নবম শ্রেণীর ৩য় সপ্তাহের Assignment Solutions বিজ্ঞান | Class 9 Science Assignment Answer

নবম শ্রেণীর ৩য় সপ্তাহের Assignment Solutions বিজ্ঞান 

নবম শ্রেণীর ৩য় সপ্তাহের Assignment Solutions বিজ্ঞান


১নং সৃজনশীল

 (ক) নং প্রশ্নের উত্তর

খুব মিহি ও মসৃণ সুতা বা কাপড়ের ক্ষেত্রে তন্তু থেকে অতিরিক্ত ধটোতন্তুগুলাে বাদ দেওয়ার জন্য কার্ডিং, এরপর কম্বিং করতে হয়। ফলে অবশিষ্ট উপযুক্ত

দৈর্ঘ্যের তন্তুগুলাে একটি পাতলা আস্তরণে রূপান্তরিত হয়। এই পাতলা আস্তরণকে স্লাইভার বলে।

(খ) নং প্রশ্নের উত্তর

নাইলন সেলুলােজ থেকে তৈরি হয় না। এজন্য নাইলনকেনন সেলুলােজিক তন্তু বলা হয়। কৃত্রিম নন- সেলুলােজিক তন্তুর মধ্যে নাইলন সর্বপ্রধান। সাধারণত এডিপিক এসিড এবং হেক্সমিথিলিন ডাই অ্যামিন নামক রাসায়নিক পদার্থের পলিমারকরণ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে নাইলন তৈরি হয়। নাইলনকে প্রধানত দুই শ্রেণীতে ভাগ করা যায়- নাইলন ৬৬ এবং নাইলন ৬। নাইলন খুব হালকা ও শক্ত ভিজলে এর স্থিতিস্থাপকতা দ্বিগুণ হয়। এটি আগুনে।পােড়ে না, তবে গলে গিয়ে বােরাক্স বিডের (Borax Bead) এর মতাে স্বচ্ছ বিড

গঠন করে। কার্পেট, দড়ি, টায়ার, প্যারাসুটের কাপড় ইত্যাদি তৈরি করতে নাইলন ব্যবহৃত হয়।

গনং প্রশ্নের উত্তর 

শীত নিবারণের জন্য শান্তর পশমি কাপড় পরা দরকার ছিল। তাপ কুপরিবাহী বলে পশমি কাপড় শীতবস্ত্র হিসেবে বহুল ব্যবহৃত হয়।

এ কাপড়ের তত্ত্বর মাঝে ফাঁকা জায়গা থাকে, যেখানে বাতাস আটকে থাকে। পশম তাপ কুপরিবাহী বিধায় শীতের দিনে শরীর থেকে তাপ বেরিয়ে যেতে পারে না। তাই গায়ে দিলে গরম বােধ হয়। শান্ত শীত নিবারণের জন্য একটি সুতি শার্টের ওপর আর সুতি শার্ট পরে। সুতি শার্টের তাপ পরিবহন ও পরিচলন ক্ষমতা বেশি থাকায় শীতকালে দেহের তাপ অধিকহারে বেরিয়ে যায়। তাই শান্তর স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি শীত

এ কাপড়ের তর মাঝে ফাঁকা জায়গা থাকে, যেখানে বাতাস আটকে থাকে। পশম তাপ কুপরিবাহী বিধায় শীতের দিনে শরীর থেকে তাপ বেরিয়ে যেতে পারে না। তাই গায়ে দিলে গরম বােধ হয়। শান্ত শীত নিবারণের জন্য একটি সুতি শার্টের ওপর আর একটা সুতি শার্ট পরে। সুতি শার্টের তাপ পরিবহন ও পরিচলন ক্ষমতা বেশি থাকায় শীতকালে দেহের তাপ অধিকহারে বেরিয়ে যায়। তাই শান্তর স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি শীত লাগছিল। সুতরাং শান্তর সুতির শার্ট না পরে পশমি কাপড় পরা দরকার ছিল।


ঘনং প্রশ্নের উত্তর

তর গঠনগত বৈশিষ্ট্যের কারণে শান্তর একই কাপড়ে দুই সময় দুই ধরনের অনুভূতি লাগে। গরমের দিনে আমরা সুতির পােশাক পরতে স্বাচ্ছন্দ্যবােধ করি। সুতির সুতার তাপ পরিবহন ও পরিচালন ক্ষমতা বেশি। ফলে এটি তাপ সুপরিবাহী। শরীর থেকে তাপ সহজেই বের হতে পারে বলে গরমের দিনে সুতির পােশাক পরিধানে আমরা আরাম বােধ করি।  আবার এই একই কাপড় শীতকালে পরিধানে আমাদের আরাে বেশি শীত লাগবে। কারণ, এটি শরীর থেকে তাপ বের করে দিয়ে আমাদের আরও বেশি শীতের অনুভূতি জোগায়। শীতকালে পশমের মতাে তাপ কুপরিবাহী কাপড়ের পােশাক পরিধানে আরাম বােধ হয়।

শান্ত যখন তিন মাস আগে একটিমাত্র শার্ট পরে স্কুলে যেত তখন তার আরাম অনুভূত হতাে। এর কারণ গরমের দিনে শরীরের তাপ সুতি কাপড় দ্বারা পরিবাহিত হয়ে দেহের বাইরে বের হয়ে যেতাে। ফলে সে আরাম বােধ করতাে।

সুতরাং একই কাপড়ে দুই সময় দুই ধরনের অনুভূতি লাগার কারণ হলাে সুতার বৈশিষ্ট্য।

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post