেছেন এবং সেইসঙ্গে তাদের প্রতি আমাদের মমত্ববোধের উন্মেষ ঘটাতে চেয়েছেন ।

    বই পড়া

    জ্ঞানমূলক প্রশ্ন
    প্রশ্ন : যথার্থ গুরুর কাজ কী ?
    উত্তর : যথার্থ গুরুর কাজ শিষ্যের আত্মাকে উদ্বোধিত করা এবং তার অন্তর্নিহিত সকল প্রচ্ছন্ন শক্তিকে ব্যক্ত করে তোলা ।
    প্রশ্ন : মনের দাবি রক্ষা না করলে কী বাঁচে না ?
    উত্তর : মনের দাবি রক্ষা না করলে মানুষের আত্মা বাঁচে না ।
    প্রশ্ন : প্রমথ চৌধুরীর সাহিত্যিক ছদ্মনাম কী ?
    উত্তর : প্রমথ চৌধুরীর সাহিত্যিক ছদ্ম নাম ' বীরবল ' ।
    প্রশ্ন : মানুষের সর্বশ্রেষ্ঠ শখ কোনটি ?
    উত্তর : মানুষের সর্বশ্রেষ্ঠ শখ হচ্ছে বই পড়া ।
    প্রশ্ন : লেখক কোনটিকে স্কুল - কলেজের ওপরে স্থান দিয়েছেন ?
    উত্তর : লেখক লাইব্রেরিকে স্কুল - কলেজের ওপরে স্থান দিয়েছেন ।
    প্রশ্ন : কিসের জন্য আমরা সকলে উদ্বাহ ?
    উত্তর : শিক্ষার ফল লাভের জন্য আমরা সকলে উদ্বাহু।
    প্রশ্ন : বিদ্যার্জনের ক্ষেত্রে শুরু কী ?
    উত্তর : বিদ্যা অর্জনের ক্ষেত্রে গুরু উত্তরসাধন মাত্র ।
    প্রশ্ন : সাহিত্যচর্চার আনন্দ থেকে বঞ্চিত হওয়ার অর্থ কী ?
    উত্তর : সাহিত্যচর্চার আনন্দ থেকে বঞ্চিত হওয়ার অর্থ হলো জাতির জীবনীশক্তি হ্রাস করা ।

    অনুধাবনমূলক প্রশ্ন
    ১। ' দেহের মৃত্যুর রেজিস্টারি রাখা হয় , আত্মার হয় না'- ব্যাখা করো ।
    ২। ' বই পড়া ' প্রবন্ধে লেখক লাইব্রেরিকে স্কুল কলেজের উপর স্থান দিয়েছেন কেন ?
    ৩। লেখক লাইব্রেরিকে হাসপাতালের উপর স্থান দিয়েছেন কেন ?
    ৪। পাস করা ও শিক্ষিত হওয়া এক বস্তু নয় কেন ? ব্যাখা করো ।
    ৫। মনের দাবি রক্ষা না করলে মানুষের আত্মা বাঁচে না- প্রমথ চৌধুরী এ কথা কেন বলেছেন ?

    প্রয়োগমূলক ও উচ্চতর দক্ষতামূলক প্রশ্নের জন্য কবিতার মূলভাব টি ভালো করে জানতে হবে ।

    মূলভাব

    বই পড়া ' প্রবন্ধটি প্রমথ চৌধুরীর প্রবন্ধ সংগ্রহ থেকে নির্বাচন করা হয়েছে । একটি লাইব্রেরির বার্ষিক সভায় প্রবন্ধটি পঠিত হয়েছিল । আমাদের পাঠচর্চার অনভ্যাস যে শিক্ষা ব্যবস্থার ত্রুটির জন্য ঘটছে তা সহজেই লক্ষণীয় । আর্থিক অনটনের কারণে অর্থকরী নয় এমন সবকিছুই এদেশে অনর্থক বলে বিবেচনা করা হয় । সেজন্য বই পড়ার প্রতি লোকের অনীহা দেখা যায় । শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে লব্ধ শিক্ষা পূর্ণাঙ্গ নয় বলে ব্যাপকভাবে বই পড়া দরকার । কারণ সুশিক্ষিত লোক মাত্রই স্বশিক্ষিত । যথার্থ শিক্ষিত হতে হলে মনের প্রসার দরকার । তার জন্য বই পড়ার অভ্যাস বাড়াতে হবে । এর জন্য লাইব্রেরি প্রতিষ্ঠার প্রয়োজন । বাধ্য না হলে লোকে বই পড়ে না । লাইব্রেরিতে লোকে নিজের পছন্দ অনুযায়ী বই পড়ে যথার্থ শিক্ষিত হয়ে উঠতে পারে । প্রগতিশীল জগতের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার জন্য সাহিত্যচর্চা করা আবশ্যক বলে লেখক মনে করেন ।

    মানুষ মুহম্মদ (স.)

    জ্ঞানমূলক প্রশ্ন


    প্রশ্ন : ' পুলকদীপ্তি ' অর্থ কী ?
    উত্তর : ' পুলকদীপ্তি ' অর্থ আনন্দের উদ্ভাস ।
    প্রশ্ন : ছাত্রজীবনে মোহাম্মদ ওয়াজেদ আলী কোন আন্দোলনে যোগ দিয়েছিলেন ?
    উত্তর : ছাত্রজীবনে মোহাম্মদ ওয়াজেদ আলী অসহযোগ আন্দোলনে যোগ দিয়েছিলেন ।
    প্রশ্ন : মানুষ মুহম্মদ ( স . ) রচনাটি কোন গ্রন্থ থেকে নেওয়া হয়েছে ।
    উত্তর : মানুষ মুহম্মদ ( স . ) রচনাটি মরু ভাস্কর গ্রন্থ থেকে নেওয়া হয়েছে ।
    প্রশ্ন : তায়েফের অবস্থান কোথায় ?
    উত্তর : তায়েফের অবস্থান সৌদি আরবের দক্ষিণে ।
    প্রশ্ন : মানুষ মুহম্মদ ( স . ) ' প্রবন্ধে ' স্থিতধী ' বলা হয়েছে কাকে ?
    উত্তর : মানুষ মুহম্মদ ( স . ) ' প্রবন্ধে স্থিতধী বলা হয়েছে হযরত আবুবকর ( রা . ) - কে ।
    প্রশ্ন : হযরতের ইন্তেকালের পর বহু হাদিস উদ্ধৃত করেন কোন নারী ?
    উত্তর : হযরতের ইন্তেকালের পর বহু হাদিস উদ্ধৃত করেন বিবি আয়েশা ( রা . ) ।
    প্রশ্ন : শেষ পন্ত হযরত মুহম্মদ ( স . ) - এর মৃত্যুশয্যার পার্শ্বে কে ছিলেন ?
    উত্তর : মহামতি আবুবকর ( রা . ) শেষ পর্যন্ত হযরত মুহম্মদ ( স . ) - এর মৃত্যুশয্যার পার্শ্বে ছিলেন ।

    অনুধাবনমূলক প্রশ্ন

     
    ১। ' মানুষের একজন হইয়াও মুহম্মদ ( সাঃ ) দূর্লভ'- কথাটি কে বলেছেন ?
    ২। খাদিজা ( রহ ) এর হযরত মুহম্মদ ( সাঃ ) কে পছন্দ করার কারণ ব্যাখা করো ।
    ৩। মহামতি আবু বকর ( রা . ) গম্ভীরভাবে জনতার মধ্যে দাঁড়ালেন কেন ?
    ৪। এদের জ্ঞান দাও প্রভু , এদের ক্ষমা করো । ' কথাটি বুঝিয়ে লেখো ।
    ৫। ' বিবি আয়েশার মর্মছেড়া বিলাপ সমস্ত মানুষের সমগ্র বিশ্বের'- ব্যাখা করো ।

    প্রয়োগমূলক ও উচ্চতর দক্ষতামূলক প্রশ্নের জন্য মূলভাব টি ভালো করে জানতে হবে।

    মূলভাব

    “ মানুষ মুহম্মদ ( স . ) ' প্রবন্ধটি মোহাম্মদ ওয়াজেদ আলী রচিত ' মরু ভাস্কর ' গ্রন্থ থেকে নেওয়া হয়েছে । হযরত মুহম্মদ ( স . ) - এর মানবিক গুণাবলি এ প্রবন্ধে বিশ্লেষণ করা হয়েছে । হযরত ছিলেন মানুষের নবি । তাই মানুষের পক্ষে যা আচরণীয় তিনি তারই আদর্শ প্রতিষ্ঠা করে গেছেন । তিনি বিপুল ঐশ্বর্য , ক্ষমতা ও মানুষের অগাধ ভালোবাসা ও শ্রদ্ধার মধ্যে থেকেই একজন সাধারণ মানুষের মতো জীবনযাপন করে গেছেন । ক্ষমতা ও মহত্ত্ব , প্রেম ও দয়া তাঁর অজস্র চারিত্রিক গুণের মধ্যে প্রধান । তাঁর সারা জীবন মানব জাতির কল্যাণের জন্য নিয়োজিত ছিল । মানুষের শ্রেষ্ঠ আদর্শ হিসেবে তিনি তাঁর জীবন রূপায়িত করে তুলেছিলেন । তাঁর সাধনা , ত্যাগ , কল্যাণচিন্তা ছিল বিশ্বের সমগ্র মানুষের জন্য অনুকরণীয় । হযরত মুহম্মদ ( স . ) এর মৃত্যুর পর তাঁর অনুসারীগণের মধ্যে যে বেদনা ও হতাশা দেখা দিয়েছিল তা প্রশমন করার জন্য হযরত আবুবকর ( রা ) মহানবি ( স . ) - এর জীবনের বৈশিষ্ট্য তুলে ধরে প্রচণ্ড শোককে শান্ত করেন । মানুষ হিসেবে হযরতের বৈশিষ্ট্যের আলোচনাই এ প্রবন্ধের প্রতিপাদ্য বিষয় ।

    শিক্ষা ও মনুষ্যত্ব

    জ্ঞানমূলক প্রশ্ন

    প্রশ্ন : ' ক্ষুৎপিপাসা ' শব্দের অর্থ কী ?
    উত্তর : ক্ষুৎপিপাসা ' শব্দের অর্থ হলো— ক্ষুধা ও তৃষ্ণা -
    প্রশ্ন : মোতাহের হোসেন চৌধুরীর অনুবাদ গ্রন্থ দুটির নাম লেখ ?
    উত্তর : মোতাহের হোসেন চৌধুরীর অনুবাদ গ্রন্থ দুটির নাম হলো সভ্যতা ও সুখ ।
    প্রশ্ন : শিক্ষার আসল কাজ কী ?
    উত্তর : শিক্ষার আসল কাজ মূল্যবোধ সৃষ্টি করা ।
    প্রশ্ন : শিক্ষা ও মনুষ্যত্ব ' প্রবন্ধটি কোন গ্রন্থ থেকে নেওয়া হয়েছে ?
    উত্তর : শিক্ষা ও মনুষ্যত্ব প্রবন্ধটি সংস্কৃতি কথা ' গ্রন্থ থেকে নেওয়া হয়েছে ।
    প্রশ্ন : ' লেফাফাদুরস্তি ' শব্দের অর্থ কী ?
    উত্তর : ' লেফাফাদুরন্তি ' শব্দের অর্থ বাইরের দিক ত্রুটিহীন কিন্তু ভিতরে প্রতারণা ।
    প্রশ্ন : কোনটি আমাদের মানবসত্তার ঘরে নিয়ে যেতে পারে ?
    উত্তর : শিক্ষা আমাদের মানবসত্তার ঘরে নিয়ে যেতে পারে ।
    প্রশ্ন : শিক্ষার দুটি দিক কী কী ?
    উত্তর : শিক্ষার দুটি দিকের একটি হলো প্রয়োজনের দিক , আর অপরটি হলো অপ্রয়োজনীয় দিক ।

    জ্ঞানমূলক প্রশ্ন

    প্রশ্ন : শিক্ষার কোন দিক জীবনকে উপভোগ করতে শেখায় ?
    উত্তর : শিক্ষার অপ্রয়োজনীয় দিকটি মানবজীবনকে উপভোগ করতে শেখায় ।
    প্রশ্ন : শিক্ষা ও মনুষ্যত্ব ' প্রবন্ধের লেখকের নাম কী ?
    উত্তর : মোতাহের হোসেন চৌধুরী ।
    প্রশ্ন : জীবসত্তা ও মানবসত্তা সম্পর্কে কোন প্রবন্ধে আলোচনা করা হয়েছে ?
    উত্তর : শিক্ষা ও মনুষ্যত্ব ' প্রবন্ধে জীবসত্তা ও মানবসত্তা নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে ।
    প্রশ্ন : শিক্ষা কী ?
    উত্তর : শিক্ষা হচ্ছে জীবসত্তার ঘর থেকে মানবসত্তার ঘরে ওঠার মই ।
    প্রশ্ন : কোন চেষ্টাকে লেখক অভিনন্দন জানিয়েছেন ?
    উত্তর : অন্নচিন্তার নিগড় থেকে মানুষকে মুক্তি দেওয়ার চেষ্টাকে কিন্তু লেখক অভিনন্দন জানিয়েছেন ।
    প্রশ্ন : মনুষ্যত্বের আহ্বান কখন মানুষের মর্মে গিয়ে পৌঁছাতে দেরি হয় ?
    উত্তর : যখন প্রাণিত্বের বাঁধন থেকে মুক্তি পায় না তখন মনুষ্যত্বের আহ্বান মানুষের মর্মে গিয়ে পৌঁছাতে দেরি হয় ।
    প্রশ্ন : আত্মার পতন হয় কিসে ?
    উত্তর : আত্মার পতন হয় আলস্য ও অসাধুতায়

    অনুধাবনমূলক প্রশ্ন :

     
    ১। কখন হাঁটার আনন্দ উপভোগ করা যায় না ?
    ২। প্রাণিত্বের বাঁধন থেকে মুক্তি বলতে কি বোঝানো হয়েছে ?
    ৩। শিক্ষাকে মই এর সাথে তুলনা করা হয়েছে কেন ?
    ৪। শিক্ষার অপ্রয়োজনীয় দিকটি শ্রেষ্ঠ কেন ?
    ৫। লেফাফাদুরস্তি আর শিক্ষা এক কথা নয় কেন ?

    প্রয়োগমূলক ও উচ্চতর দক্ষতামূলক প্রশ্নের জন্য মূলভাব টি ভালো করে জানতে হবে ।

    মূলভাব

    পাঠ - পরিচিতি : ' শিক্ষা ও মনুষ্যত্ব ' প্রবন্ধটি মোতাহের হোসেন চৌধুরীর সংস্কৃতি কথা ' গ্রন্থের ' মনুষ্যত্ব ' শীর্ষক প্রবন্ধের অংশবিশেষ । মানুষের দুটি সত্তা- একটি তার জীবসত্তা , অপরটি মানবসত্তা বা মনুষ্যত্ব । জীবসত্তার প্রয়োজনে অনুবস্ত্রের চিন্তা থেকে মুক্তি এবং শিক্ষা লাভের মাধ্যমে মনুষ্যত্বের বিকাশ ঘটে । শিক্ষার ফলে মনুষ্যত্বের স্বাদ পেলে অন্নবস্ত্রের সমস্যার সমাধান সহজ হয়ে ওঠে শিক্ষার আসল কাজ মূল্যবোধ সৃষ্টি , জ্ঞান দান নয় ; জ্ঞান মূল্যবোধ সৃষ্টির উপায়মাত্র ।


    মমতাদি


    জ্ঞানমূলক প্রশ্ন

    প্রশ্ন : মমতাদি কোথায় থাকে ? উত্তর : জীবনময়ের গলির সাতাশ নম্বর বাড়ির এক তলায় ।
    প্রশ্ন : মমতাদি কত টাকা মাইনে ( বেতন ) আশা করেছিল ?
    উত্তর : মমতাদি বারো টাকা মাইনে আশা করেছিল ।
    প্রশ্ন : গৃহকর্মে মমতাদির মাইনে কত টাকা ঠিক হয়েছিল ?
    উত্তর : গৃহকর্মে মমতাদির মাইনে পনেরো টাকা ঠিক হয়েছিল ।
    প্রশ্ন : মমতাদির গালে লেখক কয়টি দাগ দেখতে পেল ?
    উত্তর : মমতাদির গালে লেখক তিনটি দাগ দেখতে পেল ।
    প্রশ্ন : কবে থেকে মমতাদির স্বামীর চাকরি হয়েছে ?
    উত্তর : ইংরেজি মাসের পয়লা তারিখ থেকে ।
    প্রশ্ন : কার উপর লেখকের মায়ের মায়া বসেছে ?
    উত্তর : মমতাদির উপর লেখকের মায়ের মায়া বসেছে ।
    প্রশ্ন : জীবনময় লেনের পরিবেশ কী রকম ?
    উত্তর : জীবনময় লেনের পরিবেশ বিশ্রী এবং নোংরা ।

