বাংলা ভাষা ও তথ্য প্রযুক্তি রচনা - বাংলা ভাষা ও তথ্য প্রযুক্তি | Bangla Vasa O Information technology Rochona

বাংলা ভাষা ও তথ্য প্রযুক্তি রচনা - বাংলা ভাষা ও তথ্য প্রযুক্তি, Bangla Vasa O Information technology Rochona,  বাংলা ভাষা ও তথ্য প্রযুক্তির গুরুত্ব, বাংলা ভাষা ও তথ্য প্রযুক্তি অনুচ্ছেদ রচনা, রচনা - বাংলা ভাষা ও তথ্য প্রযুক্তি

    বাংলা ভাষা ও তথ্য প্রযুক্তি রচনা

    ভূমিকা : কম্পিউটার বা টেলিযােগাযােগের মাধ্যমে তথ্য সংরক্ষণ , গ্রহণ - প্রেরণ , তথ্য প্রক্রিয়াকরণ ইত্যাদি কাজের জন্য ব্যবহৃত প্রযুক্তিকে তথ্য প্রযুক্তি বলা হয় । বর্তমান সময়ে আমাদের আশেপাশের অধিকাংশ অনুষঙ্গই তথ্যপ্রযুক্তি দ্বারা কোনাে না কোনােভাবে প্রভাবিত । সর্বস্তরে বাংলা ভাষার প্রসার ও বহুবিধ ব্যবহার নিশ্চিতকরণে তথ্য প্রযুক্তি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে চলেছে । 

    বাংলাদেশ ও বিশ্বে বাংলা ভাষার অবস্থান : পুরাে পৃথিবীজুড়ে বাংলা হচ্ছে একমাত্রা ভাষা যা রক্তের বিনিময়ে আদায় করতে হয়েছে । বাংলা ভাষার জন্যে বাঙালির আত্মত্যাগের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি মেলে ১৯৯৯ সালে । ঐ বছরের ১৭ ই নভেম্বর ইউনেস্কোর ৩০ তম সাধারণ সভায় ২১ শে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘােষণা করে । বিশ্বের দরবারে বাঙালির এই অর্জনটি বিশেষ মর্যাদায় পালিত হওয়ায় বিষয়টি আমাদের জন্য বয়ে এনেছে বিশাল গর্ব আর সম্মান । জনসংখ্যার দিক থেকে বাংলা পৃথিবীর ষষ্ঠ বৃহত্তম ভাষা । বর্তমানে পৃথিবীতে বিশ্বের প্রায় ২০৬ মিলিয়ন মানুষের মুখের ভাষা বাংলা । বাংলাদেশে বসবাসকারী প্রায় ৯৮ % মানুষ বাংলায় কথা বলে । 

    তথ্য প্রযুক্তিতে বাংলাদেশের অবস্থান : বাংলাদেশে তথ্যপ্রযুক্তি খাতকে একটি বিকাশমান ও সম্ভাবনাময় খাত হিসেবে চিহ্নিত করা যায় । বর্তমানে কম্পিউটার সম্পর্কিত সব ধরনের অনুষঙ্গের দাম অনেকটাই সাধারণ মানুষের নাগালের মধ্যে থাকায় তথ্যপ্রযুক্তিতে মানুষের অংশগ্রহণ দিন দিন বাড়ছে । তবে এখনাে এখাতে বাংলাদেশের প্রচুর উন্নতি প্রয়ােজন । ইন্টারন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়ন ( আই . টি . ইউ ) ২০১১ সালে পৃথিবীর ১৫২ টি দেশের তথ্য প্রযুক্তির একটি তুলনামূলক চিত্র তুলে ধরে । সেই রিপাের্টে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৩৭ তম । অর্থাৎ বাংলাদেশ এখনাে তথ্যপ্রযুক্তির দিক থেকে অন্যান্য দেশের তুলনায় বেশ খানিকটা পিছিয়ে । তবে আশার কথা । এই যে , বর্তমান সরকার দেশে তথ্য ও যােগাযােগ প্রযুক্তির প্রসার ও বিকাশের ওপর গুরুত্বারােপ করেছে । তথ্য প্রযুক্তি খাতে বাংলাদেশকে এগিয়ে নেওয়ার লক্ষ্যে এ সংক্রান্ত নানা কার্যক্রম হাতে নেওয়া হচ্ছে । 

    বাংলা ভাষার প্রসারে তথ্য প্রযুক্তির গুরুত্ব : রক্তের দামে কেনা বাংলা ভাষার সম্মান রক্ষা করার জন্য প্রয়ােজন সর্বস্তরে বাংলাভাষার প্রচলন এবং এর সঠিক ও শুদ্ধ ব্যবহার । পৃথিবীর অনেক দেশই নিজ নিজ মাতৃভাষায় রাষ্ট্র পরিচালনা থেকে শুরু করে জ্ঞান - বিজ্ঞানের চর্চা সবই করছে । কিন্তু আক্ষেপের বিষয় হলাে আমরা সেদিক থেকে অনেকখানিই পিছিয়ে আছি । ১৯৮৭ সালে সর্বস্তরে বাংলাভাষার ব্যবহার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আইন পাশ হলেও তা সামান্যই আলাের মুখ দেখেছে । যদিও বিশ্বায়নের এ যুগে তৃতীয় বিশ্বের একটি উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে ইংরেজিকে বর্জন করে সম্পূর্ণরূপে মাতৃভাষায় নির্ভরতা যুক্তিযুক্ত নয় । তাই ইংরেজির পথে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি । করে বাংলা ভাষার প্রসার অবশ্যই প্রয়ােজন । বাংলা ভাষার সেই কাঙ্খিত প্রসারের জন্য শক্তিশালী হাতিয়ার হতে পারে তথ্যপ্রযুক্তি । বর্তমান বিশ্ব অনেকটাই তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর হয়ে পড়েছে । এর কল্যাণেই সারা বিশ্বকে নিমেষেই হাতের মুঠোয় নিয়ে আসতে পারছে মানুষ । বাংলাদেশেও তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার বেড়েছে বহুলাংশে । তথ্যপ্রযুক্তিতে বাংলার ব্যবহার তাই বাংলাভাষাভাষীদের একসূত্রে যুক্ত করবে খুব সহজেই । এছাড়া এর ব্যবহারে এখন অনুবাদ , মুদ্রণ , শিক্ষাগ্রহণ ও শিক্ষাদান , গবেষণা ইত্যাদিসহ নানা কাজ আগের তুলনায় অনেক সহজ হয়ে যাওয়ায় বাংলা ভাষা সংক্রান্ত এ কাজগুলোও এখন বেশি পরিমাণে করা যাচ্ছে । 

    বাংলাদেশে তথ্য প্রযুক্তির বিকাশে বাংলা ভাষার গুরুত্ব : সময়ের সাথে অর্থনৈতিক , সামাজিকসহ সকল খাতেই তথ্যপ্রযুক্তির প্রয়ােগ অবশ্যম্ভাবী হয়ে পড়েছে । এটি অনেক দেশেই অর্থনীতির অন্যতম চালিকাশক্তি হিসেবে পরিণত হয়েছে । বাংলাদেশেও এ খাতটি বেশ সম্ভাবনার সঞ্চার করেছে । তথ্য প্রযুক্তি ক্ষেত্রে যে বিপুল অগ্রগতি সাধিত হয়েছে , তার সুফল দেশের আর্থ - সামাজিক খাতে ছড়িয়ে দিতে হবে । তথ্য ও যােগাযােগ প্রযুক্তির ব্যাপক ব্যবহার এবং দেশের আপামর জনগণকে এই প্রযুক্তির সাথে পরিচিত করাতে হলে একে অবশ্যই সাধারণ মানুষের কাছে সহজবােধ্য করে তুলতে হবে । তাই এ ক্ষেত্রে যতখানি সম্ভব বাংলা ভাষাকে অন্তর্ভুক্ত করা প্রয়োজন । মানুুষ মাতৃভাষায় মনের ভাব এবং তার সৃজনশীলতা প্রকাশে যতখানি সক্ষম , অন্য কোন ভাষায় ততখানি সম্ভব হয় না । বিশ্বে যে সব দেশ তথ্যপ্রযুক্তিতে এগিয়ে আছে তারা সবাই মাতৃভাষা প্রয়ােগ করেছে । তথ্যপ্রযুক্তিতে বাংলা ভাষার ব্যবহার যত বাড়বে ততই এর বিশাল জগত সম্পর্কে বাংলাদেশের মানুষের পরিষ্কার ধারণা । জন্মাবে এবং আগ্রহ বাড়তে থাকবে । প্রযুক্তিগত সব উদ্ভাবন ও প্রয়ােগে বাংলা ভাষা বেশি মাত্রায় প্রয়ােগ করা । প্রয়ােজন বলে মত দিয়েছেন প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা । 

    বাংলা ভাষা ও তথ্যপ্রযুক্তির পারস্পরিক ব্যবহার : তথ্যপ্রযুক্তির নানা ক্ষেত্রে ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে বাংলা ভাষার । ব্যবহার । তথ্যপ্রযুক্তিতে বাংলা ভাষাকে অন্তর্ভুক্ত করতে বাংলাদেশ ইউনিকোড কনসাের্টিয়ামের ইনস্টিটিউশনাল সদস্য হয়েছে । ইউনিকোড হচ্ছে কম্পিউটারের অক্ষর সংকেতায়ন ব্যবস্থা যা আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত । ইন্টারনেটেও দিন দিন বাংলার ব্যবহার বাড়ছে । অনেকেই বাংলায় অনলাইন বিশ্বকোষ সংরক্ষণ করছেন , অনেকে চেষ্টা করছেন কম্পিউটারকে আরও ভালাে করে বাংলা ভাষা চেনানাের । আবার কেউ প্রয়াস নিচ্ছেন বাংলায় ব্লগিং ( ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহশালা ) করার । সামাজিক যােগাযােগ মাধ্যমগুলােতে বাংলা ভাষায় লেখার প্রবণতা দিন দিন বাড়ছে । গুগল , ফেসবুকসহ অনেক জনপ্রিয় ওয়েবসাইট এখন সম্পূর্ণই বাংলায় ব্যবহার করা যাচ্ছে । স্বেচ্ছাসেবী বাঙালিদের নিরলস প্রচেষ্টায় খুব দ্রুতই ছাড়িয়ে যাচ্ছে বাংলা উইকিপিডিয়া বা গুগল ট্রান্সলেটরের মতাে অত্যন্ত কার্যকর সেবাসমূহ । বাংলা ভাষায় ইন্টারনেট ডােমেইন রেজিস্ট্রেশন চালুর ব্যাপারটি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে । এটি চালু হলে ইন্টারনেটে বাংলায় ওয়েব ঠিকানা লেখা সম্ভব হবে । কম্পিউটারে বাংলা ভাষা এখন নানাভাবে লেখা যাচ্ছে । কেউ বিজয় , কেউ অভ্র , কেউবা অন্য কোন কী বাের্ড লে - আউট ব্যবহার করে বাংলা লিখছেন । মােবাইল ফোনে বাংলা কী প্যাড থাকা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে । মানুষ খুব সহজেই মােবাইলের মাধ্যমে বাংলায় ক্ষুদেবার্তা পাঠাতে সক্ষম হচ্ছে । তথ্যপ্রযুক্তির নানা ক্ষেত্রে বাংলার ব্যবহার একে মানুষের কাছে অনেকটাই সহজবােধ্য করে তুলতে সক্ষম হয়েছে । এ কারণেই আগের তুলনায় তথ্যপ্রযুক্তির প্রতি আকর্ষণ বাড়ছে মানুষের । মাতৃভাষার সহজ ব্যবহার উপযােগিতার ফলে জ্ঞান চর্চার ক্ষেত্রে এখন হরহামেশাই প্রযুক্তির ব্যবহার হচ্ছে । কম্পিউটার ও ইন্টারনেটের বহুবিধ ব্যবহারের মাধ্যমে অনেকেই জীবিকা নির্বাহ করছেন । ইন্টারনেটে আউটসাের্সিংয়ের মাধ্যমে অর্থ উপার্জনের দিক থেকে বাংলাদেশ প্রথম সারিতে অবস্থান করছে । এক্ষেত্রে স্বল্পশিক্ষিত জনসাধারণের কাছে বাংলা ভাষায় ইন্টারনেট ব্যবহার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে । তাছাড়া ইন্টারনেটে বাংলা ভাষার ব্যবহার বৃদ্ধি পাওয়ায় সহজেই তথ্যপ্রযুক্তির মহাসড়কে প্রবেশ করতে পারছে এ দেশের মানুষ । তথ্যপ্রযুক্তি সম্পর্কে যথাযােগ্য জ্ঞানী মানুষ যত বাড়বে , ততই বাংলাদেশে প্রযুক্তি শিল্পের প্রসার ঘটবে । 

    প্রয়ােজনীয় নির্দেশনা : তথ্যপ্রযুক্তিতে বাংলা ভাষার ব্যবহার এখনও অনেক ক্ষেত্রেই উপেক্ষিত । তথ্যপ্রযুক্তিতে বাংলাদেশের পিছিয়ে থাকার জন্য এ কারণটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ । বাংলাদেশকে একটি সমৃদ্ধ রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তুলতে হলে তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভরতার কোনাে বিকল্প নেই । তথ্য ও জ্ঞানের ভাণ্ডার এখন কম্পিউটার ও ইন্টারনেট কেন্দ্রিক । সারা বিশ্বে ভাষাগত অবস্থানে বাংলা ভাষা ষষ্ঠ হলেও কম্পিউটারের মাতৃভাষা ইংরেজি । তাই পরিপূর্ণ ইউনিকোড সমর্থিত উইন্ডােজ ও লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেম সমর্থনে বাংলা অপারেটিং সিস্টেম প্রয়ােজন বলে মত দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা । বাংলা ভাষার সমৃদ্ধি এবং বাংলা কম্পিউটিং নিশ্চিত করতে বিশাল । পরিসরে বাংলা ডিকশনারি প্রস্তুত করা জরুরি । এছাড়াও প্রয়ােজন বাংলা থেকে ইংরেজি , ইংরেজি থেকে বাংলা । করার ভালাে ট্রান্সলেশন সিস্টেম । ইন্টারনেট ব্লগের সবস্তরে সহজে বাংলা লেখার সুযােগ সৃষ্টি করা দরকার । বাংলাদেশে তথ্যপ্রযুক্তির অবাধ ব্যবহার নিশ্চিত করার জন্য একে সর্বস্তরের মানুষের নাগালের মধ্যে আনতে । হবে । এর জন্য প্রয়োজন এর ব্যয় হ্রাস করা এবং কম্পিউটার ও ইন্টারনেট শিক্ষার সুযোগ বৃস্ট্রি করা । | তাছাড়া ইন্টারনেটে আমাদের ব্যবহার উপযােগী করে দরকারি তথ্যসমূহ বাংলায় সংযােজনের উপর গুরুত্ব আরােপ করতে হবে । বাংলা ভাষা এবং তথ্যপ্রযুক্তি উভয়ের পারস্পরিক পথ চলা নিশ্চিত করণের লক্ষ্যে ব্যাপক ভিত্তিতে গবেষণা প্রয়ােজন ।

    উপসংহার : প্রযুক্তির উৎকর্ষের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলা ভাষার ব্যবহারও এগিয়ে চলেছে । ভাষাপ্রেমী প্রযুক্তিবিদরা দীর্ঘদিন ধরেই তথ্যপ্রযুক্তিতে বাংলার ব্যবহার নিয়ে কাজ করছেন । এতে অগ্রগতিও হয়েছে । অনেক । দেশের সার্বিক উন্নয়নের জন্য দেশের মানুষের সাথে তথ্যপ্রযুক্তির শক্তিশালী যােগসূত্র গড়ে তুলতে হবে । আর এ কাজে সফলতার জন্যেই এক্ষেত্রে বাংলা ভাষার ব্যবহারে আরও বেশি মনযােগী হতে হবে সংশ্লিষ্ট সবাইকে । সরকার এ ব্যাপারে নজর রাখলেও এখনও অনেক ক্ষেত্রেই উন্নতির প্রয়ােজন রয়েছে । তার পাশাপাশি প্রয়ােজন সচেতন প্রযুক্তি ব্যবহারকারীদের স্বেচ্ছা শ্রম ।

    বাংলা ভাষা ও তথ্য প্রযুক্তি

    Bangla Vasa O Information technology Rochona


    Tag: বাংলা ভাষা ও তথ্য প্রযুক্তি রচনা - বাংলা ভাষা ও তথ্য প্রযুক্তি, Bangla Vasa O Information technology Rochona, 
    বাংলা ভাষা ও তথ্য প্রযুক্তির গুরুত্ব, বাংলা ভাষা ও তথ্য প্রযুক্তি অনুচ্ছেদ রচনা, রচনা - বাংলা ভাষা ও তথ্য প্রযুক্তি
    Previous Post Next Post


    TOP POST

     

     

    🔽 এস এস সি/দাখিল ১ম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট ২০২২ সমাধান দেখতে ক্লিক করুন

    🔽 এইচ এস সি/আলিম ১ম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২২ দেখতে ক্লিক করুন

    🔽 সকল সপ্তাহের এসাইনমেন্ট সমাধান (ষষ্ঠ-নবম শ্রেণীর) দেখতে ক্লিক করুন 

    ☀️আপনার নামের অর্থ জানতে ক্লিক করুন 

    ��এসএসসি সকল বই ও নোট ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন