MCQ ভালো করার উপায়

MCQ ভালো করার উপায়

MCQ ভালো করার উপায়

MCQ নিয়ে সবারই মোটামুটি ভয় আছে। অনেকেই ইনবক্সে বললো মহিউদ্দিন ভাইয়া cq ভালো করার টিপসত দিছেন। কিন্তু MCQ কিভাবে ভালো করব। তাই আজ mcq নিয়েই হাজির হলাম।

📣সম্পূর্ণ পড়া শেষে মতামত জানাবেন📣
🚩টেস্টে MCQ তে বড় ধরনের ধরা খাওয়ার পরে অনেকের এই মূহুর্তে সব থেকে হতাশার নামই হচ্ছে MCQ! যতই পড়ি এমসিকিউ কমন আসে না! ফেইল! কিংবা ভালো মার্কস আসে না, একদমই ত্যানাত্যানা অবস্থা! ☠
এটার কারন কি?কীভাবে ভালো করা যায়? বই পড়ে গেলে মডেল টেস্টে কমন আসে না। ব্যাপার কি?🤔🤔
📖ব্যাপারটা সহজ! এমসিকিউকে এত্ত কঠিনভাবে না নিয়ে সহজভাবে ভাবতে হবে।
এমসিকিউ তে ভালো করার দুইটা সিস্টেম!
ℹএকটা চোরা সিস্টেম!
ℹআরেকটা সাধারণ সিস্টেম!

আজকে সাধারণ সিস্টেম নিয়ে আলোচনা করবো

বহুনির্বাচনি প্রশ্নে ভালো করা উপায় 


📢সবার আগে এমসিকিউ কমন পেতে হলে একটু টেকনিক্যালি পড়তে হবে।
✒ধরেন,আপনি একটা অধ্যায় পড়তেছেন, অবশ্যই বুঝে পড়তে হবে। যেহেতু সামনে ফাইনাল এক্সাম। ধরেন কাল বাংলা ১ম পত্র এক্সাম৷ এটা নিয়েই উদাহরণ দিচ্ছি, সব বিষয়ের জন্য সেইম রুলস ফলো করতে হবে।
ধরেন,আপনি একটা অধ্যায় পড়তেছেন,👇👇

✅প্রথমে অধ্যায়টা পুরোটা মন দিয়ে একবার পড়ে নিন।পড়ার সময়ে অবশ্যই ইম্পরট্যান্ট লাইন দাগিয়ে রাখতে হবে।যে লাইন থেকে এমসিকিউ করার সম্ভাবনা থাকে।সেটা আপনি দেখলেই বুঝবেন।সেই ইম্পরট্যান্ট লাইনটা কলম/পেন্সিল দিয়ে দাগিয়ে রাখতে হবে।

✅এরপর আপনি রিটেনের জন্য যেই টপিকসগুলা পড়বেন সেখান থেকেও এমসিকিউ এর জন্য ইম্পরট্যান্ট তথ্যটা দাগিয়ে রাখবেন।ধরেন আপনি সব কিছু দাগিয়ে রেখেছেন,ইভেন পুরো অধ্যায়টা আপনার পড়া শেষ! এখন কাজ কি?

✅কাজ হচ্ছে যেগুলা কলম/পেন্সিল দিয়ে দাগাইছেন সেগুলা চোখ দিয়ে আবার একনজর দেখে নেওয়া তারপর টেস্ট পেপার কিংবা গাইড থেকে ওই অধ্যায়ের যত এমসিকিউ আছে ওই গুলা প্র‍্যাক্টিস করবেন। দেখবেন আপনি সব পারতেছেন। যেটা আনকমন সেটাতো আপনি জেনেই যাচ্ছেন।

✅এরপর আপনি ওই অধ্যায়ের সব এমসিকিউ পারেন কিনা সেটা বুঝার উপায় কি? সেটা বুঝার উপায় হচ্ছে আপনি যেকোনো ৪/৫ টা কলেজের ওই অধ্যায় রিলেটেড এমসিকিউ প্র‍্যাক্টিস করেন। দেখবেন আপনি সব পারতেছেন। 🔬Mohiuddin Ahmed🔬
📖এখন কথা হচ্ছে ভাইয়া সবই পড়ি তাও পাই না কেনো? এটা ভুল বলতেছেন!😒😒

✅বিকজ আপনি টপিকসটা বুঝে মন দিয়ে পড়েন না।পড়ার মত পড়তে হবে। কোনো কিছু ভালো পারার জন্য প্র‍্যাক্টিসের বিকল্প নাই। তাই বার বার প্র‍্যাক্টিস করতে হবে। দেখবেন আপনি সব এমসিকিউ ভালো পারবেন ।

MCQ পড়ার সময় কখন


✅এমসিকিউ যে আপনার একদম মন দিয়ে পড়তে হবে তা না! ধরেন আপনার অধ্যায়টা ভালোভাবে শেষ আপনি টিভি দেখতেছেন,কিংবা শুয়ে আছেন,ফেইসবুকের হোমপেজ চেক করতেছেন!এই ফাঁকে গাইড/টেস্ট পেপার হাতে নিয়ে শুয়ে শুয়ে প্র‍্যাক্টিস করতে থাকেন। দেখবেন সব পারতেছেন। মন দিয়ে এমসিকিউ পড়তে গেলে বোরিং লাগবে। আর আপনার অধ্যায়টা ভালোভাবে পড়া হলে এম্নিতেই পারবেন।

এক্সামের সময়ে ভালো করার উপায়


মনে রাখবেন এমসিকিউ এমন একটা জিনিষ যেটার উত্তর দেওয়াই থাকে। এর থেকে সহজ কিছু আছে? আপনার উত্তর আপনারর চোখের সামনে। জাস্ট খুঁজে বের করতে হবে। বের করার উপায় কি? উপায় সহজ!
✅প্রথমে এমসিকিউ প্রশ্নটা পাবার পর প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত দেখে নিন। যেটা পারবেন সাথে সাথে ছোট করে কলম দিয়ে টিক দিয়ে রাখবেন। যেভাবে পড়তে বলেছিলাম ওইভাবে পড়ে থাকলে দেখবেন সবই কমন!
📣তাও যদি না পারেন? কি করতে হবে? এটাও সহজ!😊
✅ধরেন আপনি ২৫/৩০ টা এমসিকিউ এর মধ্যে মাত্র ১০ টা পারছেন! বাকিগুলা পারতেছেন না! এখন উপায় কি? উপায় একটাই! আপনি এমসিকিউ এর প্রশ্নটা পড়েন। আর উত্তরগুলা বার বার দেখেন। আই মিন প্রশ্নটার সাথে উত্তর মিলানোর ট্রাই করো। চারটা অপশন দেওয়া থাকে। মনে রাখবেন এই চারটার মধ্যেই আপনার উত্তর। আপনার কাজ হচ্ছে একটা একটা করে অপশন বাদ দিয়ে একটা সিলেক্ট করা। সেই একটাই উত্তর। ধরেন প্রথমে চারটা অপশন থেকে একটা বাদ দিয়ে তিনিটা নিয়ে ভাববেন। তিনিটা থেকে একটা বাদ দিয়ে দুইটা নিয়ে ভাববেন। এরপর দুইটার মধ্যে একটা সিলেক্ট করবেন।

✅এটা করার সিস্টেম কি?! শুনেন,আপনার ওই অধ্যায় কিংবা টপিকস নিয়ে ধারনা থাকলে আপনি পারবেনই। জাস্ট ঠান্ডায় মাথায় বার বার ভাবেন আপনার পড়া থাকলে উত্তরটা বের হয়ে আসবেই। জাস্ট প্রশ্নটা দেখবেন আর একটা অপশনের সাথে মিলাবেন। যেটা মিলবে না সাথে সাথে বাদ!এরপর আরেকটার সাথে মিলাবেন! আপনি দেখলেই বুঝতে পারবেন সেটা হবে কিনা! আর যদি একদমই না পারেন খ আর গ নিয়ে ভাবেন। বিকজ এমসিকিউ তে বেশিরভাগ উত্তর খ আর গ তে থাকে! এভাবে ঠান্ডা মাথায় ভাবতে হবে। আর এমসিকিউ উত্তর দেখেই ওএমআরে দাগানোর দরকার নেই।যেগুলা একদম সিওর সেগুলা দাগিয়ে ফেলবেন। যেগুলা কনফিউজড থেকে দাগাচ্ছেন সেগুলা দাগানোর আগে আশেপাশে একটু উকি মেরে শুনে নিন। শুনেই যে দাগাতে হবে তা না! শুনার পর যদি দেখেন আপনারটার সাথে মিলে গেছে তাহলে বুঝবেন আপনার কনফিউজড ঠিক ছিল। আর যদি না মিলে আপনাররটা আর ওরটা নিয়ে একটু রিসার্স করবেন। যেটা কারেক্ট মনে হবে সেটা দিয়ে দিবেন। তবে ভালো কারো থেকেই হেল্প নেওয়ার চেষ্টা করবেন। অনেকে দেখবেন পারে না কিছুই তাও ইচ্ছামত দাগাচ্ছে! কিন্তু আসলে সে কিছুই পারে না! তাদের থেকে সাবধান।
🛇টেনশন করবেন না🛇
😊চেষ্টা করতে থাকেন😊
💓আল্লাহর কাছে দোয়া করেন💓
ইনশাআল্লাহ এমসিকিউ ভালো করতে পারবেন৷
💯আর যত কিছুই হোক হতাশ হওয়া যাবে না। এ+ করার ট্রাই করেন। একটা সাবজেক্টে এ+ মানে আপনার পয়েন্ট অনেক বেড়ে যাচ্ছে! তাই কোনো সাবজেক্টকে ঢিলামো দিবেন না।ভালো করার এখনো যথেস্ট সময় আছে। হতাশ হইবেন না৷ ভালো থাকবেন....ধন্যবাদ শুভকামনা রইলো 💓💓💓

সবার জন্য অনেক অনেক শুভ কামনা
Previous Post Next Post