৫ম সপ্তাহের ষষ্ঠ শ্রেণির ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা এসাইনমেন্ট ২০২০ প্রশ্ন ও উত্তর দেখে নিন

আসছালামু  আলাইকুমষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী বন্ধুরা সবাই কেমন আছো বন্ধুরা তোমরা যারা ষষ্ঠ শ্রেণির ৫ম সপ্তাহের ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা এসাইনমেন্ট সমাধান খুজতেছো।তোমাদের জন্য আমরা ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা এসাইনমেন্ট সমাধান নিয়ে হাজির হয়েছি।

       
       

    ১.প্রশ্নঃ-সমাজে ন্যায় ও সুশাসন প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে আমরা ( রাঃ ) এর খিলাফত থেকে কী কী শিক্ষা লাভ করতে পারি ? তােমার পাঠ্য বইয়ের আলােকে বিশ্লেষণ কর । 

    উত্তরঃ-১।  পৃথিবীতে এমন অনেক মহৎ ব্যক্তির আবির্ভাব ঘটেছে যাদের জীবন চরিত্র অন্যের জন্য আদর্শ । এমনই এক জীবন আদর্শ হলাে হযরত উমর ( রাঃ ) । 

    তিনি ছিলেন মুসলিম জাহানের দ্বিতীয় খলিফা । ৫৮৩ খ্রিস্টাব্দে কুরাইশ বংশের আদি গােত্রে জন্মগ্রহণ করেন । তিনি । ইসলাম গ্রহণের পর তিনি ফারুক অর্থাৎ সত্য - মিথ্যার পার্থক্যকারী হিসেবে ভূষিত হন । সমাজে ন্যায়বিচার সুশাসন প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে হযরত উমর ( রাঃ ) কঠোর পরিশ্রম করেছেন । সুতরাং হযরত উমর ( রাঃ ) এর খিলাফত থেকে আমরা যে যে শিক্ষা লাভ করতে পারি : 

    ১. হযরত মুহাম্মদ ( সাঃ ) এর আদর্শ :সমাজে ন্যায় বিচার ও সুশাসন প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে হযরত উমর ( রাঃ ) তাঁর শাসন ব্যবস্থার হযরত মুহাম্মদ ( সাঃ ) এর আদর্শকে অনুসরন করতেন । 

    ২. ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা : হযরত উমর ( রাঃ ) ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় ছিলেন খুবিই কঠোর । মদ্যপানের অপরাধে তিনি নিজ পুত্র আবু শামাকে শাস্তির মধ্য দিয়ে প্রমাণ করেছিলেন আইনের দৃষ্টিতে সবাই সমান ।

    সমাজে ন্যায় ও সুশাসন প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে আমরা ( রাঃ ) এর খিলাফত থেকে কী কী শিক্ষা লাভ করতে পারি ? তােমার পাঠ্য বইয়ের আলােকে বিশ্লেষণ কর


    ৩. কোমলমতি হৃদয় : হযরত উমর ( রাঃ ) ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় যেমন কঠোর ছিলেন তেমনি তার হৃদয়ও ছিল কোমল । প্রজাদের অবস্থা দেখার জন্য তিনি রাতের আঁধারে তার রাজ্যে একাকী হাঁটতেন ।  

    8 . নির্মাতাঃহযরত উমর ( রাঃ ) শুধুমাত্র শাসক ছিলেন না বরং তিনি একজন নির্মাতাও ছিলেন । তিনি অসংখ্য মসজিদ , বিদ্যালয় , সড়ক , সেতু এবং হাসপাতাল নির্মাণ করেছিলেন । 

    ৫. কর্তব্যপরায়ণ : হযরত উমর ( রাঃ ) ছিলেন একজন কর্তব্যপরায়ণ শাসক । তিনি নিজ কাঁধে খাদ্যসামগ্রী বহন করে প্রজাদের মাঝে পৌছে দিতেন । 

    ৬. সাম্যবাদী : হযরত উমর ( রাঃ ) এর খিলাফতকালে তিনি বায়তুলমাল থেকে তার জন্য যতটুকু কাপড় বরাদ্দ ছিল ঠিক ততটুকুই তিনি নিতেন । ভৃত্যকে উটের পিঠে রেখে নিজে উটের রশি ধরে জেরুজালেম যাওয়ার মাধ্যমে তিনি সাম্যবাদের দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছিলেন । 

    এককথায় , হযরত উমর ( রাঃ ) এর সরলতা ও কর্তব্যজ্ঞান ছিল তার জীবন আদর্শ । তার খিলাফত থেকে আমাদের সকলেরই শিক্ষা নেওয়া উচিত ।

    সমাজে ন্যায় ও সুশাসন প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে আমরা ( রাঃ ) এর খিলাফত থেকে কী কী শিক্ষা লাভ করতে পারি ? তােমার পাঠ্য বইয়ের আলােকে বিশ্লেষণ কর


    ২.প্রশ্নঃ- প্রজাহিতৈষী হিসেবে একজন মহান শাসকের মূর্ত প্রতীক ছিলেন। খলিফা উমর ( রাঃ ) ” - ব্যাখ্যা কর। 

    উত্তরঃইসলামের দ্বিতীয় খলিফা উমর ( রাঃ ) একদিকে যেমন ছিলেন কঠোর অন্যদিকে ছিলেন কোমল হৃদয়ের অধিকারী । তিনি ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে কঠোর পরিশ্রম করেছিলেন । তিনি ছিলেন হযরত মুহাম্মদ ( সাঃ ) এর আদর্শে আদর্শিত এক মহাপুরুষ । প্রজাতিতৈষী হিসেবে তিনি ছিলেন একজন মূর্ত প্রতীক । অর্ধ পৃথিবী শাসন করা দ্বিতীয় খলিফা উমর ( রাঃ ) খুবই সহজ সরল ও অনাড়ম্বর জীবনযাপন করতেন । খেজুর পাতায় ছিল তার আসন এবং তার কোনাে দেহরক্ষী ছিল না । জাগতিক লােভ - লালসা জাঁকজমকে তিনি কখনােই আসক্ত হতেন না ।

    তারমধ্যে কঠোরতা ও কোমলতা উভয়ের সমন্বয় ঘটেছিল । শাসক হয়েও তিনি রাতের আঁধারে প্রজাদের অবস্থা দেখার জন্য বের হতেন । খাদ্য সামগ্রী নিজ কাঁধে বহন করে তা প্রজাদের মাঝে পৌছে দিতেন । তার শাসনামলে রাজ্যে কোন অভাব ছিল না । বায়তুলমাল থেকে প্রাপ্ত কাপড়ের সেই নির্দিষ্ট পরিমান পরিবার গ্রহণ করতাে যে পরিমাণ সকলের জন্য নির্ধারিত ছিল । কৃষি কাজে ব্যাপক উন্নতি সাধনের জন্য তিনি নিজ উদ্যোগে খাল খনন করেন । বিচারের মঞ্চে তিনি ছিলেন অত্যন্ত কঠোর আর এর প্রকাশ ঘটে যখন মদ্যপানের অপরাধে নিজ পুত্রকে তিনি শাস্তি দিয়েছিলেন । 

    জনকল্যানে তিনি অসংখ্য মসজিদ নির্মাণ । করেছিলেন এবং সেই সাথে সেতু , সড়ক , হাসপাতাল নির্মাণ করার মাধ্যমে তিনি প্রজাদের অসুবিধা গুলাে দূর করেছিলেন । এত বড় শাসক হয়েও তিনি কখনাে অহঙ্কার করতেন না আর এর প্রমাণ ঘটে জেরুজালেম যাওয়ার পথে যখন ভূত্রকে উটের পিঠে চড়িয়ে নিজে উটের রশি ধরে টেনেছিলেন . 

     উপরােক্ত আলােচনা থেকে আমরা বলতে পারি , প্রজাহিতৈষী হিসেবে একজন শাসকের মূর্ত প্রতীক ছিলেন খলিফা উমর ( রাঃ ) ।

    প্রজাহিতৈষী হিসেবে একজন মহান শাসকের মূর্ত প্রতীক ছিলেন | খলিফা উমর ( রাঃ ) ” - ব্যাখ্যা কর।


    Tag:৫ম সপ্তাহে  ষষ্ঠ শ্রেণির ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা এসাইনমেন্ট সমাধান পিডিএফ, সমাজে ন্যায় ও সুশাসন প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে আমরা ( রাঃ ) এর খিলাফত থেকে কী কী শিক্ষা লাভ করতে পারি ? তােমার পাঠ্য বইয়ের আলােকে বিশ্লেষণ কর, প্রজাহিতৈষী হিসেবে একজন মহান শাসকের মূর্ত প্রতীক ছিলেন। খলিফা উমর ( রাঃ ) ” - ব্যাখ্যা কর। 

    0/Post a Comment/Comments

    Previous Post Next Post