হাড় আলাউদ্দিন আল আজাদ কবিতা | কবিতা হাড় | Kobita Har Alauddin Al Azad


       
       

    হাড় আলাউদ্দিন আল আজাদ কবিতা  

    কবিতা হাড়  

    Kobita Har Alauddin Al Azad


    হাড় 

    আলাউদ্দিন আল আজাদ 


    লাল পলাশের ভস্মতূপে কিসের জ্বালা 

    স্তব্ধ অধীর বজ্রগর্ভ মেঘের মতাে ? 

    শিবির - সীমায় মনের ছায়ায় ইতস্তত 

    ছড়ায় সে তার কূট - মন্ত্রণা ঘৃণায় ঢালা 

    দুই শতকের সেই একদিন মনে কি পড়ে ? 

    মিরজাফরের গুলির শিখায় , সমুদ্ধত 

    নিভলাে তােমার দিনের সূর্য দিগন্তরে 

    দূর গােধূলির সেই একদিন মনে কি পড়ে 

                                 মনে কি পড়ে ? 

    নিভলাে তােমার ঘরের প্রদীপ পথের বাতি 

    নিভলাে সহসা মহাশূন্যের লক্ষ তারা 

    কালাে রাত্রির যাত্রিক হলে , লক্ষ্যহারা 

    সড়কে সড়কে ঝড় - ঝঞাই তােমার সাথি । 

    সমুখে কোথাও এমন সে দেশ আছে কি ভাই 

    যেখানে আলাের সম্ভারে হাসে বসুন্ধরা ?

    স্বদেশ আমার চক্র - রাতের মুঠোয় ভরা 

    গ্রাম জনপদ কাপে বগীর অশ্বখুরে 

    সােনার শস্য পােড়ে ছারখার ; দৃষ্টি পুড়ে 

    হলাে সঙ্গীন , তাই নেই আর অশ্রুঝরা 

    টোটায় ঝরে 

    অযুত প্রাণের অগ্নিশিখার সূর্য - কুঁড়ি 

    ফৌজের হাঁকে কাঁপে থরথর দস্যুপুরী 

    নিমেষে ছড়ায় তারই আওয়াজ দিগন্তরে 

    মনে কি পড়ে ? 

    রক্ত ঝরে 

    অগ্নির মতাে বাঁশের কেল্লা বেদির পরে 

    রক্ত ঝরাই ফাঁসির মঞ্চে দ্বীপান্তরে 

    ঝরেছে সকল রক্ত । এখন কখানা হাড়ে 

    ঝকঝক করে তীব্র তীক্ষ বর্শা - ফলা । 

    নতুন দস্যু আসে যদি , দেশ দেবােনা তারে 

    ইস্পাত - হাড়ে গড়েছি বজ্র বহ্নি - জ্বালা ।



    Tag: হাড় আলাউদ্দিন আল আজাদ কবিতা,  কবিতা হাড়,  Kobita Har Alauddin Al Azad

    Previous Post Next Post