ফেমিকন খাওয়ার নিয়ম (ফেমিকন খাওয়ার নিয়মাবলী) | ফেমিকন দাম কত | ফেমিকন খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা

 

আসছালামু আলাইকুম প্রিয় পাঠক সবাই কেমন আছেন।আসা করি সবাই আল্লাহর রহমতে ভালো আছেন। প্রিয় পাঠক আজকে আমরা তোমাদের ফেমিকন খাওয়ার নিয়ম (ফেমিকন খাওয়ার নিয়মাবলী) ফেমিকন এর দাম কত, ফেমিকন খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা নিয়ে আলোচনা করবো। আসা করি তোমাদের উপকারে আসবে।

ফেমিকন খাওয়ার নিয়ম (ফেমিকন খাওয়ার নিয়মাবলী) | ফেমিকন দাম কত | ফেমিকন খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা

এই পোস্টে যা যা পাবেন

       
       
                             

    ফেমিকন কি কাজ করে

    এটি স্বল্পমাত্রার জন্মবিরতীকরন পিল যে সকল দম্পতি বিয়ের পর বেশ কয়েকমাস বা কয়েক বছর বাচ্চা নিতে না চান, তারা নিয়মিত সেবন করে।

    ফেমিকন খাওয়ার উপকারিতা

    নিয়মিত পিল ব্যবহার করলে নারী দেহে বিভিন্ন ঝুঁকির অবসান ঘটে। এই পিল ব্যবহার করলে, ওয়ারিয়ান সিস্ট, অ্যানিমিয়া, আর্থারাইটিস, একটোপিক প্রেগনেন্সি, যৌনাঙ্গে প্রদাহজনিত রোগ ইত্যাদির সম্ভাবনা কমে যায়। এচাড়াও পিরিয়ড চলাকালীন অস্বস্তি, খিঁচুনি, যন্ত্রণা লাঘব করে। পিল খাওয়া বন্ধ করে দিলেই স্বাভাবিক নিয়মে গর্ভধারণ সম্ভব।

    ফেমিকন খাওয়ার অপকারিতা

    এই পিলের তেমন কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই। তবে ফেমিকন পিল নিয়মিত না খেলে স্বাভাবিক নিয়মে গর্ভধারণ হয়ে যাবে। এক এক ধরণের খাবার পিল এক এক ধরণের মহিলার শরীরের সাথে মানিয়ে যায় । তবে কোনো কোনো মহিলার প্রাথমিক পর্যায়ে পিল খেলে কিছু অসুবিধা দেখা দিতে পারে । যেমন , মাথা ঘোরা , মাথা ব্যাথা , বমি বমি ভাব অথবা পিল খাওয়াকালীন সামান্য ফোঁটা ফোঁটা রক্ত মাসিকের আকারে বের হতে পারে । নিয়মিত পিল খেতে থাকলে ২/৩ মাসের মধ্যেই এ সমস্ত উপসর্গ স্বাভাবিকভাবেই দুর হয়ে যায় । যেসব মহিলার ক্ষেত্রে এ ধরণের উপসর্গ ২/৩ মাসের পরেও থেকে যায় , তাদেরকে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে এবং ডাক্তারের নির্দেশমত পরবর্তী মাসিক শুরু থেকে অন্য কোনো পদ্ধতি নিতে হবে।

    ফেমিকন খাওয়ার নিয়ম | ফেমিকন পিল খাওয়ার নিয়ম

    মাসিক শুরুর প্রথম বা দ্বিতীয় দিন থেকে শুরু করে টানা ২১ দিন পর্যন্ত সাদা বড়ি একটি প্রতিদিন খেতে হবে । এরপর ২২ তম দিন থেকে লাল বা খয়েরি বড়ি সাতটি প্রতিদিন একটি করে খেতে হবে । সাতটি বড়ি খাওয়া শেষ হলে দুই তিন পর মাসিক স্রাব শুরু হবে । এরপর আবার মাসিক শুরুর দ্বিতীয় দিন থেকে আরেকটি পাতার সাদা বড়ি খাওয়া শুরু করতে হবে । এভাবে প্রতিমাসে একটি করে পাতা ( মোট ২৮ টি পিল ) খেতে হবে ।

    অর্থাৎ যতদিন পর্যন্ত বাচ্চা নিতে না চান , ততদিন পর্যন্ত ফেমিকন খাওয়া এভাবে চালিয়ে যেতে হবে । সহবাস করলেও প্রতিদিন ১ টা করে খেতে হবে , সহবাস না করলেও প্রতিদিন ১ টা করে খেতে হবে , প্রতিরাতে ।

    কোন কারনে যদি ১ দিন পিল খেতে ভুলে যান তাহলে পরের দিন দুইটা বড়ি একসাথে খেতে হবে ।

    যতদিন বাচ্চা নিতে না চান ততদিন পর্যন্ত এভাবে একটানা খেতে হবে কোন সমস্যা হবেনা । এই জীতায় পিল নিরাপদ । পরবর্তীতে যখন বাচ্চা নিতে চাইবে ফেমিকন পিল খাওয়া বন্ধ করে দিলে বাচ্চা নিতে গর্ভাশয় প্রস্তুত হয়ে যাবে ।

    ফেমিকন এর দাম কত

    ফেমিকন এর দাম ৩০ টাকা

    ফেমিকন পিল খাওয়ার কতদিন পর সহবাস করা যায়

    উত্তরঃ- বিষয় টি সে রকম নয় পুরো নিয়ম পড়ুন তাহলে বুঝতে পারবেন। মাসিক শুরু দ্বিতীয় দিন থেকে যতদিন পর্যন্ত বাচ্চা নিতে না চান, ততদিন পর্যন্ত ফেমিকন খাওয়া চালিয়ে যেতে হবে। সহবাস করলেও প্রতিদিন 1 টা করে খেতে হবে, সহবাস না করলেও প্রতিদিন 1 টা করে খেতে হবে, প্রতিরাতে। কোন কারনে 1 দিন খেতে ভুলে গেলে পরের দিন দুইটা একসাথে খেতে হবে। যতদিন বাচ্ছা নিতে না চান ততদিন পর্যন্ত একটানা খেতে হবে কোন সমস্যা হবেনা। এই জীতায় ঔষধ নিরাপদ পরবর্তীতে যখন বাচ্ছা নিতে চাইবেন ফেমিকন খাওয়ানো বন্ধ করে দিলে বাচ্ছা নিতে গর্ভাশয় উন্মুক্ত হয়ে যাবে। সঠিক সময়ে মাসিক হয়ে যাবে, মাসিক চলাকালীন খয়েরি বড়ি সিরিয়াল অনুযায়ী খেতে হবে। পুরোপুরি বিস্তারিত জানার জন্য 30 টাকা দিয়ে 1 প্যাকেট ফেমিকন কিনুন, দেখুন ঔ প্যাকেটের ভিতর ছবি সহ বিস্তারিত লিখা আছে।

    ফেমিকন খাওয়ার কতদিন পর মাসিক হয়

    উত্তরঃ- ফেমিকন খাবার নিয়ম লেখা প্রথম মাসিকের দিন থেকে খেতে হবে এবং খয়রি বড়ি খাবার দিন থেকে মাসিক হবে তা হলে ১৪ দিন পর মাসিকের ডেট পরে মাসিকের ৭দিন ৭ টি বড়ি তার পর বাকি থাকে ১৪ টা ১৪ দিন তার পর খয়রি বড়ি তখন মাসিক হবার কথা তা হলে ১৪দিন পর মাসিক হবে?

    টাগঃফেমিকন খাওয়ার নিয়ম (ফেমিকন খাওয়ার নিয়মাবলী), ফেমিকন দাম কত, ফেমিকন খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা                    

                                   
    Previous Post Next Post
    আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন