বাংলাদেশের বেকারত্ব নিরসনে আত্মকর্মসংস্থানের ভূমিকা নিরুপণ | এসএসসি ৫ম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট ২০২১ উত্তর/সমাধান ব্যবসায় উদ্যোগ (এসাইনমেন্ট -৪) | ২০২১ সালের এসএসসি ৫ম সপ্তাহের ব্যবসায় উদ্যোগ এসাইনমেন্ট সমাধান/উত্তর


    এসএসসি ৫ম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট ২০২১ উত্তর/সমাধান ব্যবসায় উদ্যোগ (এসাইনমেন্ট -৪)  


    বাংলাদেশের বেকারত্ব নিরসনে আত্মকর্মসংস্থানের ভূমিকা নিরুপণ


    শিরােনাম : বাংলাদেশের বেকারত্ব নিরসনে আত্মকর্মসংস্থানের ভূমিকা নিরূপন 


    ‘ ক নং প্রশ্ন : আত্মকর্মসংস্থানের ধারণা । 

    উত্তরঃ সাধারণ অর্থে নিজের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা নিজেই করাকে আত্মকর্মসংস্থান বলে । আত্মসংস্থান এর মাধ্যমে একজন মানুষ নিজের পাশাপাশি অনেক বেকার মানুষের কর্মসংস্থানের সুযােগ সৃষ্টি করতে পারে । এর ফলে অধিক চাহিদাকৃত চাকরির উপর চাপ কম পড়ে ড়ে এবং বেকারত্ব হ্রাস পায় । উদাহরণস্বরূপ বলা যায় বিভিন্ন খুচরা বিক্রয় , রেডিও ও টেলিভিশন মেরামত ইত্যাদি ।


    ‘ খ ’ নং প্রশ্ন : আত্মকর্মসংস্থানের উপযুক্ত ও লাভজনক ক্ষেত্র তালিকায় উপস্থাপন । 

    উত্তরঃ আত্মকর্মসংস্থানের উপযুক্ত ও লাভজনক ক্ষেত্রসমূহের নাম ধারাবাহিকভাবে তালিকায় উপস্থাপন করা হলাে :


    ‘ গ ’ নং প্রশ্ন : আত্মকর্মসংস্থানে উদ্ধকরণে ৬ টি করণীয় । 

    উত্তরঃ আত্মকর্মসংস্থানের জন্য প্রয়ােজন ব্যক্তিগত দক্ষতা ও স্বনির্ভর পেশায় নিয়ােজিত থেকে জীবিকা অর্জনের প্রবল ইচ্ছাশক্তি । যেহেতু দেশে চাকরির সুযােগ সীমিত এবং ইচ্ছা করলেই সরকারি বা বেসরকারি উদ্যোগে এত অধিক কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা সম্ভব নয় তাই একমাত্র বিকল্প হচ্ছে নিজের নিজের কর্মসংস্থান করা । বর্তমানের আগামী প্রজন্মকে আত্মকর্মসংস্থানে উদ্বুদ্ধ করতে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ জন করা জরুরি । যেমন-


    ১. আমাদের অনুপ্রাণিত হতে হবে যে , কোনাে পেশা বা কাজই ছােট ও অপমানের নয় । 

    ২. স্ব স্ব এলাকায় আত্মকর্মসংস্থানের মাধ্যমে যারা স্বাবলম্বী ও সফল হয়েছে তাদেরকে বিদ্যালয়ে এনে আমাদেরকে তাদের জীবনকাহিনী শােনতে হবে । 

    ৩. স্ব স্ব এলাকার আত্মকর্মসংস্থানের উপযুক্ত ক্ষেত্রগুলাের তালিকা প্রণয়ন করে বিদ্যালয় ও ইউনিয়ন পরিষদের দেয়ালে প্রচারের ব্যবস্থা করা যেতে পারে । 

    ৪. বিদ্যালয় বা কলেজ থেকে যে সকল শিক্ষার্থী ঝরে পড়ে কিংবা নিয়মিত বিদ্যালয়ে আসার সুযােগ পায় না তাদেরকে বিভিন্ন উপযুক্ত ক্ষেত্রে প্রশিক্ষণ ও ঋণপ্রদানে ব্যবস্থা করতে হবে ।

    ৫. নবম ও দশম শ্রেণির শিক্ষাক্রমে বৃক্তিমূলক , কারিগরি ও কর্মমূখী শিক্ষাকে পর্যাপ্তভাবে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে । 

    ৬. আত্মকর্মসংস্থানকে সামনে রেখ যুব উন্নয়ন ব্যাংক ও শিক্ষা ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করে সহজ শর্তে ঋণপ্রদানের ব্যবস্থা করতে হবে ।


    ‘ ঘ ’ নং প্রশ্ন : আত্মকর্মসংস্থানের গুরুত্ব । 

    উত্তর : চট্টগ্রামের হামিদ সাহেব স্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক পাশ করেও যােগ্যতামাফিক কোনাে চাকরি পায় নি । বেশ কিছু দিন বেকার থাকার পর তিনি স্থানীয় যুব উন্নয়ন কার্যালয় থেকে কম্পিউটার বিষয়ে একটি প্রশিক্ষণ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন । প্রশিক্ষণ শেষে তার পার্শবর্তী একটি বাজারের মধ্যে সে একটি কম্পিউটার হাবের দোকান দেন । প্রতিনিয়ত তার দোকানে এখন ক্রেতা / কাস্টমার থাকে । মাসে তার আয় প্রায় ৩০,০০০ টাকা । লাভের টাকা পেয়ে তার আগ্রহ বহুগুণে বেড়ে গেল । এরপর তিনি ঢাকায় একটি কম্পিউটার মেলায় তার কয়েকটি এক্সেসরিজ নিয়ে একটি স্টল দেন । কঠোর পরিশ্রম আর সুযােগের সঠিক ব্যবহারের কারণে তার ব্যবসায় ৫ বছরে অনেক বড় আকার ধারণ করে । তিনি সম্প্রতি তার জেলায় একজন স্বনামধন্য কম্পিউটার স্পেশালিষ্ট । পুরস্কার গ্রহণকালে তিনি আগত সবাইকে আত্মকর্মসংস্থানের নিম্নোক্ত প্রয়ােজনীয়তা সম্পর্কে অবগত করেন 


    ১. কর্মসংস্থানের প্রধান উৎস সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান । জনসংখ্যা বৃদ্ধির সাথে সাথে শ্রমজীবী ও চাকরিজীবী লােকের সংখ্যা বৃদ্ধি পায় ।

    ২. অন্যান্য পেশায় আয়ের সম্ভাবনা সীমিত । কিন্তু আত্মকর্মসংস্থান থেকে প্রাপ্ত আয় প্রথমদিকে সীমিত ও অনিশ্চিত হলেও পরবর্তীতে এ পেশা থেকে আয় বৃদ্ধির সম্ভাবনা অসীম । 

    ৩. বর্তমানে আত্মকর্মসংস্থানের আওতা ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে । আগের তুলনায় বর্তমানে আত্মকর্মসংস্থানে নিয়ােজিত ব্যক্তিদের সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধি পেয়েছে । 

    ৪. আত্মকর্মসংস্থানের সবচেয়ে বড় মূলধন হলাে নিজের ক্ষমতা । কর্ম সম্পাদনের জন্য যে যন্ত্রপাতি ও কাঁচামাল প্রয়ােজন তার আত্মকর্মসংস্থান করাও অনেকটা সহজ ।

    ৫. আত্মকর্মসংস্থান একটি স্বাধীন পেশা । আর এ ব্যবসায় যেহেতু অনেক সময় নিজের বাড়িতে বা জমিতে করা যায় যেহেতু আলাদা খরচ হয় না । 

    ৬. আত্মকর্মসংস্থানে নিয়ােজিত থাকলে তরুণ সমাজ নানা সমাজ বিরােধী কাজে লিপ্ত না থেকে সমাজ ও দেশের উন্নয়নে অবদান রাখতে পারবে । 

    ৭. আত্মকর্মসংস্থানের মাধ্যমে শহরমুখী জনস্রোত নিয়ন্ত্রণ ও গ্রামীণ সমাজ ও অর্থনীতির উন্নয়ন নিশ্চিত করা যায় ।  

    ৮. আত্মকর্মসংস্থানের মানসিকতা যুবসমাজকে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করে এবং স্বেচ্ছামূলক কাজে উৎসাহিত করে ।

    ৯. আত্মকর্মসংস্থানের জন্য বয়স কোনাে সমস্যা নয় । এর মাধ্যমে যে কোননা বয়সের মানুষ তার দক্ষতা অনুযায়ী অর্থ উপার্জন করতে পারে ।


    ২০২১ সালের এসএসসি ৫ম সপ্তাহের ব্যবসায় উদ্যোগ এসাইনমেন্ট সমাধান/উত্তর Pdf


                          Click Here To Download 



    Tag: এসএসসি ৫ম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট ২০২১ উত্তর/সমাধান ব্যবসায় উদ্যোগ (এসাইনমেন্ট -৪),  ২০২১ সালের এসএসসি ৫ম সপ্তাহের ব্যবসায় উদ্যোগ এসাইনমেন্ট সমাধান/উত্তর pdf , বাংলাদেশের বেকারত্ব নিরসনে আত্মকর্মসংস্থানের ভূমিকা নিরুপণ

    Previous Post Next Post

    👇 সকল ক্লাসের এসাইনমেন্ট নোটিফিকেশন আকারে সহজে পেতে ডাউনলোড করুন আমাদের এপ্লিকেশন 

    আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন