৮ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম অ্যাসাইনমেন্ট সমাধান ২০২২-ব্যক্তি ও সমাজ জীবনে আল আসমাউল হুসনার প্রতিফলন ঘটানোর উপায় নির্ধারণ -৮ম শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্ট ইসলাম ধর্ম ২০২২ (ষষ্ঠ সপ্তাহ) | অষ্টম শ্রেণীর ৬ষ্ট সপ্তাহের ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২২

 

৮ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম অ্যাসাইনমেন্ট সমাধান ২০২২--৮ম শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্ট ইসলাম ধর্ম ২০২২ (ষষ্ঠ সপ্তাহ) | অষ্টম শ্রেণীর ৬ষ্ট সপ্তাহের ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২২

       
       

    ৮ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম অ্যাসাইনমেন্ট সমাধান ২০২২

    ৮ম শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্ট ইসলাম ধর্ম ২০২২ (ষষ্ঠ সপ্তাহ) 

     অষ্টম শ্রেণীর ৬ষ্ট সপ্তাহের ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২২

    শিরোনামঃ ব্যক্তি ও সমাজ জীবনে আল আসমাউল হুসনার প্রতিফলন ঘটানোর উপায় নির্ধারণ ।




    অর্থ : : ( আমরা গ্রহণ করলাম ) “ আল্লাহর রং , আর রঙে আল্লাহ অপেক্ষা আর কে অধিকতর সুন্দর ? ” ( সূরা আল - বাকারা , আয়াত ১৩৮ ) 

    আল্লাহর রং হলো আল্লাহর দীন ও তাঁর গুণাবলি । আর সর্বোত্তম গুণাবলিতো আল্লাহরই । সুতরাং আল্লাহর গুণাবলির অনুসরণ করলে উত্তম চরিত্রবান হওয়া সম্ভব । নিম্নেবর্ণিত আলোচনায় আমরা আল্লাহ তায়ালার কতিপয় গুণের সাথে পরিচিত হব ।

    আল্লাহ তায়ালার পবিত্র গুণবাচক নামগুলো নিজ জীবনে প্রতিফলনের উপায় বর্ণনা করা হলোঃ আল্লাহতালা অতি ক্ষমাশীল । আমারা অনেকেই জানা - অজানায় অনেক গুনা করে ফেলি।তাই সবসময় আল্লাহর নওকট ক্ষমা চাইব।তিনি অতি ক্ষমাশীল।তিনি আমাদের ক্ষমা করে দেন।আমারও কেই কোন অন্যায় করলে তাকে ক্ষমা করে দিব।আবার , আল্লাহ কারো মুখাপেক্ষী নন।আমরা পরমুখাপেক্ষিতা বর্জন করব । আল্লাহ ব্যতীত আর কারো নিকট সাহায্য চাইব না।আল্লাহ অতি স্নেহশীল । আমরাও ছোটদের স্নেহ করবে।সুতরাং পরিশেষে বলা যায় যে , এইভাবে আমরা আল্লাহর গুণবাচক নামসমূহ নিজ জীবনে প্রয়োগ করব।

    • সমাজ জীবনে আল আসমাউল হুসনার প্রভাব নিরূপণ করা হলোঃ আল্লাহর ' আসমাউল হুসনা ' বা সুন্দর নামসমূহ ও সুউচ্চ গুণসমূহের জ্ঞানার্জন করা মহোত্তম ও শ্রেষ্ঠতম জ্ঞানের অংশ । আল্লাহর প্রত্যেক নামের বিশেষ বৈশিষ্ট্য রয়েছে । তাঁর নামসমূহে প্রশংসা ও পূর্ণতার গুণ রয়েছে । প্রত্যেক সিফাতের নিজস্ব দাবীও রয়েছে । প্রত্যেক কর্মের ক্রিয়া রয়েছে , যা কর্মের অপরিহার্য অংশ । আল্লাহর সত্তা তাঁর নাম থেকে , আর নাম গুণাবলী ও এর অর্থ থেকে , তাঁর গুণাবলী আনুষঙ্গিক কর্ম থেকে এবং তাঁর কর্ম অত্যাবশ্যকীয় প্রভাব থেকে বিচ্ছিন্ন হয় না । এ সবকিছুই তাঁর নাম ও গুণাবলীর প্রভাব।আল্লাহর কর্মসমূহ প্রজ্ঞাময় ও কল্যাণজনক । তাঁর নামসমূহ সুন্দর । সুতরাং এগুলোর নিজস্ব কোন ক্রিয়া থাকবে না - এমনটি মনে করা অবাস্তব ও অযৌক্তিক । একারণে যারা আল্লাহকে আদেশ ,নিষেধ , সওয়াব ও শাস্তি প্রদান থেকে নিষ্ক্রিয় সাব্যস্ত করে , আল্লাহ তাদেরকে প্রত্যাখ্যান করেছেন । এরা আল্লাহর জন্য এমন কিছু বিষয় সাব্যস্ত করেছে যা তাঁর জন্য যথার্থ নয় । তিনি এসকল বিষয় থেকে পবিত্র ৷ এমন সাব্যস্তকরণ একটি গর্হিত কাজ । যারা এমন কিছু সাব্যস্ত করেছে তারা আল্লাহর সম্মান যাথাযথ নিরূপণ করতে পারেনি । তাঁর মর্যাদা যথাযথ অনুধাবন করতে পারেনি । যেমনটি নবুওয়াত , রামূল প্রেরণ ও কোরআন অবতরণকে যারা অস্বীকার করে তাদের সম্পর্কে আল্লাহ বলেছেন : { তারা আল্লাহকে যথার্থ মূল্যায়ন করতে পারেনি , যখন তারা বলল : আল্লাহ কোন মানুষের প্রতি কোন কিছু অবতীর্ণ করেননি । } [ সূরা : আল - আন'আম , আয়াত : ৯১ ]

    তিনি সৃষ্টির কোন জিনিসের সাদৃশ্য গ্রহণ করেন নি , আর সৃষ্টির কোনকিছুও তাঁর সাদৃশ্য নয় । তিনি তাঁর নাম এবং গুণাবলীসহ সর্বদা ছিলেন এবং থাকবেন । -ইমাম আবু হানীফা ।


    Tag:৮ম শ্রেণির ইসলাম ধর্ম অ্যাসাইনমেন্ট সমাধান ২০২২,৮ম শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্ট ইসলাম ধর্ম ২০২২ (ষষ্ঠ সপ্তাহ),  অষ্টম শ্রেণীর ৬ষ্ট সপ্তাহের ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২২

                                   
    Previous Post Next Post

      আপনার নামের অর্থ জানতে ক্লিক করুন


    আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন