সহবাস/মিলনের বিভিন্ন আসনের ছবি,চিত্র,পিকচার | সহবাসের বিভিন্ন স্টাইল |সহবাস করার নিয়ম পদ্ধতি,ছবি



আসছালামু আলাইকুম প্রিয় পাঠক সবাই কেমন আছেন।আসা করি সবাই আল্লাহর রহমতে ভালো আছেন।  প্রিয় পাঠক আজকে আমরা কি বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে যাচ্ছি বা কি শেয়ার করবো আসা করি টাইটেল দেখেই বুঝে গেছেন। তাহলে চলুন শুরু করা যাক ।

       
       
         

    সঠিক পদ্ধতিতে সহবাস করার নিয়ম |সহবাস করার নিয়ম পদ্ধতি

    প্রথমেই আমরা সহবাস করার নিয়ম নিয়ে আলোচনা করবো। সেটা জানা আমাদের প্রাপ্ত বয়স্ক সকলের জানা উচিত। সহবাস বা মিলনের প্রথম শর্ত হলো পার্টনারের প্রতি শ্রাওদ্ধাশীল হওয়া। সহবাস করার অনেক নিয়ম রয়েছে। কিন্তু এই গুলো জানা এতটা জরুরি নয়। আপনি বা আপনার পার্টনার কি রকম বা কোন পদ্ধতিতে সহবাসে তৃপ্তি পান সেটা গুরুত্বপূর্ণ। আগে আপনাদের এটা খুজে বের করতে হবে। তখন উভয়ে সহবাসে আনন্দ পাবেন। সহবাস করার সময় নিজে যে তৃপ্তি পাচ্ছেন। আপনার সঙ্গিনী কি তৃপ্তি পাচ্ছে সে দিকে লক্ষ রাখবেন এটা সহবাসে অনেক গুরুত্বপূর্ণ। যা সকল পুরুষের সহবাসের সময় মনে রাখা উচিত।

    সহবাসের স্বাভাবিক পন্থা হলো এই যে, স্বামী উপরে থাকবে আর স্ত্রী নিচে থাকবে। প্রত্যেক প্রাণীর ক্ষেত্রেও এই স্বাভাবিক পন্থা পরিলক্ষতি হয়। সর্বপরি এ দিকেই অত্যন্ত সুক্ষভাবে ইঙ্গিত করা হয়েছে আল কুরআনে।

    আয়াতের অর্থ হলোঃ "যখন স্বামী -স্ত্রীকে ঢেকে ফেললো তখন স্ত্রীর ক্ষীণ গর্ভ সঞ্চার হয়ে গেলো।"

    আর স্ত্রী যখন নিচে থাকবে এবং স্বামী তার উপর উপুড় হয়ে থাকবে তখনই স্বামীর শরীর দ্বারা স্ত্রীর শরীর ঢাকা পড়বে। তাছাড়া এ পন্থাই সর্বাধিক আরামদায়ক। এতে সহবাস করার সময় স্ত্রীরও কষ্ট সহ্য করতে হয়না এবং গর্ভধারণের জন্যেও তা উপকারী ও সহায়ক। বিখ্যাত চিকিতসা বিজ্ঞানী বু-আলী ইবনে সীনা তার অমর গ্রন্থ "কানুন" নামক বইয়ে এই পন্থাকেই সর্বোত্তম পন্থা হিসেবে উলেখ করেছেন এবং 'স্বামী নিচে আর স্ত্রী উপরে' থাকার পন্থাকে নিকৃষ্ট পন্থা বলেছেন। কেননা সহবাসের সময় এতে পুংলিংগে বীর্য আটকে থেকে দুর্গন্ধ যুক্ত হয়ে কষ্টের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তাই অবশ্যই আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে যেন সহবাস করতে গিয়ে আনন্দঘন মুহুর্তটা পরবর্তিতে বেদনার কারণ হয়ে না দাড়ায়।

    সহবাসের আগে স্বামীর কর্তব্য

    ১। স্বামীর কর্তব্য হলো স্ত্রীকে ভালোবাসা দিয়ে নিজের তৃপ্তির সঙ্গে সঙ্গে তারও দৈহিক ও মানসিক তৃপ্তি বিধান করা।
    নিজের চাহিদা পুরন করাই সহবাসের একমাত্র লক্ষ্য হওয়া উচিত নয়।

    ২।  কোন প্রকার শক্তি প্রয়োগ করা আদৌ বাঞ্ছনীয় নয়।

    ৩। স্ত্রীকে পুরাপুরি আলিঙ্গন করে তার কামবাব জাগার পর সহবাস শুরু করা প্রতিটি স্বামীর কর্তব্য।

    ৪। নারী কখনো তার কামবাবের চাহিদা মুখে বলবে না সেটা একজন স্বামীকে বুঝে নিতে হবে।

    সহবাসে নারীর কর্তব্য

    ১। নারীর কর্তৃব্য সর্বদা স্বামীর প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালবাসার ভাব ফুটিয়ে তোলা।

    ২। সহবাসের ইচ্চা অনিচ্চা স্বামীকে সুন্দর করে বুঝিয়ে দেওয়া। ঘৃণা বা বিরক্তিসূচক তিরস্কার করা কখনও উচিত নয়।

    ৩। স্বামী যখন সহবাসের জন্য আলিঙ্গন, চুম্মন দিবে সে গুলোর প্রতিউত্তর দেওয়া।

    ৪।  নারীর পূর্ণ কামভাব জাগলে স্বামীকে কৌশলে তা বুঝিয়ে দেওয়া উচিত।

    নোটঃ একজন নারীর উত্তেজনা ধীরে ধীরে আসে আবার ধীরে ধীরে তৃপ্ত হয়। আর পুরুষের উত্তেজনা তারি তারি আসে আবার তারা তারি শেষ হয়ে যায়। তাই নারীর পুরাপুরি কামবাব জাগার পর সহবাস শুরু করতে হবে।

    সহবাস/মিলনের বিভিন্ন আসনের ছবি,চিত্র,পিকচার  | সহবাসের বিভিন্ন স্টাইল

    প্রিয় পাঠক মিলনের অনেক স্টাইল রয়েছে আমরা এখানে গুরুত্বপূর্ণ কিছু সহবাস/মিলনের বিভিন্ন আসনের ছবি,চিত্র,পিকচার শেয়ার করবো। এই গুলো যেহেতু গুগলে পিকচার আকারে আমরা ড্রাইবে দিয়েছি৷ নিচে ড্রাইব লিংক দেওয়া হলো ডাউনলোড করে নিন।

    সহবাস করার নিয়ম পদ্ধতি,ছবি

    Click Here To Download

    মিলনের বিভিন্ন আসনের ছবি

    মিলনের বিভিন্ন আসনের চিত্র

    সহবাসের বিভিন্ন স্টাইল

    সহবাস করার বিভিন্ন পদ্ধতি ছবি

    সহবাস করার নিয়ম পদ্ধতি

    সঠিক পদ্ধতিতে সহবাস করার নিয়ম

    গর্ভাবস্থায় সহবাস করার বিভিন্ন পদ্ধতি ছবি

    Tag:মিলনের বিভিন্ন আসনের ছবি,মিলনের বিভিন্ন আসনের চিত্র,সহবাসের বিভিন্ন স্টাইল,সহবাস করার বিভিন্ন পদ্ধতি ছবি,সহবাস করার নিয়ম পদ্ধতি,সঠিক পদ্ধতিতে সহবাস করার নিয়ম,গর্ভাবস্থায় সহবাস করার বিভিন্ন পদ্ধতি ছবি
         

    Previous Post Next Post