টেনশন দূর করার ঔষধের নাম | অতিরিক্ত চিন্তা দূর করার উপায় | মানসিক চিন্তা দূর করার দোয়া

টেনশন দূর করার ঔষধের নাম | অতিরিক্ত চিন্তা দূর করার উপায় | মানসিক চিন্তা দূর করার দোয়া


আসসালামু আলাইকুম প্রিয় পাঠকবৃন্দ বন্ধুরা আপনাদের সবাইকে Educationblog24.Com এর পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও স্বাগতম। আশা করি আল্লাহর অশেষ রহমতে আপনারা অনেক ভালো আছেন। 

প্রিয় পাঠকবৃন্দ বন্ধুরা আমাদের আজকের এই পোস্ট দ্বারা আপনারা জানতে পারবেন টেনশন দূর করার এর ঔষধ/উপায় ও দোয়া সম্পর্কে বিস্তারিত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। আশা করি মানসিক চিন্তা দূর করার ওষুধ ও উপায়/দোয়া এবং অন্যান্য তথ্য জেনে আপনাদের উপকার আসবে। 

মানসিক চিন্তা বা টেনশন মারাত্মক একটা খারাপ অভ্যাস। কিছু মানুষ আছে চিন্তা করতে করতে গভীর ভাবনায় চলে যায়, অতিরিক্ত প্রতিনিয়ত মানসিক চাপের ক্ষেত্রে মস্তিষ্কের চাপ পড়ে ফলে ব্রেন স্টোক, উচ্চরক্তচাপ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তারপরও শরীর মন ভালো থাকে না, খিটমিটে মেজাজ হয়ে যায়। চিন্তা থেকে দূরে থাকার চেষ্টা করুন। 

আপনারা অনেকেই অনেক রকম ভাবে ইন্টারনেটের মাধ্যমে খোঁজাখুজি করছেন চিন্তার দূর করার উপায়, বা টেনশন দূর করার ঔষধ ও দোয়া সম্পর্কে বিস্তারিত গুরুত্বপূর্ণ সব তথ্য জানতে চান। 

তাই শুধুমাত্র আপনাদের সুবিধার জন্য আজকে আপনাদের মাঝে এই পোস্টের মাধ্যমে শেয়ার করবো টেনশন দূর করার ঔষধের নাম, অতিরিক্ত চিন্তা দূর করার উপায়, মানসিক চিন্তা দূর করার দোয়া সম্পর্কে বিস্তারিত গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা। আশা করি আমাদের পোস্টে দেওয়া এই টেনশন দূর করার উপায়/ঔষধ গুলো সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেয়ে আপনাদের অনেক উপকার হবে। 


    টেনশন দূর করার ঔষধের নাম  

    টেনশন দূর করার বা মানসিক শান্তির আনার ওষুধ। নিম্নে ঔষধগুলো আপনারা ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া কোন ভাবেই সেবন করিবেন না। অভিজ্ঞ ডাক্তার দ্বারা পরামর্শ নিয়ে সেবন করবেন।

    ★Combiflam

    ★Ibugesic Plus

    ★Brufen MR

    ★Tizapam

    ★Lumbril

    ★Endache

    ★Fenlong

    বিঃদ্রঃ ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া কোন ধরনের ঔষধ সেবন করবেন না। 

    অতিরিক্ত চিন্তা দূর করার উপায়  

    অতিরিক্ত চিন্তা দূর করার কিছু উপায় —

    ★নিয়মিত শারীরিক ক্রিয়াকলাপ করে মেজাজ উন্নত করতে এবং পেশী উত্তেজনা কমাতে পরামর্শ দেওয়া হয়।

    ★অ্যালকোহল ব্যবহার ব্যাধির মত, ভাং বা গাঁজা ব্যবহারের ব্যাধি, আফিম ব্যবহারের ব্যাধি এবং তামাক ব্যবহারের ব্যাধির আসক্তিগ্রস্থ অবস্থার জন্য থেরাপি। 

    ★দুশ্চিন্তাকে মাথা থেকে দূরে রাখতে হলে নিজেকে ব্যস্ত রাখুন। আপনার মস্তিষ্ক এবং হাত ব্যস্ত থাকে এমন কোন কাজ করুন যেমন গেম খেলুন বা কোন হস্তশিল্প তৈরি করুন। বলা হয়ে থাকে, “অলস মস্তিষ্ক শয়তানের কারখানা।” এটি কিন্তু বাস্তবিকই সত্য। আপনি কোনো কাজ না করে অলসভাবে শুয়ে বসে থাকলে হতাশা আর দুশ্চিন্তা আপনাকে ঘিরে ধরবে- এটাই স্বাভাবিক।

    ★কারও সাথে যদি আপনার দুশ্চিন্তার বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করেন তাহলে দেখা যাবে যে আপনার মন অনেক হালকাবোধ হবে। অন্যের পরামর্শ সমালোচনায় আমরা দুশ্চিন্তা বিষয়গুলোর সমাধান পেতেও পারেন॥

    ★দুশ্চিন্তাগ্রস্ত মানুষ সাধারণত বিশ্রাম নিতে পারেন না। কেননা তাদের টেনশনে ঘুমই আসে না, এমনকি শুয়ে থেকেও ছটফট করেন। এমতাবস্থায় মনটাকে কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এনে বিশ্রাম নিতে পারেন। মনোযোগ রেখে বিশ্রাম নিলে এটি মানসিকভাবে কিছুটা প্রশান্তি এনে দেবে॥

    ★যেকোনো ধরনের সৃজনশীলমূলক কাজ করলে দুশ্চিন্তা থেকে দূরে থাকা যায়। 

    ★মানুষের সাথে মিশে মনের ভাব প্রকাশ করা। একা নিরুবিলি না থাকা। যতটা সম্ভব মনকে আনন্দে রাখুন নিজে আনন্দে থাকার চেষ্টা করুন। 

    ★নিজেকে সবসময় বাস্তববাদী হতে হবে। যেকোনো আবেগকে ঠাই দেওয়া যাবে না। যা কিছু হয় না কেন খুব সহজ ভাবেই মেনে নিতে হবে। 

    ★ঘুম’ থেকে ভালো Stress Looser আর কিছু হতে পারে না। তাই যখন কোনোও কিছুই আর ভালো লাগবে না বা মনে হবে কোনো কিছুতেই মন দিতে পারছেন না, তখন একটু নিরিবিলি জায়গা দেখে পাওয়ার ন্যাপ নিয়ে নিন। দুশ্চিন্তা কেটে যাবে!


    মানসিক চিন্তা দূর করার দোয়া

    বিপদ-আপদ, চাপ কিংবা না পাওয়ার বেদনা যত বেশিই হোক না কেন কোনো অবস্থায়ই হতাশ হওয়া ঈমানদারের কাজ নয়। বরং সর্বাবস্থায় মহান আল্লাহর ওপর আস্থা রাখাই সুস্থ থাকার উপায় এবং বুদ্ধিমানের কাজ।

    হতাশা কিংবা মানসিক চাপ বেড়ে গেলে যে আমলগুলো করা জরুরি তাহলো-> কুরআন তেলাওয়াত করাহতাশা ও মানসিক চাপ কমাতে কুরআন তেলাওয়াতের বিকল্প নেই। মহান আল্লাহর মধুর বাণী কুরআন তেলাওয়াত মানুষের মনকে প্রফুল্ল করে তোলে। কেননা কুরআন তেলাওয়াত মানুষের অন্তরের প্রফুল্লতার অন্যতম উৎস। কুরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমেই মানুষ মনের প্রফুল্লতা ও মানসিক প্রশান্তি পেয়ে থাকে। দুঃশ্চিন্তা ও হতাশা থেকে মুক্ত থাকে।

    রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম চিন্তা ও পেরেশানির সময় এ বিশেষ দোয়াটি বেশি বেশি পড়তেন। তাহলো-اللَّهُمَّ إِنِّي أَعُوذُ بِكَ مِنَ الْهَمِّ وَالْحَزَنِ، وَالْعَجْزِ وَ أَعُوذُ بِكَ مِنَ الْبُخْلِ وَالْجُبْنِ، وَ أَعُوذُ بِكَ مِنَ ضَلَعِ الدَّيْنِ، وَغَلَبَةِ الرِّجَالِ

    উচ্চারণ : ‘আল্লাহুম্মা ইন্নি আউযু বিকা মিনাল হাম্মি ওয়াল হাযানি, ওয়া আউযু বিকা মিনাল বুখলি ওয়াল জুবনি, ওয়া আউযু বিকা মিন দ্বালা’য়িদ্দাইনি ওয়া গালাবাতির রিজাল।’ (বুখারি, মুসলিম, মিশকাত)

    অর্থ : হে আল্লাহ! নিশ্চয়ই আমি দুশ্চিন্তা ও দুঃখ থেকে আপনার আশ্রয় চাই, অপারগতা ও অলসতা থেকে আপনার আশ্রয় চাই, কৃপনতা ও ভীরুতা থেকে আপনার আশ্রয় চাই আর ঋণের ভার ও মানুষদের দমন-পীড়ন থেকেও আপনার আশ্রয় চাই।

    হজরত আনাস রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যখন কোনো দুঃখ-কষ্ট বা চিন্তা, অস্থিরতা তথা হতাশাগ্রস্ত হতেন তখন বলতেন-يَا حَيُّ يَا قَيُّوْمُ بِرَحْمَتِكَ أَسْتَغِيْثُ

    উচ্চারণ : ইয়া- হাইয়ু ইয়া- ক্বাইয়ূ-মু বিরাহমাতিকা আস্তাগিছ।

    অর্থ : ‘হে চিরঞ্জীব! হে চিরস্থায়ী! আপনার রহমতের মাধ্যমে আপনার নিকটে সাহায্য চাই।’ (তিরমিজি, মুসতাদরেকে হাকেম, মিশকাত)



    Tag: টেনশন দূর করার ঔষধের নাম, অতিরিক্ত চিন্তা দূর করার উপায়, মানসিক চিন্তা দূর করার দোয়া

                                   
    Previous Post Next Post
    আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন  

     

    আপনার নামের অর্থ জানতে ক্লিক করুন