এইচএসসি বাংলা ১ম পত্র এসাইনমেন্ট সমাধান /উত্তর ২০২২ (১২তম সপ্তাহ) | লালসালু উপন্যাসের প্রেক্ষাপটে ব্যক্তির টিকে থাকার সংকট ও নীতিবোধের দ্বন্দ্ব | এইচএসসি ১২তম সপ্তাহের বাংলা অ্যাসাইনমেন্ট প্রশ্ন ও উত্তর ২০২২

 

এইচএসসি বাংলা ১ম পত্র এসাইনমেন্ট সমাধান /উত্তর ২০২২ (১২তম সপ্তাহ) | লালসালু  উপন্যাসের প্রেক্ষাপটে ব্যক্তির টিকে থাকার সংকট ও নীতিবোধের দ্বন্দ্ব | এইচএসসি ১২তম সপ্তাহের বাংলা অ্যাসাইনমেন্ট প্রশ্ন ও উত্তর ২০২২

এইচএসসি বাংলা ১ম পত্র এসাইনমেন্ট সমাধান /উত্তর ২০২২ (১২তম সপ্তাহ) |এইচএসসি ১২তম সপ্তাহের বাংলা অ্যাসাইনমেন্ট প্রশ্ন ও উত্তর ২০২২

অ্যাসাইনমেন্ট এর শিরোনাম

' লালসালু ' উপন্যাসের প্রেক্ষাপটে ব্যক্তির টিকে থাকার সংকট ও নীতিবোধের দ্বন্দ্ব

√ মজিদের টিকে থাকার সংকট :

সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহর ' লালসালু ' উপন্যাসের মূল চরিত্র মজিদ নিজেকে টিকে রাখার জন্য নানা রকমের পন্থা অবলম্বন করেন । যদিও তার ছিল টিকে থাকার নানাবিধ সংকট । নিচে তা লেখা হলো :

১. আত্মবিশ্বাসের অভাব :

মজিদের মনে সর্বদা আত্মবিশ্বাসের এক ঘাটতি দেখা দিত যে সে একদিন হয়তো ধরা পড়ে যাবে । তাইতো সে গ্রামে স্কুল প্রতিষ্ঠায় বাধা প্রয়োগ করে ।

২. সবার মন জয় না করতে পারা :

মজিদ অনেক গ্রামবাসীর মন জয় করতে পারলেও কিছু কিছু লোকের মন জয় করতে পারে নি যা তাকে টিকে থাকার সংকটে নিমজ্জ্বিত করে ।

৩. মজিদের একাকিত্ব :

মজিদ সর্বদা নিজেকে একা মনে করত । কেননা যাদের সাথে তার সম্পর্ক ছিল তা সবই বাহিরের , অন্তরে বা আবেগের নয় । আর সে এই আবেগ প্রকাশ করতেও পারে না । কারণ প্রকাশ করলেই তার তিল তিল করে করে গড়া মিথ্যা সাম্রাজ্য ধ্বংস হয়ে যাবে ।

৪. প্রতারণার আশ্রয় গ্রহণ :

মজিদ নিজেকে টিকিয়ে রাখতে যে মিথ্যার আশ্রয় নিয়েছিল তা তা কখনোই স্থায়ী হতে পারে না । এটা যেকোনো সময় ভেঙ্গে পড়তে পারে । তাই প্রতারণার আশ্রয় মজিদের টিকে থাকার অন্যতম সংকট ।

√ মজিদের নেওয়া পদক্ষেপ :

মজিদ নিজেকে টিকিয়ে রাখার জন্য বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেন । যেমন :

১. মাজারকে কেন্দ্র করে বিশ্বাসস্থাপনের চেষ্টা :

বাংলাদেশের গ্রামের সব মানুষই ধর্মের প্রতি দূর্বল । ফলে সে দূর্বলতাকে কাজে লাগিয়ে গ্রামবাসীর মন যেন জয় করা যায় মজিদ তা চেষ্টা করেন । আর এ জন্য সে মক্তব চালুরও পরিকল্পনা করেন । মাজার একটি ধর্মীয় স্থান যা মানুষের আবেগের সাথে জড়িত তা কখনোই ব্যবসায়ের হাতিয়ার হতে পারে না ।

২. স্কুল প্রতিষ্ঠা করতে না দেয়া :

গ্রামে স্কুল প্রতিষ্ঠা হলে সবাই একদিন শিক্ষিত হবে ফলে তার কূকর্ম ফাঁস হয়ে যাবে । তাই সে পরিকল্পনা করে গ্রামে স্কুল প্রতিষ্ঠা করতে দেয়নি । আর এটা অবশ্যই নীতি বিরোধী কাজ ; কেননা এতে সমাজ ও দেশের অগ্রগতি থমকে দাঁড়ায় যা কখনো কাম্য নয় ।

৩. একাধিক বিয়ে করা :

প্রথম স্ত্রী সন্তান দিতে অক্ষম হওয়ায় সে দ্বিতীয় বিয়ে করেন যেন সে নিজের সন্তান জন্মের মাধ্যমে নিজের টিকে থাকা স্থায়ী হয় । অসৎ উদ্দেশ্যে একাধিক বিয়ে বা সন্তান কামনা কোনভাবেই ঠিক নয় ।

৪. প্রভাব - প্রতিপত্তি স্থাপন :

মজিদ যেন যেকোন সমস্যা সহজেই সামাল দিতে পারে সেজন্য খালেক ব্যাপারীর সান্নিধ্য এবং হাতের মুঠোয় নিয়ে আসেন । ফলে গ্রামে তার প্রভাব প্রতিপত্তি স্থাপিত হয় । নিজের প্রভাব বৃদ্ধির জন্য অসৎ লোকের সঙ্গ দেয়া ঠিক কাজ নয় ।

সমাজজীবনে ব্যক্তির টিকে থাকার সংকট :

একজন ব্যক্তিকে বিভিন্ন কারণে সমাজ জীবনে টিকে থাকতে নানা রকমের সংকট অতিক্রম করতে হয় । নিচে সেসব সংকট কারণসহ ব্যাখ্যা করা হলো :

১. কর্মসংস্থানের সংকট :

বর্তমানে দেশে কর্মসংস্থানের ব্যাপক সংকট । আর এই বেকার জীবন নিয়েই পরিবার চালানো সবার পক্ষে সম্ভবপর হয় না । ফলে সমাজে মর্যাদার সহিত চলাচল সম্ভব হয় না ।

২. মূল্যবোধের সংকট :

বর্তমানে সবাই এখন নিজ নিজ স্বার্থ নিয়ে ব্যস্ত । ফলে কেউ কারও খোঁজ খবর নেয় না । আর এজন্য অভাবীরা সমাজে মানবেতর জীবন যাপন করেন ।

৩. জায়গা জমির সংকট : - বাচ্চাদের মেধা বিকাশ কিংবা শারীরিকভাবে সুস্থ থাকতে অবশ্যই পর্যাপ্ত জায়গা জমির প্রয়োজন । কিন্তু এই জমির সংকট এখন সর্বত্র । এছাড়াও কৃষি জমি এবং বসবাসের জায়গারও সংকট দেখা দিয়েছে।ফলে সমাজে ঠিকভাবে বসবাস করা অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে ।

√√ টিকে থাকার সংকট ও নীতিবোধের সম্পর্ক ব্যাখ্যা :

জীবনে টিকে থাকা এবং নীতিবোধ যেন একে অন্যের পরিপূরক । নিচে সে সম্পর্ক ব্যাখ্যা করা হলো :

বর্তমান সময়ে সবাই ভাল - মন্দ না ভেবে অর্থের পিছনে ছোটাছুটি করে যেন ভালোভাবে সমাজে টিকে থাকতে পারে । তারা সবসময় চায় নিজেকে অন্যের উপরে রাখতে ফলে তারা ভুলে যায় নৈতিকতা ও নীতিবোধ । আর সমাজ ও জাতি পড়ে থাকে অন্ধকার গুহায় । যেমনটা ' লালসালু ' উপন্যাসে মজিদের মধ্যে পরিলক্ষিত হয় । কেননা গল্পে মজিদ নিজিকে টিকিয়ে টাকার উদ্দেশ্যে প্রতারণার আশ্রয় নেয় ।

সহজ সরল গ্রামবাসীকে ঠকিয়ে প্রতিষ্ঠিত করে নিজের অবস্থান । কিন্তু তার এই পদক্ষেপ ছিল একজন মানুষের নীতিবোধের বিপরীত । ফলে সমাজ আলোর পথ দেখতে পায় না । যদিও সে তার নীতিবোধ জাগ্রত করে নিজের সত্য সবার মাঝে প্রকাশ ইচ্ছা পোষন করেন । কিন্তু কোট একবার নিতীর দিক হতে দূরে সরে চলে গেলে পরে আর ফেরত আনা সবার পক্ষে সম্ভব হয় না । ফলস্বরুপ আজীবন তাকে নীতিবোধের বিপরীতে নিজেকে পরিচালিত করতে হয় । যা সর্বদা সত্য এবং দৃশ্যমান । যদিও কিছু মানুষ নিজেকে টিকিয়ে রাখার জন্য কখনো নীতিবোধ হতে দূরে সরে যায় না । কিন্তু পরিতাপের বিষয় তা বর্তমানে চোখে পড়ে না ।

তাই পরিশেষে আলোচনা শেষে এখন এই কথা সহজেই বলা যায় যে , একজনকে জীবনে টিকে থাকা যেমন জরুরী তেমনি তার মধ্যে নীতিবোধ থাকাও আবশ্যক । তাহলেই সমাজ ও জাতি উন্নতির দিকে অগ্রসর হবে ।

টাগঃএইচএসসি বাংলা ১ম পত্র এসাইনমেন্ট সমাধান /উত্তর ২০২২ (১২তম সপ্তাহ),  লালসালু  উপন্যাসের প্রেক্ষাপটে ব্যক্তির টিকে থাকার সংকট ও নীতিবোধের দ্বন্দ্ব, এইচএসসি ১২তম সপ্তাহের বাংলা অ্যাসাইনমেন্ট প্রশ্ন ও উত্তর ২০২২

 
Previous Post Next Post
আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন