৭ম/সপ্তম শ্রেণীর ১০ম/দশম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট সমাধান/উত্তর ২০২১ শারীরিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য | অতিরিক্ত ব্যায়ামের কুফল বিষয়ক প্রতিবেদন | ৭ম শ্রেণির দশম সপ্তাহের শারীরিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২১

৭ম/সপ্তম শ্রেণীর ১০ম/দশম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট সমাধান/উত্তর ২০২১ শারীরিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য | অতিরিক্ত ব্যায়ামের কুফল বিষয়ক প্রতিবেদন | ৭ম শ্রেণির দশম সপ্তাহের শারিরীক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২১
এ্যাসাইনমেন্ট বা নির্ধারিত কাজ 

একদিন সকালে তুমি দেখলে তােমার প্রতিবেশি জব্বার খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে হাঁটছে । সে একজন ভালাে খেলােয়াড় তুমি জিজ্ঞাসা করলে জব্বার তােমার কি হয়েছে ?

জব্বার বলল - গতকাল ব্যায়াম করতে যেয়ে ব্যাথা পেয়েছি । তুমি পাঠ্যবইয়ের আলােকে জেনেছ অতিরিক্ত ব্যায়ামের ফলে শরীরের অনেক ক্ষতি সাধিত হয় । এ বিষয়ে ২০০ শব্দের একটি প্রতিবেদন তৈরি কর ।

       
       

    ৭ম/সপ্তম শ্রেণীর ১০ম/দশম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট সমাধান/উত্তর ২০২১ শারীরিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য

    তারিখ : ....
    জুলাই , ২০২১
    বরাবর ,
    প্রধান শিক্ষক
    মৌলভীবাজার সরকারি স্কুল
    মৌলভীবাজার ।
    বিষয় : অতিরিক্ত ব্যায়ামের কুফল বিষয়ক প্রতিবেদন ।

    জনাব , বিনীত নিবেদন এই যে , গত ১৯ জুলাই ২০২১ ইং তারিখে প্রকাশিত । আপনার আদেশ যাহার স্মারক নং হা.আ.সা.উ.বি ০৭/২০২১ অনুসারে “ অতিরিক্ত ব্যায়ামের কুফল ” শীর্ষক প্রতিবেদনটি নিম্নে পেশ করছি ।

    অতিরিক্ত ব্যায়ামের কুফল ভূমিকাঃ

    স্বাভাবিক ভাবে জীবন - যাপন করার জন্য এবং সুস্থ থাকার জন্য ব্যায়াম করা অত্যন্ত জরুরি । শরীরকে সুস্থ রাখার জন্য ব্যাযাম এর কোন বিকল্প নেই । আমাদের শরীরকে সুস্থ রাখার জন্য অবশ্যই শরীরচর্চা করতে হবে । কিন্তু এই ব্যায়াম এর মাত্রা অতিরিক্ত হয়ে গেলে অনেক সময় শরীরে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দেয় ।

    শারীরিক সমস্যাবলীঃ ব্যায়াম এর মাত্রা অতিরিক্ত হয়ে গেলে অনেক সময় শরীরে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দেয় । এই সমস্যাগুলাে সম্পর্কে নিয়ে আলােচনা করা হলাে : শক্তি কমে যাওযা : অতিরিক্ত মাত্রায় ব্যায়াম করার ফলে শক্তি কমে যায় । যদি সাধারণ মাত্রায শরীরচর্চা করতে না পারা যায় অথবা সবসময় শারীরিক ও মানসিকভাবে ক্লান্ত অনুভূত হয়। তাহলে বুঝতে হবে শরীর ক্লান্ত । আর তখন পর্যাপ্ত বিশ্রাম নেওয়া প্রযােজন ।

    কর্ম ক্ষমতা কমে যাওযা : বিভিন্ন শরীরচর্চা যেমন- সাইকেল । চালানাে , সাঁতার কাটা এবং দৌড়ানাে ইত্যাদি কাজে যদি নিজের কর্মক্ষমতার ঘাটতি দেখা যায় তাহলে বুঝতে হবে অতিরিক্ত পরিশ্রম হচ্ছে । পরিশ্রম খুব বেশি হলে তা মানুষের কর্মক্ষমতা কমিয়ে দেয় । আর এজন্য অতিরিক্ত ব্যায়াম না করে নিজের কর্মক্ষমতা অনুযায়ী ব্যায়াম করতে হবে ।

    মানসিক স্বাস্থ্যের অবনতি হওয়াঃ প্রিভেন্টেটিভ মেডিসিন জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণার ফলাফল থেকে জানা যায় , সপ্তাহে যদি সাড়ে সাত ঘন্টার চেয়ে বেশি সময শরীরচর্চা করা হয় তাহলে উদ্বিগ্ন হওযা , হতাশা এবং মানসিকভাবে দুর্বল বােধ করতে পারে । অতিরিক্ত পরিশ্রম শরীরকে দ্বিধা , উদ্বেগ , রাগ এবং ' মুড সুইং'যের মতাে সমস্যার মুখােমুখি করে । তাই আমাদের মন ও দেহ সুস্থ  রাখার জন্য পরিমিত পরিমাণে ব্যায়াম করতে হবে ।

    ঘুম পরিপুর্ণ না হওয়া : পরিশ্রম করলে শরীর ঠিক থাকে এবং রাতে ভালাে ঘুম হয় । তবে অতিরিক্ত পরিশ্রম বা ব্যায়াম করা হলে সারা রাত খুব অস্থিরতার মধ্যে কাটে এবং ঘুমে ব্যাঘাত ঘটে । পর্যাপ্ত ঘুম মানুষের শরীর সুস্থ রাখে । তাই সুস্থ থাকার জন্য আমাদের পরিমিত ব্যায়াম করতে হবে এবং পর্যাপ্ত সময় ঘুমাতে হবে ।

    ব্যাথার সৃষ্টি হওযা : ব্যায়ামের পর পেশি পুনর্গঠনের জন্য সময় দেওযা প্রযােজন । না দিলে শরীরে ব্যাথা হয় যা দৈনন্দিন কাজ কর্মে বাধা তৈরি করে । পাশাপাশি বাজে অনুভূতির সৃষ্টি হয় । সবসময় ফুরফুরে মেজাজে থাকার জন্য অতিরিক্ত ব্যায়াম পরিহার করতে হবে ।

    প্রস্রাবের রং পরিবর্তন হওযা : শারীরিক পরিশ্রমের পরে যদি প্রস্রাবের রং পরিবর্তন হয় তাহলে বুঝতে হবে এটা ' রাইবডােমাযােলাইসিস ' অবস্থার লক্ষণ । এতে ক্ষতিগ্রস্ত পেশির কোষ রক্তে মিশে যায় । ফলে কিডনির সমস্যাও দেখা দিতে পারে । তাই অবশ্যই দেহের ক্ষতি করতে না চাইলে আমাদের অতিরিক্ত ব্যায়াম পরিহার করতে হবে । 

    হৃদরােগ হওয়া : জার্মান বিজ্ঞানীদের গবেষণা থেকে জানা গেছে যে যারা অতিরিক্ত ব্যায়াম করে তাদের হৃদরােগ এবং স্ট্রোক হওযার সম্ভাবনা বেশি থাকে । হৃদযন্ত্র খুব বেশি চাপে থাকলে এর স্পন্দনের মাত্রা বেড়ে যায় । হৃদস্পন্দনের মাত্রা সাধারণের চেয়ে বেশি হলে বুঝতে হবে শারীরিক পরিশ্রম বেশি হচ্ছে । তাই এসব মরণব্যাধি থেকে বাচতে অবশ্যই অতিরিক্ত ব্যায়াম পরিহার করতে হবে ।

    সংযােগস্থলের সমস্যা হওয়া : অতিরিক্ত ওজন নিয়ে ব্যায়াম ক করলে । শরীরের সংযােগস্থলে আঘাতের সৃষ্টি হয় । ফলে জয়েন্টে ব্যাথা , পেশিতে ব্যাথা হতে পারে । তাই এই দুরারােগ্য ব্যাধি থেকে দূরে থাকতে অবশ্যই অতিরিক্ত ব্যায়াম পরিহার করতে হবে ।

    উপসংহারঃ শারীরিক সুস্থতা বজায় রাখার জন্য ব্যায়াম করা যেমন জরুরি তেমনি অতিরিক্ত ব্যায়াম করা আবার শরীরের জন্য ক্ষতিকারক । তাই একটি সুস্থ সুন্দর ও ভালাে জীবন যাপন করার জন্য আমাদের উচিত পরিমিত পরিমাণে ব্যায়াম করা এবং অতিরিক্ত পরিমাণে ব্যায়াম প্রত্যাহার করা ।

    প্রতিবেদকের নাম
    প্রতিবেদেন তৈরির সময়-
    রােল-
    শ্রেণি-
    শাখা- 


    Tag:৭ম/সপ্তম শ্রেণীর ১০ম/দশম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট সমাধান/উত্তর ২০২১ শারীরিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য, অতিরিক্ত ব্যায়ামের কুফল বিষয়ক প্রতিবেদন,৭ম শ্রেণির দশম সপ্তাহের শারিরীক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য এসাইনমেন্ট সমাধান ২০২১

    Previous Post Next Post

    👇 সকল ক্লাসের এসাইনমেন্ট নোটিফিকেশন আকারে সহজে পেতে ডাউনলোড করুন আমাদের এপ্লিকেশন 

    আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন