আরবি মাসের নাম অর্থ সহ এবং নামকরণের কারন

আরবি মাসের নাম অর্থ সহ এবং নামকরণের কারন


       
       
     

    আরবি মাসের নাম অর্থ সহ

    আসছালামু আলাইকুম প্রিয় পাঠক সবাই কেমন আছেন। আসা করি সবাই ভালো আছেন। আজকে আমরা তোমাদের আরবি ১২ মাসের নামআরবি ১২ মাসের নামকরণ নিয়ে আলোচনা করবো।

    আরবি ১২ মাসের নাম ও নামকরণের কারন 

      সিরিয়াল         
    নাম
                             
    নামকরণ 
    মহররমজাহেলি যুগে এই মাসে কোনো ধরনের যুদ্ধবিগ্রহ ও রক্তপাত করা হারাম ও অবৈধ ছিল বলে এই মাসকে মুহাররমুল হারাম নামকরণ করা হয়েছে।
    সফরসফর শব্দটি সিফর থেকে নির্গত। এর অর্থ শূন্য হওয়া, জাহেলি যুগে সফর মাসে লোকেরা যুদ্ধের জন্য বের হয়ে গেলে ঘর শূন্য হয়ে যেত, তাই সফরের মাসের নাম সফর রাখা হয়েছে।
    রবিউল আউয়ালএই মাসের নামকরণকালে ফসলে রবি, অর্থাৎ বসন্তকাল ছিল। তাই এর নামকরণ হয়েছে রবিউল আউয়াল।
    রবিউস সানিএর নামকরণকালে বসন্তের শেষার্ধে পড়ার কারণে রবিউল আখের বা শেষ বসন্ত নাম রাখা হয়।
    জুমাদাল উলাজুমাদা শব্দটি এসেছে জুমুদ থেকে, যার অর্থ জমে যাওয়া, স্থবির হওয়া। যখন এই মাসের নাম রাখা হয়, তখন ঠাণ্ডার মৌসুম আরম্ভ হয়, কেননা ঠাণ্ডার কারণে বেশির ভাগ জিনিস জমে যায়। এ জন্য এ মাসের নাম এভাবে রাখা হয়।
    জুমাদাল উখরাএই মাসের নাম রাখার কারণ হচ্ছে, এই মাসের শেষে শীতের প্রচণ্ডতায় পানি পর্যন্ত জমে যেত।
    রজবরজব শব্দটি রজিব থেকে উদ্ভূত হয়েছে। এর অর্থ হলো সম্মান করা। আরববাসী যেহেতু এ মাসকে সম্মান করত এবং শাহরুল্লাহ অর্থাৎ আল্লাহর মাস বলত, তাই এ মাসের নাম রজব বা সম্মানিত মাস রাখা হয়।
    সাবানশাবান শাব শব্দ থেকে উদ্ভূত হয়েছে। এর অর্থ হলো বের হওয়া, প্রকাশ হওয়া, বিদীর্ণ হওয়া। যেহেতু এ মাসে বিপুল কল্যাণ প্রকাশিত হয়, মানুষের রিজিক উৎপাদন ও বণ্টিত হয় এবং তাকদিরের ফয়সালাগুলোও বণ্টন করে দেওয়া হয়। তাই এ মাসের নাম শাবান রাখা হয়েছে।
    রমজানরমজান শব্দের মূল অর্থ হচ্ছে জ্বালানো-পোড়ানো। যেহেতু এই মাসে মুমিনের গুনাহগুলো জ্বালিয়ে-পুড়িয়ে ছারখার করে দেওয়া হয়। এ মাসের নাম রমজান রাখা হয়।
    ১০শাওয়ালশাওয়াল শব্দটি ‘শাওল’ মূলধাতু থেকে নির্গত, অর্থ বাইরে গমন করা। এখানে আরববাসী নিজ ঘরবাড়ি ত্যাগ করে ভ্রমণে যেত। তাই এর নামকরণ করা হয় শাওয়াল।
    ১১জিলকদজুল/জিল’ অর্থ ওয়ালা আর ‘কাদাহ’ অর্থ বসা, যেহেতু এ মাস সম্মানিত মাসের একটি। আরবরা এ মাসে যুদ্ধবিগ্রহ বন্ধ করে বাড়িতে বসে থাকত।
    ১২জিলহজজুলহজ/জিলহজ শব্দটি সম্ভবত হাজ্জাহ থেকে নেওয়া হয়েছে। এর অর্থ একবার হজ করা। অথবা শব্দটি ‘হিজ’ শব্দ থেকে নেওয়া হয়েছে। এর মানে অর্থবছর। যেহেতু এই মাস বছরের শেষাংশে আসে এবং এর দ্বারাই পূর্ণ বছরের সমাপ্তি ঘটে, তাই এই মাসের নামকরণ হয়েছে জুলহজ/জিলহজ।

    আরবি মাসের নাম ইংরেজিতে

    আরবি ১২ মাসের নাম ও আমল

    আরবি মাসের নামকরণ

    আরবিতে ইংরেজি মাসের নাম

    Tag:আরবি মাসের নাম ইংরেজিতে,আরবি ১২ মাসের নাম ও আমল,আরবি মাসের নামকরণ,আরবিতে ইংরেজি মাসের নাম মাসের নাম ও আরবি মাসের নামকরণ

    Previous Post Next Post