একটি পরিবাহী তারের রোধের হ্রাস ও বৃদ্ধির কারণে এর মধ্য দিয়ে প্রবাহীত তড়িৎ প্রবাহ বৃদ্ধি ও হ্রাস পায়,ব্যাখ্যা কর | এসএসসি (ভোকেশনাল) এসাইনমেন্ট ২০২১ উত্তর /সমাধান ৫ম সপ্তাহের পদার্থ বিজ্ঞান-২ (এসাইনমেন্ট ৪) | ২০২১ সালের এসএসসি (ভোকেশনাল) ৫ম সপ্তাহের পদার্থ বিজ্ঞান-২ এসাইনমেন্ট সমাধান


    এসএসসি (ভোকেশনাল) এসাইনমেন্ট ২০২১ উত্তর /সমাধান ৫ম সপ্তাহের পদার্থ বিজ্ঞান-২ (এসাইনমেন্ট ৪)  


    একটি পরিবাহী তারের রোধের হ্রাস ও বৃদ্ধির কারণে এর মধ্য দিয়ে প্রবাহীত তড়িৎ প্রবাহ বৃদ্ধি ও হ্রাস পায়,ব্যাখ্যা কর


    সমাধানঃ

    ১. তড়িৎ প্রবাহের ধারণাঃ

    তড়িৎ প্রবাহ হচ্ছে আহিত কণার ( যেমন : ইলেকট্রন অথবা আয়ন ) প্রবাহ যা কোন তড়িৎ পরিবাহক বা শূন্যস্থানের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয় । কোন ক্ষেত্র বা কন্ট্রোল ভলিউমের মধ্য দিয়ে তড়িৎ আধানের প্রবাহের নিট হারের মাধ্যমে এটি পরিমাপ করা হয় ।
    তড়িৎ প্রবাহের এস.আই. একক হল অ্যাম্পিয়ার । প্রতি সেকেন্ডে এক কুলম্ব পরিমাণ আধান কোন প্রস্থচ্ছেদের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হলে তাকে এক অ্যাম্পিয়ার বলে । এটি এস.আই পদ্ধতির একটি মৌলিক একক ( প্রতীক : A ) তড়িৎ প্রবাহ পরিমাপ করা হয় অ্যামিটারের মাধ্যমে ।

    আমরা জানি যে , পানি , অধিক উচ্চতা থেকে নিম্ন উচ্চতার দিকে প্রবাহিত হয় , পানির পরিমাণের উপর নির্ভর করে না । যেমন পাহাড়ের বরফ গলা পানি নদী দিয়ে প্রবাহিত হয়ে সমুদ্রের পানিতে পড়ে । সমুদ্রে এত পানি থাকা সত্ত্বেও নদী দিয়ে পাহাড়ে উঠেনা । একই ভাবে তাপ , উচ্চ তাপমাত্রা থেকে নিম্ন তাপমাত্রার দিকে প্রবাহিত হয় , তাপের পরিমাণের উপর নির্ভর করে না । ঠিক তেমনি আধান , উচ্চ বিভব থেকে নিম্ন বিভবের দিকে প্রবাহিত হয় , আধানের পরিমাণের উপর নির্ভর করে না । একেই আমরা চলতড়িৎ বলি । প্রতি সেকেন্ডে যে কোনাে প্রস্থচ্ছেদের পরিবাহীর মধ্য দিয়ে যে পরিমাণ আধান প্রবাহ হয় তাকে তড়িৎ প্রবাহ বলে ।




    ২. পরিবাহী অপরিবাহী ও অর্ধপরিবাহীঃ

    পরিবাহীঃ যেসব পদার্থের মধ্য দিয়ে আধান সহজে প্রবাহিত হতে পারে সে সব পদার্থকে পরিবাহী বলে , যেমন- সােনা , রুপা , তামা , লােহা ইত্যাদি । মূলতঃ সকল ধাতব পদার্থই পরিবাহী । পরিবাহী পদার্থে আধান প্রদান করলে আধানগুলাে কোনাে জায়গায় আবদ্ধ না থেকে সমস্ত পরিবাহীতে ছড়িয়ে পরে । তাই দুটি আহিত বস্তুকে কোনাে পরিবাহী । দিয়ে যুক্ত করলে সহজেই আধান এক বস্তু থেকে অপর বস্তুতে সঞ্চালিত হয়ে তড়িৎ প্রবাহের সৃষ্টি করে । পরিবাহী তড়িৎ প্রবাহে বাধা দান করে না বললেই চলে । পরিবাহী পদার্থকে তাপ প্রয়ােগ করলে তড়িৎ প্রবাহে বাধা দান করার ক্ষমতা বৃদ্ধি পায় ।

    অপরিবাহীঃ যেসব পদার্থের মধ্য দিয়ে আধান প্রবাহিত হতে পারে সে সব পদার্থকে অপরিবাহী বলে , যেমন - কাচ , কাঠ , প্লাস্টিক রাবার ইত্যাদি । 
    মূলতঃ প্রায় সকল অধাতব পদার্থই অপরিবাহী । অপরিবাহী পদার্থে আধান প্রদান করলে আধান কোথাও সঞ্চালিত না হয়ে অপরিবাহী পদার্থের যে স্থানে আধান প্রদান করা হয় সে স্থানেই আবদ্ধ থাকে । তাই দুটি আহিত বস্তুকে কোনাে অপরিবাহী দিয়ে যুক্ত করলে আধান এক বস্তু থেকে অপর বস্তুতে সঞ্চালিত হয় না ফলে তড়িৎ প্রবাহের সৃষ্টি করে না । অপরিবাহী তড়িৎ প্রবাহে বাধা দান করে ।

    অর্ধপরিবাহীঃ কিছু কিছু পদার্থ আছে যেমন- জার্মেনিয়াম , সিলিকন , যাদের তড়িৎ পরিবহন ক্ষমতা পরিবাহী এবং অপরিবাহী পদার্থের মাঝামাঝি অর্থাৎ যার মধ্য দিয়ে তড়িৎ প্রবাহ করতে পারে কিন্তু তা পরিবাহীর চেয়ে অনেক কম , কিন্তু অপরিবাহীর চেয়ে বেশী এদেরকে অর্ধপরিবাহী বলে । সিলিকন , জার্মেনিয়াম , ক্যাডমিয়াম সালফাইড , গ্যালিয়াম আর্সেনাইড ইত্যাদি অর্ধপরিবাহী পদার্থের উদাহরণ ।

    পরিবাহী এবং অর্ধ পরিবাহীর মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ পার্থক্য হলাে , পরিবাহীর তাপমাত্রা বৃদ্ধি করলে তড়িৎ প্রবাহের ক্ষমতা হ্রাস পায় , কিন্তু অর্ধপরিবাহীর তাপমাত্রা বৃদ্ধি করলে তড়িৎ প্রবাহের ক্ষমতা বৃদ্ধি পায় । এর অর্থ হলাে তাপমাত্রা বৃদ্ধি করলে পরিবাহীর রােধ বৃদ্ধি পায় আর অর্ধপরিবাহীর রােধ হাস পায় ।


    ৩. ওমের সূত্রঃ 

    নিন্মে চিত্র ও উদাহারণসহ ওমের সূত্রটি প্রতিপাদন করে পরিবাহীর রােধ এবং অ্যাসাইনমেন্ট এর ধারণাটি ব্যাখ্যা করা হল ।

    1826 খ্রিস্টাব্দে জার্মান বিজ্ঞানী জর্জ সাইমন ওহম প্রবাহমাত্রা ও বিভব - প্রভেদের মধ্যে সম্পর্ক একটি সূত্রের আকারে প্রকাশ করেন । সূত্রটি ওহমের সূত্র নামে পরিচিত । 


    ও'মের সূত্রঃ স্থির তাপমাত্রায় যে কোনাে নির্দিষ্ট পরিবাহীর মধ্য দিয়ে প্রবাহিত তড়িৎ প্রবাহ পরিবাহীর দুই প্রান্তের বিভব পার্থক্যের সমানুপাতিক ।

    এখানে G একটি সমানুপাতিক ধ্রুবক । এক পরিবাহীর তড়িৎ পরিবাহিতা বলে ।
    প্রবাহে বাধা দেয় তাকে রােধ বলে । পরিবাহীর তাপমাত্রা ও অন্যান্য ভৌত অবস্থা অপরিবর্তিত থাকলে রােধ অপরিবর্তিত থাকে । আবার পরিবাহী তারের রােধ হ্রাস বা বৃদ্ধি করলে এর মধ্য দিয়ে প্রবাহিত তড়িৎ হ্রাস বা বৃদ্ধি পায় । এর একক ওম । একে গ্রীক অক্ষর দিয়ে প্রকাশ করা হয় ।


    ২০২১ সালের এসএসসি (ভোকেশনাল) ৫ম সপ্তাহের পদার্থ বিজ্ঞান-২ এসাইনমেন্ট সমাধান



    Tag: এসএসসি (ভোকেশনাল) এসাইনমেন্ট ২০২১ উত্তর /সমাধান ৫ম সপ্তাহের পদার্থ বিজ্ঞান-২ (এসাইনমেন্ট ৪),  ২০২১ সালের এসএসসি (ভোকেশনাল) ৫ম সপ্তাহের পদার্থ বিজ্ঞান-২ এসাইনমেন্ট সমাধান, একটি পরিবাহী তারের রোধের হ্রাস ও বৃদ্ধির কারণে এর মধ্য দিয়ে প্রবাহীত তড়িৎ প্রবাহ বৃদ্ধি ও হ্রাস পায়,ব্যাখ্যা কর

    Previous Post Next Post

    👇 সকল ক্লাসের এসাইনমেন্ট নোটিফিকেশন আকারে সহজে পেতে ডাউনলোড করুন আমাদের এপ্লিকেশন 

    আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন