২০২১ সালের এসএসসি/দাখিল (ভোকেশনাল) নবম শ্রেণির সিভিল কনস্ট্রাকশন-২ (প্রথম পত্র) এসাইনমেন্ট সমাধান/উত্তর (৩য় সপ্তাহ) | এসএসসি/দাখিল (ভোকেশনাল) নবম শ্রেণির ৩য় সপ্তাহের এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২১ সিভিল কনস্ট্রাকশন-২ (এসাইনমেন্ট -১)

    ২০২১ সালের এসএসসি/দাখিল (ভোকেশনাল) নবম শ্রেণির সিভিল কনস্ট্রাকশন-২ (প্রথম পত্র) এসাইনমেন্ট সমাধান/উত্তর (৩য় সপ্তাহ)


    সমাধানঃ

    আরসিসি 

    সাধারণ প্লেইন কংক্রিটের টান বল ( Tension ) ও শিয়ার বল ( Shear ) প্রতিরােধ ক্ষমতা কম । যদিও চাপ বল ( Compression ) সহ্য করার ক্ষমতা অনেক । প্লেইন কংক্রিট টানে বেশ ভঙ্গুর । যেখানে কংক্রিট ব্যবহার করা হয় সেখানে যদি টান বল ও শিয়ার বল সহ্য করতে হয় তাহলে কংক্রিটের এই দূর্বলতা লােহার উক্ত গুণ ব্যবহার করে বর্ধিত করা হয় । এ ধরনের কংক্রিটকে রি - ইফোর্সড সিমেন্ট কংক্রিট সংক্ষেপে আরসিসি বলে । 

    কংক্রিট ঢালাই করার পূর্বেই ফর্মায় ডিজাইন অনুসারে নির্দিষ্ট গ্রেডের গােলাকার ( ডিফরম বা রিবড ) এম এস ( Mild steel ) রড স্থাপন করা হয় । ঢালাই করার পর স্টিল রড ও কংক্রিট জমাটবদ্ধ হয়ে একক অভিন্ন বস্তুতে রূপান্তরিত হয় । এ কংক্রিটে এম এস রড টান শক্তি ও কংক্রিট চাপ শক্তি সরবরাহ করে । আবহাওয়া বা আগুনে যেন রড ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেজন্য রডের সকল পাশে আবরণ ( Covering ) দেওয়া হয় । আজকাল সাধারণ প্লেন ( Plain Concrete ) হতে রি - ইনফোর্সড সিমেন্ট কংক্রিট ( RCC ) অনেক বেশি ব্যবহার হয় ।

    আরসিসি কাজে এম এস রডের প্রয়ােজনীয়তা 


    কংক্রিট অপেক্ষা মাইল্ড স্টিল উচ্চ শক্তি সম্পন্ন পদার্থ । টেনশন বা কম্প্রেশন সাধারণ কংক্রিট অপেক্ষা মাইন্ড স্টিলের ক্ষমতা বেশি । কারণ মাইল্ড স্টিলের ইল্ড ( Yield ) স্ট্রেংথ কংক্রিটের কম্প্রেসিভ ( Compressive ) স্ট্রেংথ হতে ১৫ গুণ ও টেনসাইল ( Tensile ) স্ট্রেংথ হতে ১০০ গুণেরও বেশি । এতদসত্ত্বেও মাইল্ড স্টিল ও কংক্রিটকে যদি একত্রে নির্মাণ কাজে ব্যবহার করা যায় তাহলে কমপ্রেসিভ ও টেনসাইল বল সার্থকভাবে প্রতিরোধ করা যায় । বিমের ক্ষেত্রে শিয়ার ফোর্স ( Shear force ) জনিত কারণে সৃষ্ট ডায়াগোন্যাল টেনশন ( Diagonal tension ) প্রতিরােধেও মাইল্ড স্টিল কার্যকর । কাঠামাের কমপ্রেশন মেম্বার সমূহে ন্যূনতম রি - ইনফোর্সমেন্ট ব্যবহার করা হয় বলে আকস্মিক বেনডিং মােমেন্ট জনিত কারণে রি - ইনফোর্সমেন্ট যুক্ত এলাকা ফাটল মুক্ত থাকে ।  


    এম এস ব্যবহারের সুফল পাওয়ার জন্য কংক্রিট ও এম এস রডের মধ্যে যথেষ্ট বন্ডের ( Bond ) প্রয়োজন । বন্ড সৃষ্টি করে কংক্রিট হতে মাইল্ড স্টিলের আপেক্ষিক সরণ ঠেকানাে যায় । বন্ডের জন্য মাইল্ড স্টিলবারের পৃষ্ঠকে বিকৃত ( Deform বা Ribbed ) করে পারস্পরিক সংবদ্ধতার পরিমাণও বৃদ্ধি করা যায় । এরূপ বার সাধারণত অমসৃণ ও মােচড়ানাের মতাে দেখতে হয়ে থাকে যাকে ডিফর্মড বা রিবড বার ( Deformed বা Ribbed bar ) বলে ।



    স্টিরাপ ( Stirrup ) 


    বিমের উপর অর্পিত বলের কারণে তার মধ্যে টান ও চাপ পীড়নের পাশাপাশি ডায়াগোনাল টেনশন ( Diagonal tension ) বা শিয়ার পীড়ন সৃষ্টি হয় । কংক্রিট সীমিত পরিমাণ শিয়ার পীড়ন প্রতিরােধ করতে পারলেও সৃষ্ট পীড়নের তুলনায় তা নগণ্য । কংক্রিটের বহন ক্ষমতার অতিরিক্ত শিয়ার পীড়নকে বাড়তি শিয়ার স্ট্রেস বা পীড়ন ( Excess shear stress ) বলে । এই বাড়তি শিয়ার পীড়ন বহনের জন্য আলাদা রি - ইনফোর্সমেন্ট ব্যবহার করা যায় । একে ভার্টিক্যাল রি - ইন - ফোর্সমেন্ট বা ওয়েব রি - ইন - ফোর্সমেন্ট বা স্ট্রিপ ( Stirrup ) বলে । সাধারণত ১০ মি মি ব্যাসের রড স্টিপ হিসাবে ব্যবহার হয় । সাধারণত চার পদ্ধতিতে স্টিপ প্রদান করা হয় ।


    স্টিপের কাজ ( Function of Stirrups ) 


    ডায়াগােনাল টেনশনের ফলে বিমে যাতে কৌণিক ফাটল সৃষ্টি না হয় তার জন্য স্টিপ ব্যবহৃত হয় । ধীরে সৃষ্ট ডায়াগােনাল টেনশন এক প্রকার কৌণিক বা লব্ধি বল । এই বলকে অনুভূমিক বা খাড়া উলাংশে রূপান্তর করা যায় । বিমে অবস্থিত প্রধান লােহা অনুভূমিক বলকে প্রতিরােধ করতে পারে । কিন্তু খাড়া উপাংশ বলকে প্রতিরােধ করার জন্য বিমে খাড়াভাবে রি - ইনফোর্সমেন্ট দিতে হয় । এই খাড়া রি - ইনফোর্সমেন্ট এর প্রধান কাজ হলো ডায়াগােনাল টেনশন প্রতিরােধ করা । তাছাড়া প্রধান রডকে নিজ অবস্থান ধরে রাখী ও বাঁকা হওয়ার প্রবণতা প্রতিরােধ করাও স্টিপের কাজ ।


    আরসিসি কাজে ফর্ম ওয়ার্কের কৌশল 


    ফর্ম ওয়ার্ক তৈরি একটি অস্থায়ী নির্মাণ কাজ যা কাঠামাের মােল্ড হিসেবে ব্যবহার হয় । নতুন কংক্রিট এ মােল্ডে ঢালা হয় তা শক্ত হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত ফর্ম ওয়ার্ক খােলা হয় না । এটা তৈরি করতে সময় এবং ব্যয় প্রায় মূল কাঠামাের ২০-২৫ % খরচ হয় । কিন্তু ডিজাইন করা ফর্ম ওয়ার্কে খরচ বাঁচানাে সম্ভব হয় । ফর্ম ওয়ার্ক খুলে ফেলাকে স্ট্রিপিং ( stripping ) বলে । 


    যে ফর্ম ওয়ার্ক বার বার ব্যবহার করা হয় তাকে প্যানেল ফর্ম বলে । যে ফর্ম ওয়ার্ক একবার ব্যবহার করা হয় তাকে স্টেশনারি ফর্ম বলে । আমাদের দেশে সাধারণত কাঠ ফর্ম ওয়ার্কের মাধ্যম হিসেবে বেশি ব্যবহার করা হয় । কিন্তু এর অসুবিধা হচ্ছে । কাঠের ফর্ম ওয়ার্ক বীকা , মােচড়ানাে ও সংকুচিত হয়ে যায় । এছাড়া প্লাই উড , স্টিল , প্লাস্টিক , এ্যালুমিনিয়াম ফর্ম ওয়ার্ক বর্তমানে বেশ সুপরিচিত ।



    এসএসসি/দাখিল (ভোকেশনাল) নবম শ্রেণির ৩য় সপ্তাহের এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২১ সিভিল কনস্ট্রাকশন-২ (এসাইনমেন্ট -১)




    Tag: ২০২১ সালের এসএসসি/দাখিল (ভোকেশনাল) নবম শ্রেণির সিভিল কনস্ট্রাকশন-২ (প্রথম পত্র) এসাইনমেন্ট সমাধান/উত্তর (৩য় সপ্তাহ),  এসএসসি/দাখিল (ভোকেশনাল) নবম শ্রেণির ৩য় সপ্তাহের এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২১ সিভিল কনস্ট্রাকশন-২ (এসাইনমেন্ট -১)
    Previous Post Next Post