২০২২ সালের এইচএসসি/আলিম ষষ্ঠ সপ্তাহের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এসাইনমেন্ট সমাধান | এইচএসসি/আলিম ষষ্ঠ সপ্তাহের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২১


    এইচএসসি/আলিম ষষ্ঠ সপ্তাহের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২১

    তথ্য ও যােগাযােগ প্রযুক্তির মাধ্যমে কৃত্রিম পরিবেশে সৌরজগতের দৃশ্যাবলী অবলােকনের জন্য আগত দর্শনার্থীদের হাতের আঙ্গুলের ছাপ ও মানব সাদৃশ্য যন্ত্র দ্বারা নিরাপত্তা প্রদানে ব্যবহৃত প্রযুক্তিসমূহের ব্যাখ্যা ।


    ২০২২ সালের এইচএসসি/আলিম ষষ্ঠ সপ্তাহের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এসাইনমেন্ট সমাধান


    ভার্চুয়াল রিয়েলিটিঃ 

    ভাচুয়াল রিয়েলিটি হলাে কম্পিউটার এবং বিভিন্ন প্রকার সেন্সর এর সমন্বয়ে গঠিত একটি পরিবেশ যার অস্তিত্ব থাকতে পারে আবার সম্পূর্ণ কাল্পনিক হতে পারে । যেমন- সৌরজগতের ধারণাকে কাজে লাগিয়ে কম্পিউটার , স্পিকার , বিভিন্ন ছবি বা চিত্র বিশেষ পদ্ধতিতে এমন একটি পরিবেশ তৈরি করা হয় যা প্রদর্শনের পর দর্শকের মনে হবে যেন সে সৌরজগৎ প্রদক্ষিণ করেছেন । এখানে অভিজ্ঞতা এবং কল্পনা শক্তি কাজে লাগিয়ে প্রযুক্তির মাধ্যমে স্বপ্নের ভুবন তৈরি করা হয় । 

    বাস্তবজীবনে ভাচুয়াল রিয়েলিটির প্রয়ােগ ও প্রভাবঃ  

    শিক্ষাক্ষেত্রে ভার্চুয়াল বিযেলিটি : শিক্ষাক্ষেত্রে ভার্চুয়াল রিযেলিটি ব্যবহার করে শিক্ষা গ্রহণ ও প্রদান করা যায় । এর সুবিধা হলাে এখানে ত্রিমাত্রিক পরিবেশে পরস্পরের সাথে যােগাযােগ করে ছাত্র - ছাত্রীদের বিরাট বড় গ্রুপ তৈরি করা যায় । জোতির্বিদ্যার ছাত্রদের ভাচুয়াল রিয়েলিটি ব্যবহার করে অতি সহজে শিখানাে যায় সৌরমণ্ডল সম্পর্কে , কীভাবে গ্রহ চলমান থাকে । একটি ধূমকেতুর অগ্রগতি ট্র্যাক ইত্যাদি ত্রিমাত্রিক পরিবেশে সহজে বুঝানাে সম্ভব । যে সকল ছাত্র - ছাত্রী বিশেষভাবে অর্থাৎ চিহ্ন , রং এ অঙ্গ বিন্যাস ইত্যাদি ব্যবহার করে শিখতে পছন্দ করে ঔষধের ছবি দেখে শেখা , মেডিক্যালে অস্ত্রপাচার অনুশীলন এবং ত্রিমাত্রিক ছবি দেথে ছাত্র - ছাত্রীরা সহজে শিখতে পারবে । 

    সামরিক বাহিনীতে ভার্চুয়াল রিয়েলিটি : সামরিক বাহিনীতে ভার্চুয়াল রিয়েলিটি ব্যবহৃত হচ্ছে । তিনটি ( সেনা , নৌ , বিমান ) বাহিনীতেই এটি প্রশিক্ষণের কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে । ভার্চুয়াল রিয়েলিটি বিশেষ করে যুদ্ধকালীন পরিস্থিতি , অন্যান্য বিপজ্জনক পরিস্থিতি এবং এ সময় তাদের সঠিক করণীয় প্রশিক্ষণের জন্য ব্যবহৃত হয় । সামরিক বাহিনীতে যে সকল ক্ষেত্রে ভার্চুয়াল রিয়েলিটি ব্যবহৃত হয় 

    • ফ্লাইট অনুশীলনে  
    *যুদ্ধক্ষেত্রের অনুশীলনে 
    • ঔষধ সম্পর্কে প্রশিক্ষণে ( যুদ্ধক্ষেত্রে ) 
    • যানবাহন অনুশীলনে 
    *ভাচুয়াল বুট ক্যাম্প

    স্বাস্থ্যসেবায় ভার্চুয়াল রিয়েলিটি:
    স্বাস্থসেবায় ভার্চুয়াল রিয়েলিটি সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয় । বিশেষ করে অস্ত্রোপচারে এবং আতঙ্কগ্রস্ত রােগীদের চিকিৎসা , রােবটিক্স সার্জারি এবং চিকিৎসা প্রশিক্ষণে । ভার্চুয়াল রিয়েলিটির সুবিধা হলাে এটা ডাক্তারদের নিরাপদ পরিবেশে নতুন কিছু শিখতে বা অনুশীলন করতে সাহায্য করে এবং এতে রােগীদের কোনাে বিপদ ঘটছে না । 
    ভার্চুয়াল বােবটিক্স সার্জারি : 
    ভাচুয়াল রিয়েলিটি এর একটি জনপ্রিয় ব্যবহার হলাে রােবটিক্স | সার্জারি , যেখানে ডাক্তার দ্বারা পরিচালিত রােবটিক্স ডিভাইস কম সময়ে এবং কম জটিলতা ও কম ঝুঁকিসহ অপারেশন করে । ভার্চুয়াল রিয়েলিটি প্রশিক্ষণ কাজে ব্যবহার করা হয় এবং দূরবর্তী টেলি সার্জারি অর্থাৎ যেখানে ডাক্তার ও রােগী দুটি আলাদা স্থানে থাকে । এ পদ্ধতির আরাে একটি বৈশিষ্ট্য হলাে- ডাক্তারের যখন কোনাে হিসাব করার প্রয়ােজন হয় । রােবট তখন সেকেন্ডের মধ্যেই হিসাব করে সিদ্ধান্ত নিতে পারে । তাছাড়াও স্বাস্থ্যসেবায় দন্তচিকিৎসা , ঔষধ , নার্সিং , সার্জারি , অটিজম , প্রতিবন্ধীদের চিকিৎসায় ভাচুয়াল রিয়েলিটি ব্যবহার করা হয় ।

    বিনোদনে ভার্চুয়াল রিয়েলিটি ( Virtual Reality in Entertainment ) : 
    বিনােদনে ভাচুয়াল রিয়েলিটি অনেক ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হচ্ছে । এর জনপ্রিয় এলাকাগুলাে হচ্ছে • 

    Vভার্চুয়াল জাদুঘর , যেমন — মিথস্ক্রিয় প্রদর্শনী গ্যালারি 
    V থিয়েটার , যেমন — মিথস্ক্রিয় ক্রিয়াকাণ্ড 
    V ভাচুযেল থিম পার্ক 
    V আবিষ্কার কেন্দ্র 

    দর্শক সংশ্লিষ্টতাঃ যেসব পরিবেশে সাধারণের প্রদর্শনী আগে অজানা বা নিষিদ্ধ ছিল , সেখানে উচ্চ ক্ষমতার লেন্সসহ ভাচুয়াল রিয়েলিটি গ্লাস ( চশমা ) এর সাহায্যে ত্রিমাত্রিক বস্তু বিভিন্ন দিক থেকে দেখা যেত । উদাহরণস্বরূপ বলা যায় , একটি ঐতিহাসিক বিল্ডিং ( স্থাপনা ) জনসাধারণ বিভিন্ন দিক থেকে দেখতে পারেন । এর ফলে তারা ইতিহাসের নির্দিষ্ট সমযের মানুষের জীবন যাপন উপলব্ধি করতে পারে । তারা একটি ট্র্যাকিং সিস্টেম ( চশমা ) , যা তাদের চলাচ ( Movement ) ট্র্যাক করে কম্পিউটারে পাঠায় । কম্পিউটার দর্শকের উপলব্ধি পরিবর্তনের সাথে সাথে ইমেজ / ছবি পরিবর্তন করে । ভার্চুয়াল রিয়েলিটি গেইমিং বিনােদনের একটি জনপ্রিয় মাধ্যম । 

    ভার্চুয়াল রিয়েলিটি এবং হেরিটেজ : ভাচুয়াল রিয়েলিটি যাদুঘর এবং ঐতিহাসিক সেটিং এ ব্যবহৃত হয় । এই সেটিং এ জনগণ নতুন এবং উত্তেজনাপূর্ণ উপায়ে তথ্য ও যােগাযােগ মাধ্যমে ইন্টারেক্টিভ হয় ।
    শিশুদের জন্য মনােযােগের সাথে যাদুঘর প্রদর্শনী বিরক্তিকর । তাই ভার্চুয়াল রিয়েলিটি এর মাধ্যমে মিথস্ক্রিয়া পদ্ধতিতে শিশুদের এ বিরক্তি দূর করা যায় এবং দর্শক সংখ্যা বৃদ্ধি করা যায় । কিছু ভাচুয়াল রিয়েলিটি হেরিটেজ সাইট হলাে । 

    > স্মৃতিসৌধ ( Monuments ) ► STAT ( 53 ( Stonehenge ) 
    > ভাস্কর্য ( Sculptures ) 
    > গুহা ( Caves ) 
    > ঐতিহাসিক ভবন ( Historical Building ) 
    > প্রত্নতাত্বিক ফরম ( Archaeological dig ) 
    > প্রাচীন শহর ও গ্রাম ( Old towns and village) 

    ব্যবসায় ভার্চুয়াল রিয়েলিটি : বিভিন্ন উপায়ে ভার্চুয়াল রিয়েলিটি ব্যবসায় ব্যবহৃত হচ্ছে । যেমন 
    > একটি ভার্চুয়াল পরিবেশে ব্যবসায়িক ভ্রমণ 
    > নতুন কর্মীদের প্রশিক্ষণ একটি পণ্যের A360 দেখা 

    বায়ােমেট্রিক্স এর ধারনা , প্রকারভেদ ও প্রয়ােগক্ষেত্রঃ 

    গ্রীক শব্দ “ metron " অর্থ পরিমাপ এবং " bio " অর্থ জীবন , এ দু'টি শব্দ থেকে Biometrics শব্দের উৎপত্তি । বায়ােমেট্রিক্স হলাে এমন একটি পদ্ধতি যেখানে কোন ব্যক্তির দেহের গঠন এবং আচরণগত বৈশিষ্ট্যের উপর ভিত্তি করে তাকে অদ্বিতীয়ভাবে চিহ্নিত বা সনাক্ত করা যায় । কম্পিউটার বিজ্ঞানে বায়ােমেট্রিক পদ্ধতিকে ব্যক্তি সনাক্তকরণ এবং কোন সিস্টেমে প্রবেশের অধিকার নিয়ন্ত্রণের কৌশল হিসেবে ব্যবহার করা হয় । দেহের গঠন এবং আচরণগত বৈশিষ্ট্যের উপর ভিত্তি করে বায়ােমেট্রিক পদ্ধতি বিভিন্ন প্রকার হতে পারে । 
    যথা 
    ক . দেহের গঠন ও শারীরবৃত্তীয় বৈশিষ্ট্যের বায়ােমেট্রিক্স পদ্ধতি 
    ১. ফিংগার প্রিন্ট ( Fingerprint ) 
    ২. হ্যান্ড জিওমিট্রি ( Hand geometry ) 
    ৩. আইরিস এবং রেটিনা স্ক্যান ( Iris and retina scan ) 
    ৪. ফেইস রিকোগনিশন ( Face recognition )
    ৫. ডিএনএ টেস্ট ( DNA test ) 


    খ . আচরণগত বৈশিষ্ট্যের বায়ােমেট্রিক পদ্ধতি 
    ১. ভয়েস রিকগনিশন ( Voice recognition ) 
    ২. সিগনেচার ভেরিফিকেশন ( Signature verification ) 
    ৩. টাইপিং কীস্ট্রোক ( Keystroke verification ) 

    বায়ােমেট্রিক্স এর ব্যবহার: 

    বর্তমানে নিরাপত্তার কাজে বায়ােমেট্রিক্স পদ্ধতি ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হচ্ছে । এ প্রযুক্তি সাধারণত দুই ধরনের কাজে ব্যবহৃত হয় । যথা 

    1. কোন ব্যক্তি সনাক্তকরণ ( Identification ) কাজে 
    2. সত্যতা যাচাই ( Verification ) কাজে lemy 


    ক . ব্যক্তি সনাক্তকরণ ( Identification ) : 

    ব্যক্তি সনাক্তকরণ কাজে প্রচলিত সনাতনী পদ্ধতিতে ভােটার আইডি , পাসপাের্ট অথবা ড্রাইভিং লাইসেন্স ইত্যাদি টোকেন নির্ভর এবং ইউজার নেম , পাসওয়ার্ড বা পিন নাম্বার ইত্যাদি জ্ঞানভিত্তিক পদ্ধতি ব্যবহার করা হয় । এতে জালিয়াতির সুযােগ । থাকে । তাই বর্তমানে মানুষের নিজস্ব একক কোন বৈশিষ্ট্যের আলােকে অর্থাৎ বায়ােমেট্রিক্স পদ্ধতিতে সনাক্তকরণের কাজ করা হয় । এটি অনেক বেশি নিরাপদ ও গ্রহণযােগ্য । 

    খ . সত্যতা যাচাই ( Verification ) : এ পদ্ধতিতে কম্পিউটারে রাখা বায়ােলজিক্যাল ডেটার তুলনা করে ভেরিফিকেশন করা হয় । 


    রােবটিক্স ( Robotics ): 
    রােবট হচ্ছে এক ধরনের মেশিন যা কম্পিউটার প্রোগ্রাম দ্বারা নিয়ন্ত্রিত । এটি মানুষের মতাে কাজ করতে পারে অথবা এর কাজের ধরন দেখে মনে হয় , এর কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা আছে । রােবট যে শুধু মানুষের আকৃতির হবে তা নয় । একে তার কাজের উপযােগী করে আকার এবং আকৃতি দেয়া হয় । রােবট অত্যন্ত দ্রুত গতিতে এবং ক্লান্তিহীনভাবে পূর্বলিখিত প্রােগ্রামের ভিত্তিতে কাজ করতে পারে ।
    প্রথমে নির্দিষ্ট কাজের উপযােগী যান্ত্রিক অংশ তৈরি করা হয় , পরে রােবটের যান্ত্রিক সংগঠনের সাথে একটি কম্পিউটার চিপ সংযুক্ত করা হয় । স্বয়ংক্রিয় যন্ত্রের সাথে এর পার্থক্য হলাে- রােবট একই কাজ বার বার না করে তাকে যেমনটি শেখানাে হয় তেমন বিভিন্ন ধরনের কাজ করে । কিছু কিছু রােবট শুধু প্রোগ্রাম অনুসারে কাজ করে আবার অনেকগুলােকে দূর থেকে লেজার রশ্মি বা রেডিও সিগন্যালের সাহায্যে নিয়ন্ত্রণ করা যায় । শিল্পক্ষেত্রে কঠোর শারীরিক পরিশ্রম বা জটিল এবং বিপদজনক কাজগুলাে রােবটের সাহায্যে করা যায় । এর সাহায্যে বিরামহীনভাবে দীর্ঘ সময় কাজ করতে পারে । 

    রোবটের উল্লেখযােগ্য ব্যবহার হলােঃ 

    ০ মহাকাশ গবেষণায় 
    ০ স্বয়ংক্রিয় বিমান ও গাড়ি চালনায় 
    ০ বাড়ি ঘরের দৈনন্দিন কাজে 
    ০ শিল্প কারখানায় neadem 
    ০ খুব ঠাণ্ডা বা খুব গরম পরিবেশে 
    ০ ওয়েল্ডিং এর কাজে । 
    ০ মাটির নিচে বিভিন্ন খনিতে কাজ করতে 



    Tag: ২০২২ সালের এইচএসসি/আলিম ষষ্ঠ সপ্তাহের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এসাইনমেন্ট সমাধান,  এইচএসসি/আলিম ষষ্ঠ সপ্তাহের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২১


    Previous Post Next Post

    👇 সকল ক্লাসের এসাইনমেন্ট নোটিফিকেশন আকারে সহজে পেতে ডাউনলোড করুন আমাদের এপ্লিকেশন 

     🔝 এসাইনমেন্ট কভার পেইজ PDFলেখার নিয়ম দেখতে ক্লিক করুন 

    TOP POST

    🔽 এস এস সি (সকল সপ্তাহের) এসাইনমেন্ট ২০২২ সমাধান দেখতে ক্লিক করুন

    🔽 এইচ এস সি (সকল সপ্তাহের) এসাইনমেন্ট ২০২২ সমাধান দেখতে ক্লিক করুন

    🔽 ষষ্ঠ-নবম শ্রেণীর (সকল সপ্তাহেরএসাইনমেন্ট সমাধান দেখতে ক্লিক করুন 

    ☀️আপনার নামের অর্থ জানতে ক্লিক করুন 

    ��এসএসসি সকল বই ও নোট ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন