এইচএসসি বিএম (BM) ১১তম সপ্তাহের মার্কেটিং নীতি ও প্রয়োগ এসাইনমেন্ট সমাধান /উত্তর ২০২১|উৎকৃষ্ট প্রতিলিপি বিজ্ঞাপনের উদ্দেশ্য পূরণে সক্ষম আলোচনা | এইচএসসি বিএম মার্কেটিং নীতি ও প্রয়োগ এসাইনমেন্ট সমাধান /উত্তর ২০২১ (১১তম/একাদশ সপ্তাহ) PDF

 

এইচএসসি বিএম (BM) ১১তম সপ্তাহের মার্কেটিং নীতি ও প্রয়োগ এসাইনমেন্ট সমাধান /উত্তর ২০২১|উৎকৃষ্ট প্রতিলিপি বিজ্ঞাপনের উদ্দেশ্য পূরণে সক্ষম আলোচনা | এইচএসসি বিএম মার্কেটিং নীতি ও প্রয়োগ এসাইনমেন্ট সমাধান /উত্তর ২০২১ (১১তম/একাদশ সপ্তাহ) PDF

       
       
              

    এইচএসসি বিএম ১১তম সপ্তাহের মার্কেটিং নীতি ও প্রয়োগ এসাইনমেন্ট সমাধান /উত্তর ২০২১

    নিচে যে সকল বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

    •  বিজ্ঞাপন প্রতিলিপি এর ধারণা বর্ণনা করতে হবে। 
    • বিজ্ঞাপন প্রতিলিপি এর বৈশিষ্ট বর্ণনা করতে হবে।
    • বিজ্ঞাপন প্রতিলিপি লেখার পদক্ষেপ বর্ণনা করতে হবে ।
    • বিজ্ঞাপন প্রতিলিপি এর প্রকারভেদ বর্ণনা করতে হবে ।

    এইচএসসি বিএম মার্কেটিং নীতি ও প্রয়োগ এসাইনমেন্ট সমাধান /উত্তর ২০২১ (১১তম/একাদশ সপ্তাহ) PDF

    নিচে থেকে এসাইনমেন্ট শুরু

    শিরোনামঃ-উৎকৃষ্ট প্রতিলিপি বিজ্ঞাপনের উদ্দেশ্য পূরণে সক্ষম আলোচনা

    ১ নং প্রশ্নের উত্তর " 

    বিজ্ঞাপন প্রতিলিপি 

    আধুনিক বিজ্ঞাপনের ক্ষেত্রে প্রতি লিপি লেখার মূল উদ্দেশ্য থাকে পণ্যের অভাব পূরণক্ষম সম্ভাব্য গুণাগুণ ক্রেতার নিকট তুলে ধরা । প্রতিলিপি এমন ভাবে তৈরি হওয়া উচিত , যাতে পণ্যের পরিচয় , পণ্যের গুণাগুণ ও ব্যবহার বিজ্ঞাপনে প্রকাশ পায় । প্রতিলিপির ভাষা হতে হবে সহজ - সরল ।

     প্রতিলিপি বিজ্ঞাপনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ । আধুনিক প্রতিযোগিতাপূর্ণ বাজারে বিজ্ঞাপনদাতার উদ্দেশ্য হচ্ছে নিজের পণ্য সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য সম্ভাব্য ক্রেতাদের নিকট উপস্থাপন করা এবং তাদের ক্রয় সিদ্ধান্তে প্রভাব বিস্তার করা । বিজ্ঞাপন প্রতিনিধির বিভিন্ন শ্রেণীবিভাগ একজন প্রতিনিধিকে লেখককে একটি নির্দিষ্ট বিজ্ঞাপনের প্রচার করার জন্য একটি নির্দিষ্ট ধরন অনুসরণ করতে উৎসাহিত করে ।

    অবশেষে বলা যায় যে , আধুনিক বিজ্ঞাপন প্রতিলিপিতে যেসব পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়ে থাকে প্রত্যেকটি ব্যবস্থার উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে । তবে প্রতিলিপি লিখতে যে পদ্ধতিই অনুসরণ করা হোক না কেন নির্দিষ্ট ভোক্তাগনের চাহিদাকে বিবেচনায় রেখে সে অনুসারে সহজ ও সরল ভাষায় তা তৈরি করা উচিত । 

    ২ নং প্রশ্নের উত্তর "

     বিজ্ঞাপন প্রতিলিপির বৈশিষ্ট্য 

    প্রতিলিপি বিজ্ঞাপনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ । আধুনিক প্রতিযোগিতাপূর্ণ বাজারে বিজ্ঞাপনদাতার উদ্দেশ্য হচ্ছে নিজের পণ্য সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য সম্ভাব্য ক্রেতাদের নিকট উপস্থাপন করা এবং তাদের ক্রয় সিদ্ধান্তে প্রভাব বিস্তার করা । নিম্নে বিজ্ঞাপন প্রতিলিপির কিছু বৈশিষ্ট্য তুলে ধরা হলোঃ "

     সংক্ষিপ্ততা "

     একটি উত্তম প্রতিলিপির প্রথম ও প্রধান বৈশিষ্ট্য হল সুনির্দিষ্ট ঊদ্দেশ্যকে সামনে রেখে যতটা সম্ভব সংক্ষিপ্ত করা । প্রতিলিপির | প্রতিটি লাইন যেন সহজ পাঠ করা অথবা শ্রবণ করা যায় এবং তার গুরুত্ব ও অর্থ যাতে সহজবোধ্য হয় সেদিকে লক্ষ্য রেখে প্রতিলিপি তৈরি করতে হবে । তবে সংক্ষিপ্ত করার ক্ষেত্রে লক্ষ্য রাখতে হবে তার জন্য অস্পষ্ট বা অসম্পূর্ণ না হয়ে যায় অথবা মূল  বক্তব্য বাদ না পড়ে। 

    স্পষ্টতা

    একটি উত্তম প্রতিলিপির জন্য অন্য একটি বিশেষ গুণ বৈশিষ্ট্য হল ভাষার স্পষ্টতা ,বিজ্ঞাপনে ব্যবহৃত ভাষা যদি অস্পষ্ট থেকে যায় তবে তা পাঠকের বা শ্রোতার বোধগম্য নাও হতে পারে , যার ফলে মূল উদ্দেশ্য ব্যাহত হয় । এজন্য প্রতিলিপি লেখক কে সর্বজনীন বা সহজ শব্দ ব্যবহার করতে হয় , যাতে ক্রেতারা তার অর্থ সহজে অনুধাবন করতে পারে , যেমন , জীবাণুমুক্ত পরিষ্কার গোসলের জন্য লাইফবয়। 

    “ ব্যক্তিগত আবেদন " 

    একটি প্রতিলিপি প্রণয়ন করার সময় অবশ্যই মনে রাখতে হবে বর্তমান ও সম্ভাব্য ক্রেতাদের উদ্দেশ্যে বিজ্ঞাপন দেওয়া হচ্ছে । তাই বিজ্ঞাপন প্রতিলিপিতে এমন ভাবে আবেদন করতে হয় , যাতে প্রত্যেক ক্রেতা বা ভোক্তা মনে করে শুধুমাত্র তার কাছে সরাসরি আবেদন করা হয়েছে । যেমন : আপনার সময় বাঁচানোর জন্য ওয়াশিং মেশিন ব্যবহার।

     সময়োপযোগিতা 

     কোন সময় প্রতিলিপিটি উপস্থাপন করলে কার্যকর হবে তা স্থির করা এবং সে অনুযায়ী তা প্রকাশ করা উত্তম প্রতিলিপির একটি উল্লেখযোগ্য দিক । যেমন : বৈদ্যুতিক পাখার যেন গ্রীষ্মকালে বিজ্ঞাপন দিলে সে আবেদন সৃষ্টি হবে ।

    " মিতব্যয়িতা "

     পণ্য বা সেবার ধরণ এবং বিজ্ঞাপনের জন্য খরচের তারতম্য হতে পারে । তারপরেও ব্যয়ের দিক লক্ষ্য রেখে বিজ্ঞাপন প্রতিলিপি প্রণয়ন করা আবশ্যক । যথাসম্ভব স্বল্পব্যয়ে মাধ্যমে প্রতিলিপি রচনা করা উচিত । স্বল্প ব্যয়ে প্রচলিত রচনা করে বিজ্ঞাপন দেয় কমে এবং কোম্পানির পণ্য উৎপাদনের বা অন্য কোনো ক্ষেত্রে অর্থ খরচ করতে পারে ।

    আন্তরিকতা ও বিশ্বাসযোগ্যতা " 

    সাধারণভাবে মানুষ পণ্য বিচারের বেলায় পণ্য অপেক্ষা তৃতীয় পক্ষের অভিমত দ্রুত মূল্যায়ন করতে পারে । সে কারণেই একজন ক্রেতা যাতে পণ্য সম্পর্কিত তথ্যাবলী সহজে গ্রহণ করতে পারে সে ব্যাপারে প্রতিলিপি প্রস্তুতকারীকে আন্তরিক ও বিশ্বাসযোগ্য হবে । 

    “ সঠিক চিত্রের ব্যবহার 

    প্রতিলিপিতে সঠিক চিত্র ব্যবহার করতে হবে ,যাতে করে কোনো অশুভন অশালীন এবং সামঞ্জস্যহীন চিত্র ব্যবহার করা না হয় । সে জন্য লেখককে যথেষ্ট সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে ।

      " নান্দনিক " 

    মানুষ মাত্রই সুন্দরের পূজারী । অর্থাৎ অসুন্দরের চেয়ে মানুষ সুন্দরের প্রতি অধিক মাত্রায় আকৃষ্ট হয় । সেজন্য প্রতিলিপি যথাসম্ভব নান্দনিক হতে হবে । যাতে করে প্রতিযোগিতার চেয়ে ব্যতিক্রম ধর্মী এবং নান্দনিক শব্দও ভাষা ব্যবহার করা সম্ভব হয় ।

      পরিশেষে বলা যায় যে , উল্লেখিত বৈশিষ্ট্যসমূহ বিজ্ঞাপন প্রতিলিপিতে বিদ্যমান থাকলে তা একটি উত্তম প্রতিলিপি বলে বিবেচিত হবে । তাই বিজ্ঞাপন প্রতিলিপি রচনার সময় উল্লেখিত উপাদানসমূহ গুরুত্বসহকারে বিবেচনা করতে হবে । এতে করে বিজ্ঞাপনটি অনেক সুন্দর হবে ।

    ৩ নং প্রশ্নের উত্তর " 

    প্রতিলিপি লিখার পদক্ষেপ " 

    প্রতিলিপি প্রণয়নের পূর্বে লেখককে এর মূল ধারা বা ভিত্তি নির্ধারণ করতে হয় । মূল ধারণা অস্পষ্ট কিংবা দুর্বল হলে উত্তম প্রতিলিপি তৈরির প্রচেষ্টা ব্যর্থ হবে । প্রতিলিপি গ্রাহকের মনে আগ্রহ বা উৎসাহ সৃষ্টি করতে পারলে বিজ্ঞাপনের কার্যকারিতা বৃদ্ধি পাবে । 

    নিম্নে বিজ্ঞাপন প্রতিলিপির কিছু পদক্ষেপ তুলে ধরা হলো : 

    কিসের বিজ্ঞাপন দেওয়া হচ্ছে " 

    প্রতিলিপি লেখককে নির্ধারণ করতে হবে , সে যে পণ্য বা সেবার বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি প্রণয়ন করেছে তার কোন কোন দিকগুলো আবেদন হিসেবে সম্ভাব্য ক্রেতাদের আকাঙ্ক্ষা সৃষ্টিতে কার্যকর হবে । আপাতদৃষ্টিতে মনে হতে পারে যে , বিক্রেতা নির্দিষ্ট পণ্য যেমন , ঠান্ডা পানীয় , ক্রিম , মোটর গাড়ির চাকা ইত্যাদি বিক্রি করছে । বস্তুত কেউই শুধু পণ্য বিক্রি করে না এবং পণ্য কি কাজে আসতে পারে সে দিকেই বেশি আলোকপাত করার টেস্ট করে। 

     কাদের উদ্দেশ্যে বিজ্ঞাপন দেওয়া হচ্ছে "

     প্রতিলিপি লেখককে অবশ্যই নির্ধারণ করতে হবে , কারা বিজ্ঞপ্তিত পণ্যের সম্ভাব্য ক্রেতা এবং তাদের চাহিদা কী । কারা তাদের পণ্য ক্রয় সিদ্ধান্তকে প্রভাবিত করে ইত্যাদি বিষয়গুলো মাথাই রেখে প্রস্তুত করতে হবে । সম্ভাব্য ক্রেতাদের চিহ্নিত করা ছাড়াও কপি লেখককে নির্ধারণ করতে হবে যে , তারা কিসের ইঙ্গিত এর উপর নির্ভর করে পণ্য ক্রয়ের প্রচারিত হবে । যেমন : শিশু খাদ্য ও দুধের বিজ্ঞাপনে সুস্বাস্থ্য ও বিভিন্ন উপাদান দুধে বর্তমান কথা মায়েদের উদ্দেশ্যে বলতে হবে ।

    বিজ্ঞাপন বার্তা উপস্থাপন "

     সম্ভাব্য ভোক্তা তাদের অভাব এবং প্রেরণা , পণ্য এর অভাব পূরণীয় গুনাগুন এবং তা কিভাবে ক্রেতার স্বার্থ পূরণের কার্যকর ইত্যাদি সম্পর্কে পরিপূর্ণ ধারণা লাভ করার পর প্রতিলিপি লেখককে নির্ধারণ করতে হবে , কত সুন্দর ভাবে তা বার্তার মাধ্যমে পণ্য এবং সম্ভাব্য ক্রেতাদের একত্রিত করা যায় । যেমন , বিজ্ঞাপনে সুন্দরভাবে আঠা লাগিয়ে নানা স্থানে লাগালে তা সুন্দরভাবে ফুটে উঠেছে।

    কোথায় এবং কিভাবে বিজ্ঞাপিত পণ্য ক্রয় হবে

     প্রতিলিপি লেখককে এক্ষেত্রে নির্ধারণ করতে হবে পণ্যটি কি ধরনের বন্টন প্রণালী দ্বারা অভীষ্ট বাজারে পৌঁছাবে । পণ্যটি যদি সরাসরি বিক্রয় এর ব্যবস্থা করা হয় তবে প্রতিলিপির ধরন যেমন হবে মধ্যস্থ কারবারিদের নিকট বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে প্রণীত প্রতিলিপি তেমন হবে না । প্রতিলিপি প্রণয়নকারী কে পূর্ব থেকেই অবগত থাকতে হবে কোন ধরনের ক্রেতাদের নিকট কিভাবে পণ্য বিক্রি করা হবে।

     " বিজ্ঞাপিত পণ্য কখন ক্রয় বাবদ করা হবে "

     তাৎক্ষণিক ক্রয় ও ভবিষ্যতের উদ্দেশ্যে প্রদত্ত বিজ্ঞাপনের আবেদন আর ভবিষ্যৎ ক্রয়ের উদ্দেশে আমন্ত্রণ জানানো বিজ্ঞাপনের আবেদন এক হবে না । তাছাড়া বিশেষ উৎসব উপলক্ষে প্রদত্ত বিজ্ঞাপন প্রতিলিপি স্বাভাবিক অবস্থায় প্রদত্ত প্রতিলিপি থেকে ভিন্ন হবে ।  

    পরিশেষে বলা যায় যে , উল্লেখিত পদক্ষেপগুলো অনুসরণ বা গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করে এ পর্যায়ে প্রতিলিপি রচনাকারী কে বিজ্ঞাপন প্রতিলিপি রচনা করে তা সম্প্রচারের ব্যবস্থা করতে হয় । 

    মোটকথা , বিজ্ঞাপন এর মুখ্য বিষয় বস্তু প্রকাশের কাজটি সুন্দর স্পষ্ট ও যথার্থ শব্দ ব্যবহারে সম্পন্ন হয়ে থাকে । কাজেই কোন শব্দ ব্যবহারের পূর্বে প্রতিলিপি লেখককে এসব পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে । 

    ৪ নং প্রশ্নের উত্তর "

     বিজ্ঞাপন প্রতিলিপির প্রকারভেদ 

    বিভিন্ন ধরনের বিজ্ঞাপন প্রতিলিপি তৈরি করা যায় । প্রতিলিপি কে শ্রেণীবিন্যাস বা সাজসজ্জা , নির্দিষ্ট বা সাধারণ এবং প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ কাজের ভিত্তিতে বিবেচনা করা যায় । আবার আবেগ , সংবাদ , প্রকাশ্য ঘোষণা , কল্পনা , ব্যক্তিকেন্দ্রিক বা বর্ণনামূলক ইত্যাদি ভিত্তিতে প্রতিলিপির শ্রেণীবিন্যাস করা যায় ।

    বিজ্ঞাপন প্রতিলিপির প্রকারভেদ

     নিম্নে প্রতিলিপির প্রকারভেদ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো :

     “ কমিক স্ট্রীপস " 

     আধুনিক কমিক স্ট্রিপ এবং কার্টুন প্রতিলিপি হল সামান্য সংশোধিত বিজ্ঞাপন এর পূর্ণরূপ । এরূপ প্রতিলিপির মূল বৈশিষ্ট্য হলো কথোপকথন এবং ছবির সমন্বয়ে বিজ্ঞাপনদাতার বার্তা স্থাপন করা , যা বিনোদন পদ্ধতির মাধ্যমে বিজ্ঞাপনদাতার বিক্রয় সংবাদ পৌঁছে দেয় । যেমন : কমিক স্ট্রিপস ও কার্টুন বিজ্ঞাপন শিশু - কিশোরদের নিকট খুবই জনপ্রিয়।

     কনটেস্টস "

     কনটেস্ট বিজ্ঞাপনের আধুনিক রূপ হিসেবে বহুল ব্যবহৃত মাধ্যম । কনটেস্ট জাতীয় প্রতিলিপিতে দ্রব্যের গুনাগুন সম্পর্কে খুব কমই উল্লেখ থাকে । পক্ষান্তরে , প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে ব্যক্তিগত লাভের সম্ভবনা টি উল্লেখ করা হয় । এ ধরনের বিজ্ঞাপন প্রতিলিপিতে সাধারণত নিম্ন শিরোনাম ব্যবহৃত হয়। 

     প্রিমিয়াম " 

    প্রিমিয়াম পদ্ধতি কনটেস্ট পদ্ধতির মতোই পরোক্ষভাবে ক্রেতাকে পণ্য ক্রয় উদ্বুদ্ধ করে । প্রিমিয়াম ক্রেতাকে বিশেষ ব্র্যান্ডের একের অধিক কোন করে উৎসাহিত করে বা ক্রয় কৃত পণ্যের উপরে কিছু সুবিধা প্রদান করে।

    পরিশেষে বলা যায় যে , আধুনিক বিজ্ঞাপন প্রতিলিপিতে যেসব পদ্ধতি ব্যবহৃত হয়ে থাকে সেগুলোর মধ্যে প্রিমিয়াম পদ্ধতি সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয় । তবে প্রতিলিপি লিখতে যে পদ্ধতি অনুসরণ করা হোক না কেন নির্দিষ্ট ভোক্তাগনের চাহিদাকে বিবেচনায় রেখে সে অনুসারে সহজ এবং সরল ভাষায় তৈরি করা উচিত । 


    Tag:এইচএসসি বিএম (BM) ১১তম সপ্তাহের মার্কেটিং নীতি ও প্রয়োগ এসাইনমেন্ট সমাধান /উত্তর ২০২১,উৎকৃষ্ট প্রতিলিপি বিজ্ঞাপনের উদ্দেশ্য পূরণে সক্ষম আলোচনা,এইচএসসি বিএম মার্কেটিং নীতি ও প্রয়োগ এসাইনমেন্ট সমাধান /উত্তর ২০২১ (১১তম/একাদশ সপ্তাহ) PDF

    Previous Post Next Post