ঈদুল আযহা নামাজের নিয়ম,নিয়ত আরবি বাংলা | ঈদের নামাজের নিয়ম ও তাকবীর | কোরবানির ঈদের নামাজের নিয়ম

ঈদুল আযহা নামাজের নিয়ম,নিয়ত আরবি বাংলা | ঈদের নামাজের নিয়ম ও তাকবীর  | কোরবানির ঈদের নামাজের নিয়ম


আসছালামু আলাইকুম প্রিয় দ্বীনি ভাই ও বোনেরা সবাই কেমন আছেন। আসা করি সবাই আল্লাহর রহমতে ভালো আছেন। প্রিয় পাঠক পাঠিকা আজকে আমরা তোমাদের এই পোস্টে  ঈদুল আযহা নামাজের নিয়ম,নিয়ত আরবি বাংলা | ঈদের নামাজের নিয়ম ও তাকবীর  - কোরবানির ঈদের নামাজের নিয়ম শেয়ার করবো। আসা করি তোমরা যারা ঈদুল আযহার নামাজের নিয়মকানুন জানতে আগ্রহী এই পোস্ট তোমাদের জন্য উপকারে আসবে।

   
       

    ঈদের নামাজের নিয়ম 

    বন্ধুরা ঈদের নামাজ আমরা বছরে দুই বার পড়তে হয়। তাই অনেকে ঈদের নামাজের নিয়ম কানুন ভূলে যান। অনেকে আছেন যারা ঈদের নামাজে কয় তাকবির,কখন হাত বাধঁতে হয় কখন ছারতে হয় এটা নিয়ে ও কনফিউজড থাকেন। অনেকে তো আবার ডান বা বাম পাশের লোক কি রকম করতেছে এটা দেখে সেই রকম পড়ার চেষ্টা করেন। তাই আজকে আমরা তোমাদের জন্য ঈদের নামাজের বিস্তারিত নিয়মকানুন নিচে শেয়ার করা হলো।

    ঈদুল আযহা নামাজের নিয়ম,নিয়ত আরবি বাংলা 

    বন্ধুরা নিচে আমরা তোমাদের ঈদুল আযহার নামাজের নিয়ম ও নিয়ত আরবি বাংলা উচ্চারণ সহ শেয়ার করতেছি।

    ঈদুল আযহা নামাজের নিয়ম

    কোরবানির ঈদের নামাজের নিয়ম

    আমি ঈদুল আজহার দুই রাকাআত ওয়াজিব নামাজ ছয় তাকবিরের সহিত এই ইমামের পেছনে কিবলামুখী হয়ে আল্লাহর ওয়াস্তে আদায় করছি, এ নিয়ত মনে মনে স্থির করা বা মুখে বলা। এরপর তাকবিরে তাহরিমা ‘আল্লাহু আকবার’ বলে হাত বাঁধা এবং ছানা পাঠ করা।

    ছানা পাঠ করার পর ইমাম অতিরিক্ত ৩টি তাকবির দেবেন। এই তিন তাকবিরের সময় ইমাম ও মুক্তাদি উভয়হাত কান পর্যন্ত উঠাবেন এবং প্রথম ও দ্বিতীয় তাকবিরে হাত কান পর্যন্ত উঠানোর পর নিচে ছেড়ে দেবেন। তৃতীয় তাকবিরের সময় কাঁধ পর্যন্ত হাত উঠিয়ে হাত ছেড়ে না দিয়ে হাত বাঁধবেন। এরপর ইমাম সূরা ফাতিহা ও কিরাআত শেষ করে যথারীতি রুকু ও সিজদা করার মাধ্যমে প্রথম রাকাআত শেষ করে পুনরায় দাঁড়িয়ে দ্বিতীয় রাকাআতের কিরাত শেষ করবেন।

    এরপর রুকুতে যাবার আগে আবার অতিরিক্ত ৩ তাকবির দেবেন এভাবে যে, কান পর্যন্ত হাত উঠিয়ে তাকবির বলে হাত ছেড়ে দেবেন। এরপর চতুর্থ তাকবির তথা রুকুর তাকবির বলে সোজা রুকুতে চলে যাবেন। এরপর অবশিষ্ট নামাজ যথারীতি আদায় করে ছালাম ফিরাবেন। এরপর ইমাম সাহেব মিম্বরে ওঠে দুটি খুৎবাহ পাঠ করবেন।


    বন্ধুরা নিচে ঈদুল আযহার নামাজের নিয়ত আরবি বাংলায় শেয়ার করা হলোঃ-

     ঈদুল আযহার নামাজের নিয়ত আরবী 

    ঈদের নামাজের নিয়ত

     نَوَيْتُ أنْ أصَلِّي للهِ تَعَالىَ رَكْعَتَيْنِ صَلَاةِ الْعِيْدِ الْفِطْرِ مَعَ سِتِّ التَكْبِيْرَاتِ وَاجِبُ اللهِ تَعَالَى اِقْتَضَيْتُ بِهَذَا الْاِمَامِ مُتَوَجِّهًا اِلَى جِهَةِ الْكَعْبَةِ الشَّرِيْفَةِ اللهُ اَكْبَرْ

    উচ্চারণঃ নাওয়াইতু আন উসাল্লিয়া লিল্লাহে তায়ালা রাকায়াতাই সালাতে ঈদুল আযহা মাআ সিত্তাতে তাকবীরাতি অয়াজিবুল্লাহে তায়ালা ইক্‌তাদাইতু বি-হাযাল্‌ ইমামে মোতাওয়াজ্জিহান ইলা জিহাতিল কাবাতিশ শরিফাতে আল্লাহু আকবর।

    ঈদুল আযহা নামাজের নিয়ত বাংলা

    বাংলা নিয়ত: আমি কেবলামুখী হয়ে আল্লাহর ওয়াস্তে ছয় তাকবীরের সাথে ঈদুল আযহার দু’ রাকআত ওয়াজিব নামায পড়তেছি আল্লাহু আকবার।

    ঈদের নামাজের তাকবীর


    الله أكبر الله أكبر
    لا إله إلا الله
    الله أكبر الله أكبر
    ولله الحمد

    আল্লাহু আকবার, আল্লাহু আকবার,
    লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহু,
    আল্লাহু আকবার, আল্লাহু আকবার,
    ওয়ালিল্লাহিল হামদ।

    টাগঃ ঈদুল আযহা নামাজের নিয়ম,নিয়ত আরবি বাংলা | ঈদের নামাজের নিয়ম ও তাকবীর, কোরবানির ঈদের নামাজের নিয়ম



                                   
    Previous Post Next Post
    আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন  

     

    আপনার নামের অর্থ জানতে ক্লিক করুন