    অনুধাবনমূলক প্রশ্ন :

     
    ১. মমতাদিকে ছায়ামানবী ' বলা হয়েছে কেন ?
    ২. মমতাদি ' কীভাবে তার সঙ্কোচকে জয় করে ফেলল ?
    ৩। লেখকের মা কেন মমতাদিকে কাজ ছাড়তে বললেন ?
    ৪। মমতাদি চড় খাওয়ার বিষয়টা গোপণ করেছিলেন কেন ?
    ৫। মমতাদির বরের চাকরির জন্য ছোট ছেলেটি দুশ্চিন্তাগ্রস্ত হয়ে পড়ে কেন ?

    প্রয়োগমূলক ও উচ্চতর দক্ষতামূলক প্রশ্নের জন্য মূলভাব টি ভালো করে জানতে হবে ।

    একাত্তরের দিনগুলি

    জ্ঞানমূলক প্রশ্ন

     
    প্রশ্ন : জেনারেল নিয়াজী কত জন সৈন্য নিয়ে আত্মসমর্পণ করে ?
    উত্তর : জেনারেল নিয়াজী নব্বই হাজার সৈন্য দিয়ে আত্মসমর্পণ করে ।
    প্রশ্ন : ' কূটকৌশল ' শব্দের অর্থ কী ?
    উত্তর : " কূটকৌশল " শব্দের অর্থ হলো চতুরতা বা দুবুদ্ধি ।
    প্রশ্ন : গোয়েবলস কে ?
    উত্তর : গোয়েবলস হলো রাজনীতিতে প্রতিহিংসা ও মিথ্যা রটনার প্রবর্তক জার্মানি বংশোদ্ভূত হিটলারের সহযোগী ।
    প্রশ্ন : মাখনের মতো রং কোন ফুলের ?
    উত্তর : মাখনের মতো রং পিস ফুলের ।
    প্রশ্ন : কোন অঞ্চলগুলোতে প্রথম গেরিলা তৎপরতা শুরু হয় ?
    উত্তর : বর্ডারঘেঁষা অঙ্কুলগুলোতে প্রথম গেরিলা তৎপরতা শুরু হয় ।
    প্রশ্ন : ১৯৭১ সালে মে মাসের কত তারিখ মাধ্যমিক স্কুল খোলার হুকুম হয়েছিল ?
    উত্তর : ১৯৭১ সালের মে মাসের ৯ তারিখ মাধ্যমিক স্কুল খোলার হুকুম হয়েছিল ।
    প্রশ্ন : ঢাকার কয় জায়গায় গ্রেনেড ফেটেছে ?
    উত্তর : ঢাকার ছয় জায়গায় গ্রেনেট ফেটেছে ।
    প্রশ্ন : কোন দিন একটানা বৃষ্টি হয়েছিল ?
    উত্তর : রোববার সারা দিনভর একটানা বৃষ্টি হয়েছিল ।
    প্রশ্ন : স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রে হাসান ইমামের ছদ্মনাম কী ?
    উত্তর : স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রে হাসান ইমামের ছদ্মনাম ছিল সালেহ আহমদ ।
    প্রশ্ন : একাত্তরের দিনগুলি কোন ধরনের রচনা ?
    উত্তর : ' একাত্তরের দিনগুলি স্মৃতিচারণমূলক রচনা । জামী কে ?
    প্রশ্ন : উত্তর : জামী লেখিকার ছোট ছেলে । প্রশ্ন : বাবুদের মামার বাড়ি কোথায় ?
    উত্তর : বাপুর মামার বাড়ি শান্তিনগরে ।
    প্রশ্ন : লেখিকার দুলাভাইয়ের বাসা কোথায় ?
    উত্তর : লেখিকার দুলাভাইয়ের বাসা শান্তিনগরে । 


    Tag:এসএসসি বাংলা ১ম পত্র ফাইনাল সাজেশন (গদ্য) ২০২২,এসএসসি/ SSC Bangla Suggestion 2022 

                                   
    Previous Post Next Post

      আপনার নামের অর্থ জানতে ক্লিক করুন


    আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন