বাসর রাতের নামাজের নিয়ত -বাসর রাতের দোয়া,আমল ও নামাজের নিয়মকানুন

বাসর রাতের নামাজের নিয়ত -বাসর রাতের দোয়া,আমল ও নামাজের নিয়মকানুন

       
       
            

    বাসর রাতের নামাজের নিয়ত -বাসর রাতের দোয়া,আমল ও নামাজের নিয়মকানুন

    আসছালামু আলাইকুম প্রিয় পাঠক সবাই কেমন আছেন? আসা করি সবাই ভালো আছেন। বন্ধুরা আজকে আমরা এই পোস্টে বাসর রাতের নামাজের নিয়ত -বাসর রাতের দোয়া,আমল ও নামাজের নিয়মকানুন এইসব নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

    বাসর রাত : বাসর রাত হলো সবার জীবনের স্বপ্নের একটি রাত। পুরুষ যেমন বিয়ের আগে এই রাতের অপেক্ষায় থাকে নারীরা ও তেমন। আমাদের মুসলানদের জন্য এই রাতে অনেক নিয়মকানুন রয়েছে। এই রাতের অনেক আমল ও নামাজ রয়েছে। আমরা এই গুলো জানার চেষ্টা করবো। আসুন তাহলে শুরু করি ।

    প্রথমে আমরা জেনে নেই এই পোস্টে বাসর রাতের কি কি বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো।

    • বাসর রাতের নামাজের নিয়ত
    • বাসর রাতের দোয়া
    • বাসর ঘরের দোয়া
    • সহবাসের দোয়া
    • রাতের আমল
    • বাসর রাতের আদর্শ
    • বাসর রাতের আদব

    বাসর রাতের নামাজের নিয়ত | বাসর রাতের নামাজ নিয়ম

    বন্ধুরা এখন আমরা দেখবো বাসর রাতের নামাজের নিয়ম ও নিয়ত তারপর আমরা অন্যান্য বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো। বাসর রাতে স্বামী স্ত্রী প্রথম সাক্ষাতে দুই রাত নামাজ পড়া মুস্তাহাব। এই নামাজের বিশেষ কোন নিয়ম নেই স্বাভাবিক নফল নামাজের মত নিয়ত করে দুই রাকাত নামাজ আদায় করে নিবেন। তাই আসা করি নফল নামাজ কিভাবে পড়বেন আর বলতে হবে না এটা আপনারা সবাই পারেন। তাই আমরা নফল নামাজের পর যে দোয়া পড়তে হয় সেটা দেখবো। 

    বাসর রাতের দোয়া | বাসর ঘরের দোয়া

    আব্দুল্লাহ ইবনু মাসঊদ (রাঃ) বলেন, স্ত্রী স্বামীর কাছে গেলে স্বামী দাঁড়িয়ে যাবে এবং স্ত্রী তার পিছনে দাঁড়াবে। অতঃপর তারা একসঙ্গে দুই রাক‘আত সালাত আদায় করবে এবং বলবে:
    اَللّهُمَّ بَارِكْ لِىْ فِىْ أَهْلِىْ وَبَارِكْ لَهُمْ فِىَّ، اَللّهُمَّ اجْمَعْ بَيْنَنَا مَا جَمَعْتَ بِخَيْرٍ و فَرِّقْ بَيْنَنَا إِذَا فَرَّقْتَ إِلَى خَيْرٍ
    উচ্চারণ: উচ্চারণ: আল্লাহুম্মা বা-রিকলী ফী আহলী, ওয়া বা-রিক লাহুম ফিইয়্যা, আল্লাহুম্মাজমা’ বাইনানা মা জামা’তা বিখাইর, ওয়া ফাররিক বাইনানা ইযা ফাররাকতা ইলা খাইর।
    অর্থ: “হে আল্লাহ! আপনি আমার জন্য আমার পরিবারে বরকত দিন এবং আমার ভিতরেও বরকত দিন পরিবারের জন্য। হে আল্লাহ! আপনি তাদের থেকে আমাকে রিযিক দিন আর আমার থেকে তাদেরকেও রিযিক দিন। হে আল্লাহ! আপনি আমাদের যতদিন একত্রে রাখেন কল্যাণেই একত্রে রাখুন। আর আমাদের মাঝে বিচ্ছেদ ঘটিয়ে দিলে কল্যাণের পথেই বিচ্ছেদ ঘটান।” (তাবারানী, মু‘জামুল কাবীর, হা/৮৯০০; মাজমাউয যাওয়ায়েদ হা/৭৫৪৭; সিলসিলাতুল আছার আছ-ছহীহাহ হা/৩৬১; আদাবুয যিফাফ, পৃঃ ২৪।)

    হাদীসের ভাষা থেকে বুঝা যায়, বাসর রাতে স্বামী-স্ত্রী দু জনে দু রাকআত নফল সালাত আদায় করার পর স্বামী এ দুআটি পাঠ করবে।

    বাসর রাতে স্ত্রীর কপালে হাত রেখে নিম্নোক্ত দোয়াটি পাঠ করা সুন্নত:

    اللَّهُمَّ إِنِّي أَسْأَلُكَ خَيْرَهَا وَخَيْرَ مَا جَبَلْتَهَا عَلَيْهِ وَأَعُوذُ بِكَ مِنْ شَرِّهَا وَمِنْ شَرِّ مَا جَبَلْتَهَا عَلَيْهِ
    উচ্চারণ: আল্লা-হুম্মা ইন্নি আসআলুকা খাইরাহা ওয়া খাইরা মা জাবালতাহা ‘আলাইহি, ওয়া আ‘ঊযু বিকা মিন শাররিহা ওয়া শাররি মা জাবালতাহা ‘আলাইহি।
    অর্থ: “হে আল্লাহ! আমি আপনার কাছে এর মধ্যকার কল্যাণ এবং এর মাধ্যমে কল্যাণ চাই এবং তার মধ্যে নিহিত অকল্যাণ ও তার মাধ্যমে অকল্যাণ থেকে আপনার নিকট আশ্রয় চাই।” (সুনানে আবু দাউদ, অধ্যায়: বিবাহ, অনুচ্ছেদ: বিবাহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিধান, হা/ ২১৬০, সনদ: হাসান)
    বাসর রাতে স্বামী-স্ত্রীর জন্য আলাদা কোন দুআ হাদীসে বর্ণিত হয় নি। তবে তারা নিজেরা নিজের দাম্পত্য জীবনের কল্যাণ ও বরকত কামনা মহান রবের দরবারে দুআ করতে পারে। দুজনে এক সাথে হাত উঠিয়েও করতে পারে আবার নিজে নিজে আলাদাভাবেও করতে পারে ইনশাআল্লাহ। তবে এটি সুন্নাহ-এমনটি ভাবা যাবে না বরং দুআ করার বিষয়টি যেহেতু উন্মুক্ত সে হিসেবে তারা তাদের প্রয়োজন তুলে ধরে দুআ করতে পারে।

    সহবাস করার দোয়া আরবি | সহবাস করারা দোয়া

    বন্ধুরা হাদিসের আলোকে উভয়ে নিম্নোক্ত দোয়াটি সহবাসের পূর্বে পড়া সুন্নত। 

    ” ﺑِﺴْﻢِ ﺍﻟﻠَّﻪِ ، ﺍﻟﻠَّﻬُﻢَّ ﺟَﻨِّﺒْﻨَﺎ ﺍﻟﺸَّﻴْﻄَﺎﻥَ ، ﻭَﺟَﻨِّﺐْ ﺍﻟﺸَّﻴْﻄَﺎﻥَ ﻣَﺎ ﺭَﺯَﻗْﺘَﻨَﺎ ”

    উচ্চারণ: বিসমিল্লাহ্‌। আল্লাহুম্মা জান্নিবনাশ শায়তান ও জান্নিবিশ শায়তানা মা রাযাক্বতানা।

    অর্থ: আল্লাহর নামে শুরু করছি। হে আল্লাহ, আমাদেরকে শয়তান হতে বাঁচান এবং আমাদেরকে যদি কোন সন্তান দেন তাকেও শয়তান হতে বাঁচান। [বুখারী হা/ ৬৩৮৮ ও মুসলিম হা/ ১৪৩৪)]

    শয়তানের ভিবিন্ন উসওসা থেকে বাচাঁর জন্য এই দোয়াটি পড়া সুন্নত। স্বামী স্ত্রী দুভয়ের জন্য এই দোয়াটি পড়া সুন্নত।

    বাসর রাতের আমল 

    বন্ধুরা উপরে উল্লেখিত বিষয়গুলো হলো বাসর রাতের আমল এ ছাড়া আর কোন বাসর রাতের আমল হাদিসে পাওয়া যায় নাই। এই গুলো পর সম্ভব হলে নিম্নোক্ত বিষয়গুলোকে করার চেষ্টা করবে।

    • একে অপরকে দুধ অথবা মিষ্টি জাতীয় খাবার খাওয়াবে।
    • কে অপরের সঙ্গে ভালোবাসাপূর্ণ কথাবার্তা বিনিময় করবে।
    • পরস্পরের সঙ্গে পরিচিত হবে।
    • উভয়ের মনের ভয়-ভীতি, সংকোচ, হতাশ কিংবা বিষন্নতা দূর করবে।
    • আন্তরিকতা ও ভালোবাসাপূর্ণ পরিবেশ সৃষ্টি করবে।

    সহবাসের দোয়া | স্ত্রী সহবাসের দোয়া বাংলা ও আরবি

    সহবাসের সময় শয়তানের আক্রমণ থেকে বাঁচার জন্য যে দোয়াটি স্বামী স্ত্রী উভয়ে পড়বেন নিম্নোক্ত দোয়াটি পড়া সুন্নত :-ﺑِﺴْﻢِ ﺍﻟﻠَّﻪِ ، ﺍﻟﻠَّﻬُﻢَّ ﺟَﻨِّﺒْﻨَﺎ ﺍﻟﺸَّﻴْﻄَﺎﻥَ ، ﻭَﺟَﻨِّﺐْ ﺍﻟﺸَّﻴْﻄَﺎﻥَ ﻣَﺎ ﺭَﺯَﻗْﺘَﻨَﺎ

    উচ্চারণ : বিসমিল্লাহি আল্লাহুম্মা জান্নিবনাশ শায়তানা ওয়া জান্নিবিশ শায়তানা মা রাযাক্বতানা।’ (বুখারি, মুসলিম)

    অর্থ : আল্লাহর নামে শুরু করছি, হে আল্লাহ! আমাদের উভয়কে শয়তানের হাত (কুনজর-আক্রমণ) থেকে রক্ষা করুন। আমাদের (এ মিলনে) যদি কোনো সন্তান দান করেন তাকেও শয়তানের হাত (কুনজর-আক্রমণ) থেকে রক্ষা করুন।’

    বাসর রাতের আদব | বাসর রাতের আদর্শ

    প্রিয় পাঠক বাসর রাতে আদব/বাসর রাতেত আদর্শ নিয়ে আমাদের ওয়েবসাইটে একটি বই পিডিএফ দেওয়া আছে আপনি বইটি ডাউনলোড করলে আরো অনেক বিষয় জানতে পারবেন নিজে লিংক দেওয়া হলো। 

    আরো দেখুনঃ-

    আল্লাহ তায়ালা সকল নতুন দম্পত্তিতের জীবন সুন্দর ও সুখময় করুন আমিন।

    Tag:বাসর রাতের নামাজের নিয়ত,  বাসর রাতের নামাজ নিয়ম,বাসর রাতের দোয়া, বাসর ঘরের দোয়া,সহবাস করার দোয়া আরবি, সহবাস করারা দোয়া,বাসর রাতের আমল,বাসর রাতের আদব, বাসর আদর্শ

    0/Post a Comment/Comments

    Previous Post Next Post