২০২১ সালের এসএসসি/দাখিল ভোকেশনাল ডাইং প্রিন্টিং এন্ড ফিনিশিং-১ (২য় পত্র) এসাইনমেন্ট সমাধান/উত্তর (১ম সপ্তাহ) | এসএসসি/দাখিল ভোকেশনাল ১ম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২১ উত্তর ডাইং প্রিন্টিং এন্ড ফিনিশিং-১ (২য় পত্র) | মার্সেরাইজিং এর ধারণা ও বর্ণনাকরণ


    ২০২১ সালের এসএসসি/দাখিল ভোকেশনাল ডাইং প্রিন্টিং এন্ড ফিনিশিং-১ (২য় পত্র) এসাইনমেন্ট সমাধান/উত্তর (১ম সপ্তাহ)


    মার্সেরাইজিং এর ধারণা ও বর্ণনাকরণ


    মার্সেরাইজিং এর উদ্দেশ্যঃ

    টেক্সটাইল ফিনিশিং - এ মার্সারাইজিং একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় । কার্পাস সুতা ও কাপড়ের উজ্জ্বলতা এবং মসৃণতা স্থায়ীভাবে বৃদ্ধির জন্য মার্সারাইজিং করা হয় । এই পদ্ধতিটি সর্বপ্রথমে জন মার্সার নামক একজন ভদ্রলােক ১৮৪৪ সালে আবিস্কার করেন এবং তাঁর নাম অনুসারেই এই পদ্ধতিটির নামকরণ করা হয়েছে মার্সারাইজিং । এই পদ্ধতিতে ৫৬-৬০ ডিগ্রি টোয়াডেল শক্তি সম্পূর্ণ কস্টিক সােডার দ্রবণে কটন সুতা বা কাপড়কে প্রক্রিয়া করা হয় । মূলত ৫৬-৬০ ডিগ্রি টোয়াডেল শক্তির কস্টিক সােডার দ্রবণে যার তাপমাত্রা ১৮-২০ ° c এর মধ্যে সুতা বা কাপড় কয়েক মিনিট ডুবিয়ে রেখে একে ভালােভাবে ধুয়ে ক্ষারমুক্ত করলে এই সুতা বা কাপড়ের দৈর্ঘ্যের ২৫ % পর্যন্ত কুঁচকে যায় এবং এর শক্তি ৪০ % পর্যন্ত বেড়ে যায় । সুতা বা কাপড় বিস্তৃত করা অবস্থায় রেখে কস্টিক সােডার দ্রবণে ডুবিয়ে ভালােভাবে ধুয়ে ক্ষারমুক্ত করতে পারলে ঐ সুতা বা কাপড় অধিক মাত্রায় উজ্জ্বলতা আনয়ন করা সম্ভব । 

    কটন সুতা বা কাপড়ের উপর কস্টিক সােডার এভাবে বিক্রিয়ার দ্বারা উজ্জ্বলতা এবং মসৃণতা বৃদ্ধিও এই পদ্ধতিকেই মার্সারাইজিং বলা হয় । এই পদ্ধতিটি কার্পাসজাত দ্রব্য যেমন সেলাইসুতা এমব্রয়ডারি সুতা , রুমাল , শাড়ির পাড় , ধুতি , পপলিন সাটিং - সুটিং ইত্যাদি কাপড় মার্সারাইজিং করার জন্য প্রচুরভাবে ব্যবহৃত হয় ।

    কার্পাস সুতা বা কাপড় শুধু এর উজ্জ্বলতা বাড়ানাের জন্যই মার্সারাইজিং করা হয় না বরং তাতে রং গ্রহণ করবার ক্ষমতাও বেড়ে যায় এবং উপরন্তু কার্পাস বস্ত্রের মধ্যে চাকচিক্য পাওয়া যায় , যেমন ভয়েল কাপড় । শুধু কার্পাস দ্রব্যাদি সুতা বা কাপড় আকারে মার্সারাইজ করতে অত্যন্ত সুবিধাজনক । তিনটি কারণে কাপড় বা সুতা মার্সেরাইজিং করা হয় । যথা : 

    ১। প্রসারণীয় শক্তি বৃদ্ধির জন্য 
    ২। উজ্জ্বলতা বৃদ্ধির জন্য 
    ৩। রং গ্রহণ করার ক্ষমতা বৃদ্ধি জন্য । 
    ৪। সুসম রং গ্রহণ করার জন্য । 
    ৫। রঙের স্থায়িত্ব বাড়ার জন্য ।
     
    এটাই মার্সারাইজিং করার মূল আবশ্যকতা

    হ্যাংক পদ্ধতিতে সুতা মার্সেরাইজিং 

    হ্যাংক আকারেও মার্সেরাইজ করার সময় মার্সেরাইজিং মেশিনে দুইটি সমান্তরাল রােলারের মধ্যে সুতা সমান টানে আড়াআড়িভাবে নিতে হয় । মার্সেরাইজিং মেশিনের তিনটি অপরিহার্য গতি রয়েছে । যথা : 

    ( ১ ) সমান্তরাল রোলার দুটির গতি ( যার মধ্যে সুতা হ্যাংক আকারেও থাকে ) একে অপরের থেকে বিস্তৃতি সম্পন্ন যাতে এর সুতা টান রাখতে পারে এবং প্রয়ােজন বােধে কুঁচকিয়ে কস্টিকের দ্রবণের সংস্পর্শে আসে এবং পরবর্তী পর্যায়ে ঢিলা অবস্থায় রােলার থেকে বের করা যায় । 

    ( ২ ) রােলারদ্বয়ের গতি এমন হতে হয় যাতে সুতার সম্পূর্ণ অংশগুলি সমানভাবে কস্টিকের দ্রবণে ধৌত করার সময়ে পানিতে ডুবিয়ে রাখতে পারে । 

    ( ৩ ) সুতা বহন করার ফ্রেমের ওঠা ও নামার গতি দ্বারা সুতা কস্টিকের পাত্রে রাখা ও সরানাে যায় । সুতা সাধারণত মার্সেরাইজিংয়ে রােলারদ্বয়ের ঘূর্ণনের সময় ইচ্ছা অনুযায়ী টান অবস্থায় রাখা হয় । রােলারদ্বয়ের ধারাবাহিক ঘূর্ণনের সময় সুতা ২০ হতে ২৫ % শক্তিসম্পন্ন কস্টিক সােডার দ্রবণে সাধারণ ঘরের তাপমাত্রায় ( Room Temperature ) তিন মিনিটকাল রাখতে হয় । প্রথমে সুতা কস্টিকের দ্রবণে ডুবানাে অবস্থায় কুঁচকায়ে যেতে না পারে সে দিকে নজর রাখতে হবে । এর পরে সম্পূর্ণ ডুবানাে হ্যাঙ্কগুলােকে টেনশন প্রয়ােগ করতে হয় । এরূপে তিন মিনিটকাল কস্টিকের দ্রবণে ক্রিয়া করার পর সুতা উঠিয়ে রােলারের দ্বারা নিংড়াইয়া অতিরিক্ত কস্টিক সােডা বের করে নিতে হয় এবং সুতা মেশিনের মধ্যে টান রেখে প্রথমে গরম পানি ও পরে ঠাণ্ডা পানি দ্বারা ধৌত করতে হয় । এরূপে সুতা ধৌত করার পর প্রায় সব কস্টিক সােডা দ্রবীভূত হয় যার দরুন সুতা মেশিন থেকে বের করার সময় টান কমালেও তা যেন কুঁচকিয়ে না যায় । এর পর সুতা পাতলা সালফিউরিক এসিড মিশ্রিত পানিতে ডুবিয়ে ভালােভাবে ধৌত করে সামান্য অ্যামােনিয়া দ্বারা কস্টিকের কার্যকারিতা নষ্ট করে ভালােভাবে শুকিয়ে নিতে হয় । 

    কাপড় মার্সেরাইজিং

    কাপড় মার্সেরাইজ করা আর সুতা মার্চেরাইজ করার মূলনীতি একই তবে শুধু পার্থক্য এই যে , কাপড় উভয় দিকে টান রাখবার জন্য বিভিন্ন ধরনে স্টেনটার ও মার্সেরাইজার মেশিনের প্রয়ােজন হয় যাতে কাপড়ের দৈর্ঘ্য ও প্রস্থের দিকে সর্বদাই টান থাকে । যে সমস্ত কাপড় মার্সেরাইজ করা হয় তা প্রথমে অবশ্যই সিনজিং করতে হয় । অন্যথায় মার্সেরাইজ প্রক্রিয়া করবার সময় তা কুঁচকিয়ে গিয়ে একপ্রকার বাধার সৃষ্টি হয় । এ ছাড়া মার্সেরইজ করবার পূর্বে কাপড় ডিসাইজিং করতে হয় । কাপড় সম্পূর্ণরূপে ডিসাইজিং ও সিদ্ধ করার পর তা ভালােভাবে ধৌত করতে হয় । স্কাওয়ারিং - এর আগে অথবা পরেও মার্সেরাইজ করা হয় । যখন কাপড় কোড়া অবস্থায় মার্সোইজ করা হয় তখন তার সম্পূর্ণ ক্ষারকে দূরীভূত করার প্রয়ােজন হয় না , কারণ কাপড় কিয়ারে ( Kier ) অবশিষ্ট ক্ষারসহ ব্যবহার করা যায় । 

    যে সমস্ত কাপড়ের বিশেষ কিছু সুতার রং ব্যবহারে করা হয় যেমন- শাড়ি , ধুতি , চেক ইত্যাদি এবং যে সমস্ত কাপড় অধিক পাক দেয়া সুতা দ্বারা দ্বারা তৈরি তা গ্রে আকারে মার্সেরাইজ করাই বাঞ্ছনীয় । কাপড় কোড়া অবস্থায় মার্সেরইজ করার সময় তাতে আর্দ্রতার উপাদান ( Wetting Agent ) ব্যবহার করতে হয় । অপর পক্ষে স্কাওয়ারিং ও ব্লিচিং করা কাপড় মার্সেরাইজ করার সময় আর্দ্রতার উপাদান ( Wetting Agent ) ব্যবহার করতে হয় । অপর পক্ষে স্কাওয়ারিং ও ব্লিচিং করা কাপড় মার্সেরাইজ করার সময় আর্দ্রতার উপাদানের ( Wetting agent ) প্রয়ােজন হয় না । প্রথমে কাপড় সিদ্ধ করে তার শুষে নেওয়ার ক্ষমতা বাড়াতে হয় । এর পর কাপড়টিকে তিনটি খােল নিয়া গঠিত পেডিং ম্যাংগের মধ্যে সাধারণ কক্ষের তাপমাত্রায় ৫৫ ° হতে ৬০ ° ডিগ্রী টোয়াডেল শক্তিসমূহ কস্টিকের দ্রবণে পুরােপুরি ভিজিয়ে রাখতে হয় । 

    পেডিং ম্যাংগেলের তিনটি খােলের মধ্যে দুটি ঢালাই লােহা ও একটি রাবার দ্বারা গঠিত এবং প্রয়ােজন অনুযায়ী পেডিং ম্যাংগেলে আরাে নিংড়ানি রােলার সংযুক্ত করা যায় । যাতে বল প্রয়ােগের সাহায্যে কস্টিক দ্রবণের ক্রিয়া কাপড় প্রবেশ করতে পারে । কস্টিক দ্রবণের শক্তি হ্রাস পেলে তাতে আরাে শক্তিসম্পন্ন ঘন কস্টিক সােডার দ্রবণ যােগ করে এর শক্তি অপরিবর্তনীয় রাখতে হয় ।

    গঠিত এবং প্রয়ােজন অনুযায়ী পেডিং ম্যাংগেলে আরাে নিংড়ানি রােলার সংযুক্ত করা যায় , যাতে বল প্রয়ােগের সাহায্যে কস্টিক দ্রবণের ক্রিয়া কাপড় প্রবেশ করতে পারে । কস্টিক দ্রবণের শ খ্রীষ্ট পেলে তাঁতে আরো শক্তিসম্পন্ন ঘন কস্টিক সােডার দ্রবণ যােগ করে এর শক্তি অপরিবর্তনীয় রাখতে হয় । কস্টিক সােডার দ্রবণে ভিজিয়ে রাখার পরপরই কাপড়কে টানের মধ্যে রাখতে হয় । এ অবস্থায় কাপড়কে উভয়দিকে যেমন টানা ও পড়েনের দিকে টান রাখতে হয় , যাতে কাপড় দৈর্ঘ্য ও প্রস্থের দিকে কুঁচকিয়ে না যায় । যদি শুধু টানার দিকে টান প্রয়ােগ করা হয় , তবে টানার সুতাগুলিই শুধু মার্সেরাইজ হবে এবং উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পাবে , অপর পক্ষে পাবে না এবং যার দরুন ত্রুটিপূর্ণ মার্সেরাইজ হবে । 

    প্রথমে কাপড় রােলারের ভিতর দিয়া পুরাে বহর টান রাখে ২০ থেকে ৩৫ % সাধারণ শক্তিসম্পন্ন কস্টিক সােডার দ্রবণের ভিতর অতিক্রম করাতে হয় এবং এর সব কাপড় তিনখােলা বিশিষ্ট সিলিন্ডারের নিমদিক এবং পরে উপরের দিক থেকে ফ্রেমের মধ্যে কাপড় অতিক্রম করে । এখানে উল্লেখ্য যে , কাপড়ের প্রান্তগুলাে ক্লিপ দ্বারা নির্ধারিত বহর অনুযায়ী টোনে রাখা এবং পরে কাপড় থেকে ক্ষার ধৌত করে বের করাই স্টেন্টারের প্রধান লক্ষ্য । কাপড় থেকে সর্বশেষ অবশিষ্ট ক্ষারমুক্ত করবার জন্য পাতলা সালফিউরিক মিশ্রিত পানি দ্বারা ধৌত করে ক্ষারের কার্যকারিতা নষ্ট করতে হয় । এর পর আরাে একবার কাপড় ধৌত করে তা থেকে অতিরিক্ত এসিড বৃদ্ধি পাবে , অপর পক্ষে পাবে না এবং যার দরুন ত্রুটিপূর্ণ মার্সোইজ হবে । প্রথমে কাপড় রােলারের ভিতর দিয়া পুরাে বহর টান রাখে ২০ থেকে ৩৫ % সাধারণ শক্তিসম্পন্ন কস্টিক সােডার দ্রবণের ভিতর অতিক্রম করাতে হয় এবং এর সব কাপড় তিনখােলা বিশিষ্ট সিলিন্ডারের নিমদিক এবং পরে উপরের দিক থেকে ফ্রেমের মধ্যে কাপড় অতিক্রম করে । 

    এখানে উল্লেখ্য যে , কাপড়ের প্রান্তগুলাে ক্লিপ দ্বারা নির্ধারিত বহর অনুযায়ী টোনে রাখা এবং পরে কাপড় থেকে ক্ষার ধৌত করে বের করাই স্টেন্টারের প্রধান লক্ষ্য । কাপড় থেকে সর্বশেষ অবশিষ্ট ক্ষারমুক্ত করবার জন্য পাতলা সালফিউরিক মিশ্রিত পানি দ্বারা ধৌত করে ক্ষারের কার্যকারিতা নষ্ট করতে হয় । এর পর আরাে একবার কাপড় ধৌত করে তা থেকে অতিরিক্ত এসিড দূরীভূত করা হয় । কখনাে কখনাে মার্সেরাইজ করা কাপড়ে আরাে একবার অতিরিক্ত বৃদ্ধির জন্য প্রক্রিয়া করতে হয় ।


    এসএসসি/দাখিল ভোকেশনাল ১ম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২১ উত্তর ডাইং প্রিন্টিং এন্ড ফিনিশিং-১ (২য় পত্র)



    Tag২০২১ সালের এসএসসি/দাখিল ভোকেশনাল ডাইং প্রিন্টিং এন্ড ফিনিশিং-১ (২য় পত্র) এসাইনমেন্ট সমাধান/উত্তর (১ম সপ্তাহ),  এসএসসি/দাখিল ভোকেশনাল ১ম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২১ উত্তর ডাইং প্রিন্টিং এন্ড ফিনিশিং-১ (২য় পত্র),  মার্সেরাইজিং এর ধারণা ও বর্ণনাকরণ 

    Previous Post Next Post

    👇 সকল ক্লাসের এসাইনমেন্ট নোটিফিকেশন আকারে সহজে পেতে ডাউনলোড করুন আমাদের এপ্লিকেশন 

    আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন