যানজট সমস্যা ও তার প্রতিকার রচনা - যানজট সমস্যা ও তার প্রতিকার | Janjot Somossa O tar Protikar Rochona

যানজট সমস্যা ও তার প্রতিকার রচনা - যানজট সমস্যা ও তার প্রতিকার,  Janjot Somossa O tar Protikar Rochona, যানজট সমস্যা ও তার প্রতিকারের উপায় / করণীয়, যানজট সমস্যা ও তার প্রতিকার অনুচ্ছেদ রচনা, রচনা - যানজট সমস্যা ও তার প্রতিকার

    যানজট সমস্যা ও তার প্রতিকার রচনা

    ভূমিকা : যানজট আমাদের জীবনে অভিশাপেরই নামান্তর । রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চল বিশেষ করে মহানগরীগুলােতে যানজট প্রতিদিনের ভােগান্তির আরেক নাম । যানজটের কারণে সাধারণ মানুষ সময়মতাে কর্মস্থলে যেতে পারছে না । ছাত্র ছাত্রীরা সময়মতাে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে উপস্থিত হতে পারছে না । অনেক সময় যানজটের কারণে অসুস্থ রােগীকে ঠিক সময়ে হাসপাতালে নেয়া সম্ভব হচ্ছে না ; ফলে রাস্তাতেই সে মৃত্যুবরণ করে । আবার যনজটে আটকে থেকে চালক তার মানসিক ধৈর্য হারিয়ে সুযােগ পাওয়া মাত্রই বিকল্প পথে অথবা ভিড়ের মধ্যেই দুত গাড়ি চালাচ্ছে ; ফলে প্রায় ক্ষেত্রেই দুর্ঘটনা ঘটছে । এভাবে যানজটের ফলে প্রতিদিনই বিভিন্ন ক্ষতির মুখােমুখি হচ্ছে মানুষ । যানজট তাদের মানসিক স্থিতি নষ্ট হয়ে নানা অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার জন্ম দিচ্ছে । 

    যানজটের স্বরূপ : সাধারণভাবে যানজট বলতে আমরা বুঝি রাস্তায় যানবাহনের স্থবিরতাকে । বিভিন্ন কারণে সড়ক বা মহাসড়কে যখন যানবাহন স্থবির হয়ে পড়ে তখন যানজটের সৃষ্টি হয় । এই স্থবিরতা মানুষের কারণে বা যান্ত্রিক কারণেও সংঘটিত হতে পারে । তবে দুটি কারণের পেছনেই প্রত্যক্ষ বা পরােক্ষভাবে মানুষের বিবেচনাবােধ দায়ী । তাছাড়া আমাদের দেশের সড়ক ও মহাসড়কগুলাের বেহাল দশার কারণেও যানজট সংঘটিত হয় । অনেকসময় প্রাকৃতিক দুর্যোগের ফলে সড়ক বা মহাসড়কে বিপত্তির সৃষ্টি হয়েও যানজট সৃষ্টি হয় । রাস্তায় কর্তব্যরত ব্যক্তিদের কর্তব্যে অবহেলা ও অদূরদর্শিতার ফলেও যানজট সৃষ্টি হয় । তাছাড়া গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গের চলাচলের আগে দ্রুত রাস্তা ফাকা করা হয় । এ কারণে তাড়াহুড়াে করতে গিয়েও যানজট সৃষ্টি হয় । 

    বহির্বিশ্বে যানজট : শিল্প ও টেকসই উন্নয়নের সঙ্গে সঙ্গে বিশ্বের প্রায় সব দেশেই তৈরি হয়েছে সড়ক মহাসড়ক । সেখানে প্রতিদিন প্রতিনিয়ত চলছে হাজার যানবাহন । তাই তারাও যানজট থেকে একবারে মুক্ত নয় । বিশেষ করে তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলােতে যানজট সমস্যা কিছুটা হলেও বর্তমান ; কিন্তু তা সহনীয় পর্যায়ে আছে । তবে আমেরিকা ও ইউরােপের দেশগুলােতে যানজট সমস্যা নেই বললেই চলে । তাদের রাস্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা অত্যন্ত আধুনিক ; সেকারণে তারা ওই ধরনের সমস্যা থেকে মুক্ত । যানজট যাতে না হয় সেকারণে তাদের অভিনব সব পরিকল্পনা রয়েছে । বিশ্বের অনেক দেশেই প্রাইভেট কার চালানাের নীতিমালা রয়েছে । জোড় ও বিজোড় রেজিস্ট্রেশনের গাড়ি সেখানে সপ্তাহের ভিন্ন ভিন্ন দিনে চালানাে হয় । মাত্র তিন দশক আগেও আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের মুম্বাই , দিল্লি ও কলকাতার মতাে মহানগরীতে ভয়াবহ যানজট ছিল । কিন্তু । তাদের অভিনব সব কৌশল ও অক্লান্ত পরিশ্রমে সেসব স্থানে যানজট প্রায় শূন্যের কোঠায় পৌছে গেছে ।


    বাংলাদেশে যানজটের প্রকৃতচিত্র : কয়েক দশক আগেও বাংলাদেশে যানজটের এমন ভয়াবহ চিত্র ছিল না । নগরায়ন ও যােগাযােগ ব্যবস্থার অভূতপূর্ব উন্নয়নের ফলে যানজট আজ জেঁকে বসেছে । তবে ভিন্ন চিত্র মফস্বল , থানা ও ছােট শহরগুলাের ; সেখানে যানজট নেই বললেই চলে । শুধু মেট্রোপলিটন ও বিভাগীয় শহরগুলােতে যানজটের আধিক্য লক্ষ করা যায় ; তন্মধ্যে ঢাকা শহরের যানজটই মুখ্য । প্রতিনিয়তই ঢাকা শহরে হাজার হাজার কর্মঘণ্টা নষ্ট হচ্ছে লন্ডনভিত্তিক ইকনােমিস্ট পত্রিকার জরিপ অনুসারে বিশ্বের ১৪০ টি নগরীর মধ্যে যানজটে ঢাকার অবস্থান ১৩৯ তম । সে কারণে সকাল ৯ টায় অফিসে পৌছার কথা থাকলেও মানুষ হয়ত পৌছচ্ছে তারও একঘণ্টা পর । তাছাড়া গ্রাম থেকে কাজের খোঁজে ঝাকে ঝাকে মানুষের শহরমুখী হওয়ার প্রবণতাও যানজটের অন্যতম কারণ ; অন্তত এ কারণেই ঢাকা শহরে ভয়াবহ যানজট সৃষ্টি হচ্ছে । 

    যানজটের প্রকৃত কারণ : যানজটের বহুবিধ কারণ রয়েছে । তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য কিছু কারণ হলাে : 
    ক . অপরিকল্পিত নগরায়ণ ; বাংলাদেশের সর্বত্র নগরায়ণের ছোঁয়া লেগেছে ; সর্বত্রই ব্যাঙের ছাতার মতাে গজিয়ে উঠছে দালানকোঠা । ঢাকা শহরকে দেখে আর সবুজ সুশ্রী বলে মনে হয় না । এই নগরায়ণের ধাক্কায় শহর থেকে মানুষ আস্তে আস্তে নগরমুখী হচ্ছে । ফলে মানুষের চাপ বাড়ছে শহরে । আর এ অতিরিক্ত মানুষের চাপ সামলানাের জন্য প্রতিনিয়ত বেড়ে চলছে গণপরিবহন যা রাস্তার ধারণ ক্ষমতার চেয়ে অনেক বেশি । এ কারণে সৃষ্টি হচ্ছে যানজট । তাছাড়া দালানকোঠা করতে রাস্তার যত্রতত্র ফেলে রাখা হচ্ছে নির্মাণসামগ্রী । তার ফলেও যানজট সৃষ্টি হচ্ছে । 
    খ , রাস্তা মেরামতের কাজ ও ফুটপাতের অপব্যবহার : রাজধানী ঢাকাসহ দেশের অনেক স্থানেই সারাবছর রাস্তা মেরামতের কাজ করা হয় । ফলে রাস্তার দৈর্ঘ্য ও প্রস্থ কমে যাওয়ায় বা তা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় যানজটের সৃষ্টি হয় । এছাড়া একশ্রেণির ব্যবসায়ী ফুটপাত দখল করে তাদের পণ্যের পসরা সাজায় । তাতে পথচারী চলাচল বিঘ্নিত হয় এবং তারা মহাসড়কে নেমে আসে ; ফলে যানজট সৃষ্টি হয় । 
    গ . চালকের অদক্ষতা ও বড় রাস্তায় ছােট যানবাহনের উপস্থিতি : আমাদের দেশের বেশিরভাগ চালকই অদক্ষ । তাদের অদক্ষতার কারণে রাস্তায় প্রতিনিয়ত নানা দুর্ঘটনা ঘটে এবং যানজটের সৃষ্টি হয় । এছাড়া কমগতি সম্পন্ন ছােট যানবাহন মহাসড়কে ঢুকে পড়লেও যানজটের সৃষ্টি হয় । 
    ঘ , ট্রাফিক ব্যবস্থার অব্যবস্থাপনা ও অপ্রতুল রাস্তা : রাজধানী ঢাকাতেই ট্রাফিক ব্যবস্থাপনার অদক্ষতার কারণে প্রতিদিন অবর্ণনীয় যানজট সৃষ্টি হচ্ছে । বিশেষ করে ঈদের সময় ঢাকায় ঢুকতে ও বেরােতে সীমাহীন যানজটের সম্মুখীন হয় সাধারণ যাত্রীরা । এসময় ট্রাফিক ব্যবস্থা যেমন ভেঙে পড়ে তেমনি রাস্তার অপ্রতুলতাও যানজটের সৃষ্টি করে । 
    ঙ , জনসাধারণের উদাসীনতা : আমাদের দেশের মানুষ রাস্তায় চলাচলের নিয়ম জানে না বললেই চলে । তাই ফুটপাত , ওভার ব্রিজ বা জেব্রাক্রসিং কীভাবে ব্যবহার করতে হয় সে জ্ঞান তাদের নেই । তাই গতিশীল রাস্তায় তারা নেমে যানবাহন চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি করে এবং সেখান থেকে যানজটের সৃষ্টি হয় । 
    চ . আইন প্রয়ােগে শিথিলতা : রাস্তায় আইন প্রয়ােগের শিথিলতাও যানজটের জন্য দায়ী । আইনের যথাযথ আবার আইন জেনেও তা লক্ষ্মন করছে ; সে কারণেও রাস্তায় নৈরাজ্যকর অবস্থার সৃষ্টি হচ্ছে এবং যানজট তৈরি হচ্ছে । প্রয়ােগ নিশ্চিত না হওয়ার কারণে রাস্তায় যারা অনিয়ম করছে তারা সহজেই পার পেয়ে যাচ্ছে অনেকে । 


    যানজট প্রতিকারের উপায় : যেভাবে আমাদের দেশের মহানগরগুলােতে যানজট বাড়ছে তাতে কিছুদিন পর রাস্তায় । বেরােনােই মুস্কিল হয়ে পড়বে । ঢাকা শহরের রাস্তায় বেরােলে প্রাইভেট কারের ছড়াছড়ি লক্ষ করা যায় । এক পরিসংখ্যানে দেখা গেছে ঢাকার রাস্তায় যে গাড়ি চলে তার ৮০ ভাগই প্রাইভেট কার । এক পরিসংখ্যানে দেখা । যায় গত দশ বছরে ঢাকা শহরে প্রায় আড়াই লক্ষ নতুন প্রাইভেট কার নেমেছে । এর ফলে সৃষ্ট যানজটে বছরে । প্রায় ২০ হাজার কোটি টাকার ক্ষতি হচ্ছে এবং নষ্ট হচ্ছে ৩২ লক্ষ কর্মঘণ্টা । এই অবস্থা আস্তে আস্তে ছড়িয়ে । যাসে সমস্ত দেশে । তাই সর্বোচ্চ গুরুত্বের ভিত্তিতে যানজট প্রতিকারে আমাদের করণীয় হলাে :
    ১ . যানজট নিরসনে দীর্ঘমেয়াদি কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন ও সে অনুযায়ী কর্মপদ্ধতি গ্রহণ । 
    ২ . প্রাইভেট কারের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণ ও নতুন গাড়ির জন্য কঠোর শর্ত আরােপ ; সে সঙ্গে মানসম্মত গণপরিবহণ নিশ্চিত করা । 
    ৩. অবৈধ দখলদারদের কাছ থেকে ফুটপাত দখলমুক্ত করা । 
    ৪ . রাস্তার সংখ্যা বাড়ানাে ও প্রয়ােজনীয় সংখ্যক ফ্লাইওভার তৈরি করা । 
    ৫ . রেলক্রসিংগুলােতে ওভার ব্রিজ তৈরি করা । 
    ৬ . সকল গাড়ি চালককে ট্রাফিক আইন মানতে বাধ্য করা ও আইনভঙ্গকারীদের শাস্তির ব্যবস্থা করা । 
    ৭. ক্ষতিগ্রস্ত ফুটপাত ও রাস্তাগুলােকে দ্রুত মেরামত করা । 
    ৮ . রিকশার জন্য আলাদা লেন তৈরি করা ও যানজটপ্রবণ এলাকাগুলােতে একমুখী সড়ক স্থাপন করা । 
    ৯. ফিটনেসবিহীন যানবাহন ও লাইসেন্সবিহীন চালকদের ব্যাপারে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা । 
    ১০.  ট্রাফিক ব্যবস্থা আধুনিক করা এবং সর্বক্ষেত্রে রাস্তায় যানবাহন চলাচলের বিষয়টি মনিটরিং করা । উল্লিখিত পদক্ষেপগুলাে গ্রহণের মাধ্যমে যানজট থেকে অনেকাংশেই পরিত্রাণ পাওয়া সম্ভব । 


    উপসংহার : যানজট সমস্যা ঢাকাসহ প্রায় সমস্ত দেশেই ভয়াবহরূপ ধারণ করেছে । যানজটের কারণে জরুরি সেবার ( অ্যাম্বুলেন্স , ফায়ার বিগ্রেড ইত্যাদি ) গাড়িগুলাে পর্যন্ত সেবা নিশ্চিত করতে পারছে না । ফলে নানারকম দুর্ঘটনার সৃষ্টি হচ্ছে । এসব কারণে সামাজিক ও অর্থনৈতিক জীবনে নানা সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে ; যা আমাদের দেশের বাস্তবিক প্রেক্ষাপটের জন্য হুমকিস্বরূপ । এ কারণে ভয়াবহ যানজট থেকে জীবন , সময় ও সম্পদ রক্ষা করা জরুরি হয়ে পড়েছে ।

    যানজট সমস্যা ও তার প্রতিকারে উপায়

    Janjot Somossa O tar Protikar Rochona


    Tag: যানজট সমস্যা ও তার প্রতিকার রচনা - যানজট সমস্যা ও তার প্রতিকার,  Janjot Somossa O tar Protikar Rochona, যানজট সমস্যা ও তার প্রতিকারের উপায় / করণীয়, যানজট সমস্যা ও তার প্রতিকার অনুচ্ছেদ রচনা, রচনা - যানজট সমস্যা ও তার প্রতিকার
    Previous Post Next Post

    👇 সকল ক্লাসের এসাইনমেন্ট নোটিফিকেশন আকারে সহজে পেতে ডাউনলোড করুন আমাদের এপ্লিকেশন 

    আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন