৮ম/অষ্টম শ্রেণির ১৫তম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট ২০২১ উত্তর/সমাধান বিজ্ঞান (এসাইনমেন্ট-৪) | ২০২১ সালের ৮ম/অষ্টম শ্রেণির (১৫তম) সপ্তাহের বিজ্ঞান এসাইনমেন্ট সমাধান/উত্তর


       
       

    ৮ম/অষ্টম শ্রেণির ১৫তম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট ২০২১ উত্তর/সমাধান বিজ্ঞান (এসাইনমেন্ট-৪)  


    শিরোনামঃ পৃথিবী এ মহাকর্ষ


    ক নং প্রশ্নের উত্তরঃ 

    একটি কাগজ ও একটি ভারি বল ১০ ফুট উচ্চতা থেকে ছেড়ে দিলে অভিকর্ষ বলের প্রভাবে মাটিতে পৌছায়।একই উচ্চতা থেকে একসাথে কাগজ ও ভাড়ি বল ছেড়ে দিলে স্বাভাবিক ভাবে একই সময়ে মাটিতে পৌঁছানাের কথা । কারণ বস্তুর উপর ক্রিয়াশীল অভিকর্ষজ ত্বরণ বস্তুর ভরের উপর নির্ভর করে না । তাই ভাড়ি বল ও কাগজ উপর ক্রিয়াশীল অভিকর্ষজ ত্বরণ একই । সুতরাং একই সময় মাটিতে পড়ার কথা থাকলেও বাস্তবে তা ঘটবে না ।

    বাতাসের বাধার ভিন্নতার কারণেই মূলত এই ঘটনাটি ঘটে । বস্তু দুটিকে উপর থেকে ছেড়ে দিলে বাতাস তাদেরকে নিচে পড়তে বাধা সৃষ্টি করে । এই বাধা ভরের ও আয়তনের উপর নির্ভর করে । এখানে ভাড়ি বলের চেয়ে কাগজের ক্ষেত্রে বাতাসের বাধার পরিমাণ বেশি হবে । তাই কাগজের আগেই ভাড়ি বলটি মাটিতে পড়বে ।


    অভিকর্ষজ ত্বরণের প্রভাবঃ 

    এ অভিকর্ষ বলের প্রভাবে ভূ - পৃষ্ঠে মুক্তভাবে পড়ন্ত কোনাে বস্তুর বেগ বৃদ্ধির হারকে অভিকর্ষজ করণ বলে । বস্তুর ওজনের উপর অভিকর্ষজ ত্বরণের প্রভাব বিদ্যমান । নির্দিষ্ট ভরের কোনাে বস্তুর ওজন অভিকর্ষজ ত্বরণের মানের উপর নির্ভরশীল । যেমন কোনাে বস্তুর ভর ১০০ কোজি হলে বিষুব অঞ্চলে বস্তুটির ওজন হতে ১০০ x ৯.৭৮ = ১৭৮ নিউটন এবং মেরু অঞ্চলে বস্তুটির ওজন হবে ১০০ x ৯.৮৩ = ১৮৩ নিউটন ।


    ভরের প্রভাবঃ 

    বস্তুর ভর একটি ধ্রুব রাশি অর্থাৎ পরিবর্তনশীল । কিন্তু বস্তুর ওজন অভিকর্ষজ ত্বরণের উপর নির্ভর করে । যেসব কারণে অভিকর্ষজ ত্বরণের পরিবর্তন ঘটে সেসব কারণে বস্তুর ওজনেরও পরিবর্তন হয় । চাদে অভিকর্ষজ ত্বরণের মান পৃথিবীর অভিকর্ষজ ত্বরণের প্রায় ছয় ভাগের এক ভাগ । আবার পৃথিবীর বিভিন্ন স্থানে অভিকর্ষজ ত্বরণের মানে সামান্য তারতম্য ঘটে থাকে । ফলে বস্তুর ওজনেরও তারতম্য ঘটে ।.


    খ নং প্রশ্নের উত্তর 

    অভিকর্ষঃ- এই মহাবিশ্বের প্রত্যেকটি বস্তু কণাই একে অপরকে নিজের দিকে আকর্ষণ করে । এই মহাবিশ্বের যেকোনাে দুইটি বস্তুর মধ্যে যে আকর্ষণ তাকে মহাকর্ষ বলে । দুইটি বতুর একটি যদি পৃথিবী হয় তবে তাকে অভিকর্ষ বলে অর্থাৎ কোনাে বস্তুর উপর পৃথিবীর আকর্ষণকে অভিকর্ষ বলা হয় । মহাবিশ্বের যেকোনাে দুইটি বস্তুর আকর্ষণ সম্পর্কে অভিকর্ষ বলের প্রভাবে ভূপৃষ্ঠে মুক্তভাবে পড়ন্ত কোনাে বস্তুর বেগ বৃদ্ধির হারকে অভিকর্ষজ ত্বরণ বলে ।

    মহাকর্ষঃ-- এ মহবিশ্বের যেকোনাে দুটি বস্তুর মধ্যে যে আকর্ষণ তাকে মহাকর্ষ বলে । সূত্রঃ-- মহাবিশ্বের প্রতিটি বস্তুকণা একে অপরকে নিজ দিকে আকর্ষণ করে এবং এ আকর্ষণ বলের মান বস্তুকণাদ্বয়ের ভরের গুণফলের সমানুপাতিক এবং এদের দূরত্বের বর্গের ব্যস্তানুপাতিক এবং এ বল বস্তুকণাদ্বয়ের সংযােজক সরলরেখা বরাবর ক্রিয়া করে ।

    পড়ন্ত বস্তু কোনাে বস্তুকে উপর থেকে ছেড়ে দিলে অভিকর্ষের প্রভাবে ভূমিতে পৌছায় ভারী ও একটি হালকা বস্তু ছেড়ে দিলে এগুলাে একই সময়ে ভূপৃষ্ঠে পৌঁছাবে । একটি কাগজ মুরানাে তৈরি বল ও একটি কাগজ একই উচ্চতা থেকে ছেড়ে দিলে দেখা যায় যে , কাগজের মুরানাে বলটি আগেই মাটিতে পৌছায় । যেহেতু বস্তুর উপর ক্রিয়াশীল অভিকর্ষজ ত্বরণ বতুর ভরের উপর নির্ভর করে না , তাই কাগজ ও কাগজের বলের উপর ক্রিয়াশীল অভিকর্ষজ ত্বরণ একই । সুতরাং তাদের একই সময়ে মাটিতে পৌছানাের কথা ।

    বাতাসের বাধার জন্য কতু দুইটি ভিন্ন সময়ে মাটিতে পৌঁছায় । বাতাসের বাধা না থাকলে এগুলাে অবশ্যই একই সময় মাটিতে পৌঁছাত । 

    পড়ন্ত বস্তুর সূত্রাবলি : পড়ন্ত বস্তু সম্পর্কে গ্যালিলিও তিনটি সূত্র বের করেন । এগুলােকে পড়ন্ত বস্তুর সূত্র বলে । এই সূত্রগুলাে একমাত্র স্থির অবস্থান থেকে বিনা বাধায় পড়ন্ত বস্তুর ক্ষেত্রে প্রযােজ্য অর্থাৎ বস্তু পড়ার সময় স্থির অবস্থান থেকে পড়বে , এর কোনাে আদি বেগ থাকবে না । বতু বিনা বাধায় মুক্তভাবে পড়বে অর্থাৎ এর উপর অভিকর্ষজ বল ছাড়া অন্য কোনাে বল ক্রিয়া করবে না ।

    যেমন- বাতাসের বাধা এর উপর ক্রিয়া করবে না ।


    ২০২১ সালের ৮ম/অষ্টম শ্রেণির (১৫তম) সপ্তাহের বিজ্ঞান এসাইনমেন্ট সমাধান/উত্তর



    Tag; ৮ম/অষ্টম শ্রেণির ১৫তম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট ২০২১ উত্তর/সমাধান বিজ্ঞান (এসাইনমেন্ট-৪),  ২০২১ সালের ৮ম/অষ্টম শ্রেণির (১৫তম) সপ্তাহের বিজ্ঞান এসাইনমেন্ট সমাধান/উত্তর

    Previous Post Next Post

    👇 সকল ক্লাসের এসাইনমেন্ট নোটিফিকেশন আকারে সহজে পেতে ডাউনলোড করুন আমাদের এপ্লিকেশন 

    আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন