দাঁত ব্যথার ট্যাবলেট এর নাম | দাঁতের মাড়ি ব্যথা কমানোর ঔষধের নাম | দাঁতের ব্যথা কমানোর উপায় ওষুধ

দাঁত ব্যথার ট্যাবলেট এর নাম |  দাঁতের মাড়ি ব্যথা কমানোর ঔষধের নাম | দাঁতের ব্যথা কমানোর উপায় ওষুধ


আসছালামু আলাইকুম সম্মানিত পাঠকবৃন্দ সবাইকে আমাদের ওয়েবসাইটে স্বাগতম। আসা করি ভালো আছেন। বন্ধুতা দাঁত ব্যথা সব চেয়ে যন্ত্রণাদায়ক একটি ব্যথা। যার একবার দাঁত ব্যথা হয়েছে সেই বুঝতে পারে দাঁত ব্যথা কাকে বলে। দাঁত ব্যথা ভিবিন্ন কারনে হতে পারে। আপনাকে আগে দাঁত ব্যথার কারন খুজে বের করতে হবে তারপর সেই অনুযায়ী চিকিৎসা নিতে হবে। 

    দাঁত ব্যথার কারন

    যে সব কারনে সাধারণত দাঁত ব্যথা হতে পারে যেমনঃ-

    • দাঁত ক্ষয় হয়ে যাওয়া
    • দাঁতের মধ্যে খাদ্য আটকে থাকা
    • দাঁত অপসারণ
    • মাড়িতে ফোঁড়া
    • বেশিরভাগ সময় ক্যালসিয়ামের অভাবের কারণে বা দাঁত পরিষ্কার না করার কারণে দাঁতগুলিতে ব্যাকটেরিয়া সংঘটিত হয়, যার ফলে দাঁত ব্যথা হয়।
    • দাঁত বা মাড়িতে ইনফেকশন ইত্যাদি কারনে দাঁত ব্যথা হয়। 


    দাঁত ব্যথার ঘরোয়া চিকিৎসা 

    দাঁতে তীব্র ব্যথা হলে কিছু ঘরোয়া উপায় আছে ঐ গুলো করলে আসা করি দাঁতেত ব্যথা একটু কমে যাবে। আসুন দেখে নেই দাঁত ব্যথাত ঘরোয়া চিকিৎসা।

    • আপনার দাঁতের ব্যাথা থাকলে মিষ্টি খাবার খাওয়া বা পান করা এড়িয়ে চলুন, কারণ এটি ব্যাকটেরিয়া, ঝিল্লি, ব্যাকটেরিয়া ইত্যাদিকেও উৎসাহিত করে, যা আপনার যন্ত্রণা বাড়াতে পারে।
    • ১ গ্লাস কুসুম গরম পানিতে ১ টেবিল চামুচ লবণ মিশিয়ে মুখে নিয়ে ১ মিনিট রাখুন। এভাবে দিনে ৩ বার করে গুলি করুন ব্যথা কমে যায়। 
    • এ ছাড়াও ১ টেবিল চামুচ লবণ অল্প সরিষার তেলের সঙ্গে অথবা লেবুর রসের সঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে মাড়িতে ম্যাসাজ করুন কয়েক মিনিট। তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে কুলি করে নিন। এভাবে ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস হবে।

    • ব্যথাযুক্ত দাঁতে বরফ কুচি কাপড়ে পেঁচিয়ে রাখা যেতে পারে, গরম পানি দিয়ে কুলকুচি দাঁতের ফাঁকে জমে থাকা খাদ্যকণা সরিয়ে ব্যথা কমাবে।

    • নিম এবং লবণ- নিমপাতা ফোটানো অল্প পরিমাণে উষ্ণ জলে লবণ যোগ করুন এবং এটি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন, এতে দাঁতের ব্যাথা থেকে আরাম দেবে।
    • সর্ষের তেল - যদি দাঁতে মারাত্মক ব্যথা সৃষ্টি করে, বেদনাদায়ক স্থানে সর্ষের তেলে হলুদ এবং লবণ মিশিয়ে লাগান। এটি দাঁতের ব্যাথা থেকে তাৎক্ষণিক পরিত্রাণ দেবে।
    • লবঙ্গ- আপনি যদি দাঁতের সমস্যায় ভোগেন তাহলে দাঁতের নীচে লবঙ্গচাপা অভ্যাস করুন। যখন ব্যথা হয় তখন তুলোয় লবঙ্গ তেল দিন এবং বেদনাদায়ক দাঁতের নীচে এটি রাখুন। কিছু লবঙ্গ এক গ্লাস জলে উষ্ণ করে, যখন জল এক চতুর্থাংশ থাকে তখন এই জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন, আপনার দাঁতের ব্যাথা নিরাময় হবে।
    • রসুন- দুটো কালো রসুন নিন এবং প্যান দিয়ে ঐগুলোকে চেপে যে দাঁতে ব্যথা হচ্ছে তাতে চাপুন। ২৪ গ্রাম লাউ, ছোলা গুড় করে উভয় ২০ গ্রাম করে এবং দুই গ্লাস জলে ভিজিয়ে নিন, যখন জল এক চতুর্থাংশ থাকে তা ফিল্টার করুন এবং এটি আপনাকে দাঁতের ব্যথা থেকে মুক্তি দেবে।


    দাঁত ব্যাথার ট্যাবলেট এর নাম 


    দাঁত ব্যাথার জন্য সবচেয়ে ভালো হয় কোনো ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করুন। আর নিচের দাঁত ব্যথার ট্যাবলেট সেবন করতে পারেন।

    • Fenamic 500 = ১৮ বছর হলে ১ টা করে দিনে  ২/৩ বা খাবার পর ৩ দিন। 
    • Fanamic 250 = ৫ থেকে ১০ বা ১৫ বছর হলে  ২/৩ বার ৩/৫ দিন। 
    • Napa One = ১৮ বছরের নিচে হলে অর্ধেক করে আর ১৮ বছরের উপরে হলে ১ টা করে ২/৩ বার ৩ দিন। বা প্রয়োজন মত।
     যদি উপরের ঐষদে না কমে তাহলে নিচের ঐষদ গুলো খেয়ে দেখতে পারেন।

    • Tab -Tory60  = ১ টা করে ২ বার খাওয়ার পরে।
    • Tab- Exilok 20 = ১ টা করে ২ বার (খাওয়ার আগে)।
    • Cap:- Moxacil500 = ১ টা করে ২ বার খাওয়ার পরে।
    • Tab: Amodis400 = ১ টা করে ২ বার খাওয়ার পরে।


    Note:- যাদের হার্ট কিডনি লিভার সমস্যা দয়া করে এইসব ঐষদ সেবন করবেন না। আর দাঁতে সমস্যা হলে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ঐষদ সেবন করিবেন।

    এন্টিবায়োটিক দাঁত দাঁতের ব্যথার ঔষধের নাম


     Tag:দাঁত ব্যথার ট্যাবলেট এর নাম,দাঁতের মাড়ি ব্যথা কমানোর ঔষধের নাম,দাঁতের ব্যথা কমানোর উপায় ওষুধ

                                   
    Previous Post Next Post

      আপনার নামের অর্থ জানতে ক্লিক করুন


    আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন